Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

আর্মেনিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রে ১৩ আজেরি নিহত

যুদ্ধাবস্থা নিয়ে এরদোগান-জাস্টিন ট্রুডো ফোনালাপ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০১ এএম

আর্মেনিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে আজারবাইজানের অন্তত ১৩ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। শনিবার আজারবাইজানের প্রসিকিউটর জেনারেলের কার্যালয় এই তথ্য জানিয়েছে। গ্যাঞ্জা শহরে আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৪০ জন। আজারবাইজান জানিয়েছে, আজ দেশটির দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর গ্যাঞ্জাতে আর্মেনিয়ার সেনাবাহিনীর ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্র একটি অ্যাপার্টমেন্ট ভবনে আঘাত হেনেছে। আজেরি প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভের এক সহকারী হিকমত হাজিয়েভ টুইটারে জানিয়েছে, প্রাথমিক তথ্য অনুসারে ২০টির বেশ বাড়ি ধ্বংস হয়েছে। আর্মেনিয়া এই খবর প্রত্যাখ্যান করে বলেছে, আজারবাইজান নাগরনো-কারাবাখের স্টেপানাকার্টে গোলাবর্ষণ অব্যাহত রেখেছে আর্মেনিয়া। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, গ্যাঞ্জাতে শনিবার ভোরে দ্বিতীয় ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হেনেছে। তৃতীয় আরেকটি ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানে কৌশলগত শহর মিঙ্গেসেভিরে। আজারবাইজান আর্মেনীয় বিদ্রোহীদের রাজধানী স্টেপানাকার্টে গোলা নিক্ষেপ করার কয়েক ঘণ্টা পর এই ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়। বার্তা সংস্থা এএফপি’র প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলে উদ্ধারকর্মীরা কাজ করছেন। কালো ব্যাগে লাশ নিয়ে যেতে দেখেছেন তারা। হামলায় কয়েকটি বাড়ি একেবারে ধ্বংস হয়ে গেছে। অপরদিকে, আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যকার বিদ্যমান যুদ্ধাবস্থা নিয়ে তুরস্কের সঙ্গে আলোচনা করেছে কানাডা। তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের সঙ্গে কথা বলেছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। শুক্রবার দুই নেতার মধ্যে এ ফোনালাপ অনুষ্ঠিত হয়। তুর্কি প্রেসিডেন্টের যোগাযোগ দফতর থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম ডেইলি সাবাহ। ফোনালাপে আজারবাইজান-আর্মেনিয়া যুদ্ধাবস্থা ছাড়াও দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক, পারস্পরিক বাণিজ্য বাড়ানো এবং প্রতিরক্ষা খাতে সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করেন দুই নেতা। এরদোগান বলেন, কানাডা তুরস্কে কিছু সামরিক সরঞ্জাম রফতানি স্থগিতের যে উদ্যোগ নিয়েছে তা জোটগত চিন্তার সঙ্গে সাংঘর্ষিক। ন্যাটো মিত্র তুরস্কের কাছে সম্প্রতি সামরিক সরঞ্জাম রফতানি স্থগিত করে কানাডা। আজারবাইজান-আর্মেনিয়া সংঘাতে তুরস্ক কানাডিয়ান সামরিক প্রযুক্তি ব্যবহার করছে এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই সিদ্ধান্ত নেয় অটোয়া। তবে সামরিক সরঞ্জাম রফতানি স্থগিতের কানাডার সিদ্ধান্তকে দ্বিমুখী আচরণ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে তুরস্ক। এর প্রেক্ষিতেই শুক্রবারের আলোচনায় আজারবাইজান-আর্মেনিয়া যুদ্ধাবস্থা ও সামরিক সরঞ্জাম রফতানি তথা প্রতিরক্ষা খাতে সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করেন এরদোগান ও ট্রুডো। ডেইলি সাবাহ, এএফপি, পার্সটুডে।



 

Show all comments
  • Bithi Akhter ১৮ অক্টোবর, ২০২০, ১:০৩ এএম says : 0
    অতি দ্রুত নিজ দেশ শত্রু মুক্ত করতে হবে। জনগণ অনেক রক্ত দিচ্ছে এর প্রতিশোধ হবে দেশ শত্রু মুক্ত করে।
    Total Reply(0) Reply
  • Sumon Ali Ali ১৮ অক্টোবর, ২০২০, ১:০৩ এএম says : 0
    তুরস্ক ও ইজরায়েলের মত শক্তিশালি দেশের সাপোর্ট, সিরিয়ার থেকে ভাড়াটে সৈন্য,প্রতিপক্ষের সামরিক শক্তির চেয়ে অনেক বেশি এগিয়ে থেকেও মাত্র ১৪দিন যুদ্ধ করার পর কোন শর্ত ছাড়াই যুদ্ধবিরতিতে যাওয়ায় খুবই অবাক হলাম।এতো কিছু থাকার পরও নিজ ভূমি অন্যদের দ্বারা দখলকৃত। এদের ঘুম আসে কিভাবে?
    Total Reply(0) Reply
  • বাংলা আর্কাইভস ১৮ অক্টোবর, ২০২০, ১:০৪ এএম says : 0
    কিসের যুদ্ব বিরুতি,কিসের সমঝোতা। আর্মেনিয়াকে পৃথিবীর মানচিত্র থেকে মুছে ফেলতে হবে। শুভ কামনা আজারবাইজান।
    Total Reply(0) Reply
  • Mas Shahed ১৮ অক্টোবর, ২০২০, ১:০৪ এএম says : 0
    আজারি সেনাদের সাথে না পেরে সাধারণ মানুষের উপর কাপুরুষোচিত হামলা
    Total Reply(0) Reply
  • Muazzem Hossain ১৮ অক্টোবর, ২০২০, ১:০৪ এএম says : 0
    আর্মেনিয়ান রা মাইর খাইতে খাইতে হুস হারিয়ে এখন আজারবাইজানী জন বসতি তে হামলা চালিয়েছে,,, অচিরেই উচিৎ জবাব দিবে ইনশাআল্লাহ
    Total Reply(0) Reply
  • Abdulaziz Nakib ১৮ অক্টোবর, ২০২০, ১:০৫ এএম says : 0
    মুসলিম নেতাদের গাদ্দারির কারণে অধিকাংশ সময়েই মুসলিমরা নির্যাতিত হয়। যদি আজারবাইজান পরাজিত হ‌ওয়ার উপক্রম হত, তাহলে কখনোই শান্তি আলোচনার কথা আসতো না। কিন্তু যখন আর্মেনিয়া পরাজিত হতে লাগলো তখন শান্তি আলোচনার প্রস্তাব আসল। আর মুসলিম নেতারা তা মেনেও নিল, নিজেদের বৈধ অধিকার থেকে হাত ধুয়ে!
    Total Reply(0) Reply
  • Mojammel Hauqe ১৮ অক্টোবর, ২০২০, ১:০৫ এএম says : 0
    যুদ্ধ বিরতি নামে তামসা হচ্চে। মুসলিমজাতি ঐক্যবদ্ধ হও। দখলকারী নিশপিতি করো। তুরস্ক মতো এগিয়ে আসো।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আর্মেনিয়ার-ক্ষেপণাস্ত্র
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ