Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

প্রতিবন্ধী রিনার জীবন ধারণে অনিশ্চয়তা

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৯ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০১ এএম

একটি কার্যকর কৃত্রিম পা’র অভাবে বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী এতিম রিনা আক্তারের জীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে। ঝালকাঠীর রাজাপুর উপজেলার পুটিয়াখালী গ্রামের মরহুম মোজাম্মেল হকের মেয়ে রিনা। বাবার চাকরির সুবাদে খুলনায় থাকাকালে ছোট বয়সে ট্রেনে কাটা পড়ে ডান হাত ও পা হারায় রিনা। বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী রিনা খেলতে খেলতে রেললাইনের ওপরে চলে এলেও ট্রেনের হুইসাল না শুনতে পেয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পরে। মহান আল্লাহর রহমতে স্থানীয়দের সহায়তায় চিকিৎসায় মেয়েটি বেঁচে গেলেও পঙ্গু হয়ে যায়। স্থানীয়দের সহায়তায় কৃত্রিম পা লাগিয়ে রিনা চলাফেরা করলেও বয়সের ব্যবধানে সে পা ইতোমধ্যে ছোট হয়ে ব্যবহারের সম্পূর্ণ অনুপযোগী হয়ে পড়েছে, বরং তার শরীরে ক্ষত সৃষ্টি হচ্ছে।
রিনার বয়স যখন দশ বছর সংসারের মায়া কাটিয়ে বাবা মোজাম্মেল এ দুনিয়া ত্যাগ করেন। ফলে দুই কন্যা সন্তান নিয়ে যেন আকাশ ভেঙে পড়ে রিনার মা জয়নব বিবির সংসারে। বছর কয়েক খুলনার বিভিন্নজনের ঘরে গৃহকর্মীর কাজ করে শেষ পর্যন্ত ফিরে আসেন নিজ গ্রাম রাজাপুরের পুটিয়াখালী গ্রামে।
এখানে এসে একটি খুপরী ঘর তুলে জয়নব কোনভাবে দুই কণ্যা সন্তানকে আগলে রাখেন। কিন্তু নিয়তির নির্মম পরিহাস কিছুদিনের মাথায় দুই কণ্যা সন্তানকে অথৈ সাগরে ভাসিয়ে জয়নবও চলে যান না ফেরার দেশে। ফলে মোজাম্মেলÑজয়নবের ২ এতিম মেয়ের এখন দিন শুরু হয় ক্ষুধার জ্বালা আর বেঁচে থাকার যন্ত্রনা নিয়ে। আর বাক ও শ্রবন প্রতিবন্ধী রিনার কৃত্রিম পা এখন আর কোন কাজে আসছে না। বরং তা ব্যবহার করলেই পায়ে যন্ত্রনা বাড়ে। ইতোমধ্যে বসত ঘরটিও বিনষ্ট হয়ে গেলে তারা অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নেয়।
স্থানীয় কলেজ ছাত্র মেহেদি একটি সেচ্ছাসেবী সংস্থার সভাপতি সৈয়দ শাহদতকে নিয়ে রিনা ও তার বোনের জন্য একটি মাথা গোজার ব্যবস্থা করেছে। জেলা প্রশাসন থেকে এ কাজে কিছু নগদ অর্থ ও ঢেউটিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ থেকে রিনার জন্য প্রতিবন্ধী ভাতারও ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু স্থায়ী কোন আয়ের সংস্থান না হওয়ায় অনাহার-অর্ধহারই রিনা ও তার বোনের নিত্য সঙ্গী এখনো। তার ওপর কৃত্রিম পা না থাকায় চলার শক্তিহীন হয়ে পড়েছে রিনা। একটি কৃত্রিম পা-এর অভাবে শরীরটাকে সে আর বয়ে নিতে পারছে না। তার বড় বোন পঙ্গু এবং বাক ও শ্রবন প্রতিবন্ধী রিনাকে নিয়ে সামনে শুধু অনিশ্চয়তাই দেখছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন