Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

তার কাটা বন্ধ: লাইন যাবে মাটির নিচ দিয়ে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ অক্টোবর, ২০২০, ২:০৬ পিএম | আপডেট : ৩:১৪ পিএম, ১৮ অক্টোবর, ২০২০

ইন্টারনেট ও ক্যাবল টিভির তার মাটির নিচ দিয়ে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) এবং ক্যাবল অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব)। ঝুলন্ত তার সরিয়ে আগামীকাল সোমবার থেকেই নিজ খরচে মাটির নিচ দিয়ে তার নেয়ার কার্যক্রম শুরু করবে তারা। এই শর্তে নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়ে আপাতত তার অপসারণের অভিযান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি)।

রোববার (১৮ অক্টোবর) ডিএসসিসির নগরভবনে মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের সঙ্গে আইএসপিএবি ও কোয়াব নেতাদের বৈঠকে এ সমঝোতা হয়।

বৈঠকের পর এক ব্রিফিংয়ে মেয়র তাপস বলেন, দক্ষিণ সিটির পক্ষ থেকে রাস্তায় কোনো ঝুলন্ত তার আজকের পর থেকে কাটা হবে না। আমাদের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, তারা নিজ খরচে মাটির নিচ দিয়ে তারের সংযোগ নেবেন এবং সঙ্গে সঙ্গে ওপরে ঝুলন্ত তার কেটে দেবেন। আর এটি আগামী নভেম্বরের মধ্যেই তারা শেষ করবেন বলে আমাদের কমিটমেন্ট দিয়েছেন। সে কারণেই আমরা তার কাটব না।

ঝুলন্ত তার সরিয়ে মাটির নিচ দিয়ে নিতে সিটি কর্পোরেশনের রাস্তা খোঁড়ারও অনুমতি দেয়া হয়েছে জানিয়ে মেয়র বলেন, সেই রাস্তা পরে সিটি কর্পোরেশনের খরচেই মেরামত করা হবে।

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ঝুলন্ত তারের জঞ্জাল সরাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে যে অভিযান গত আগস্ট মাসে শুরু হয়েছিল, তা বন্ধের দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল আইএসপিএবি ও কোয়াব।

বিকল্প ব্যবস্থা না করে তার অপসারণের কাজ বন্ধ না করলে রোববার থেকে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত সারা দেশে ইন্টারনেট ও ক্যাবল টিভি সেবা বন্ধের ঘোষণা ছিল তাদের। সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে সমঝোতা হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে আইএসপিএবি ও কোয়াব।

আইএসপিএবি সভাপতি আবদুল হাকিম জানান, দক্ষিণের মেয়রের সঙ্গে বৈঠকে তার অপসারণ অভিযান স্থগিত হওয়ায় এখন আর তারা ধর্মঘটে যাচ্ছেন না। কোয়াবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এসএম আনোয়ার পারভেজসহ দুই সংগঠনের সিনিয়র নেতারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ