Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

বিএনপির দাবি পুনঃনির্বাচন

খালেদা জিয়া মুক্ত নন : ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০০ এএম

ঢাকা-৫, পাবনা-৪ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি। একইসাথে পুনঃনির্বাচনের দাবি জানিয়েছে দলটি। দাবি আদায়ে দুই দিনের কর্মসূচিও ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল রোববার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানান দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, তিনটি আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ এবং সরকার দলীয় সন্ত্রাসী আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তায় ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনের মতই ত্রাস সৃষ্টি করে এবং কেন্দ্র দখল করে জাল ভোট দিয়ে সীল মেরে বিরোধী দলের এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে জোর করে বের করে দিয়ে ভোট ছিনতাই করে। নির্বাচন কমিশন নির্বীকার দর্শকের ভূমিকা পালন করে। রিটানিং অফিসার ধানের শীষের প্রার্থীদের অভিযোগ গ্রহণ করেনি। বিনা ভোটে স্বঘোষিত সরকার একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার নীল নকশা বাস্তবায়নের জন্য ২০১৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর মধ্যরাতে ভোট ডাকাতির কৌশলে জনগণকে আবারও প্রতারিত করল। অযোগ্য এবং সরকারের বশংবদ নির্বাচন কমিশন ক্রীড়নকের ভূমিকা পালন করছে। সুপরিকল্পিতভাবে তারা বাংলাদেশের জনগণকে ভোটের অধিকার বঞ্ছিত করে দেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এই অবৈধ সরকার রাষ্ট্র যন্ত্রকে ব্যবহার করে দেশে ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করে একদিকে নজীরবিহীন দুর্নীতি ও দুঃশাসন অন্যদিকে জনগণের সাংবিধানিক অধিকার হরণ করে ফ্যসিস্ট রাজত্ব কায়েম করেছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, পাবনা- ৪ এর নির্বাচনের ২ দিন আগে থেকেই নিজেরাই নিজেদের নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়ে বিরোধীদলের ওপর মিথ্যা মামলা দিয়ে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার হয়রানী ও ভীতি প্রদর্শন করেছে এবং নির্বাচনের দিনে ভোট কেন্দ্রগুলো দখল করে ধানের শীষের এজেন্টদের মার ধর করে বের করে জাল ভোট দিয়ে ভোট ডাকাতি করেছে। অন্যদিকে নির্বাচন কমিশন ইভিএম দিয়ে ভূয়া ফলাফল তৈরী করে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে বিজয়ী ঘোষণা করেছে। একইভাবে নওগাঁ-৬ উপ-নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেয়। এখানে আওয়ামী সন্ত্রাসী, পুলিশ, বিডিআর ও র‌্যাব যৌথ ভাবে ধানের শীষের ভোটার ও কর্মীদের কেন্দ্র থেকে ত্রাস সৃষ্টি করে বের করে দেয়। নির্বাচন কর্মকর্তাদের সহায়তায় কাল্পনিক ফলাফল তৈরী করে।

ঢাকা-৫ ডেমরা এর ব্যতিক্রম নয়। ১৬২টি কেন্দ্র থেকে সব এজেন্টদের বের করে দেয় এবং ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেয় না। এরপর একইভাবে নির্বাচনী কর্মকর্তা ভোটের ফলাফল ঘোষণা করেন। নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দেওয়ার পরেই নির্বাচন কমিশন কোনও ব্যবস্থা তো নেন নি উপরন্ত প্রধান নির্বাচন কর্মকর্তা নিলর্জ্জের মতো বলেন যে, ভোট সুষ্ঠু হয়েছে।
তিনি বলেন, আমরা নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছি এবং নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় নির্বাচনের দাবী জানাচ্ছি। এই দাবিতে আগামী ১৯ অক্টোবর সারা দেশে মহানগর ও জেলা সদরে এবং ২০ অক্টোবর থানা/উপজেলা পর্যায়ে বিক্ষোভ সমাবেশ মানববন্ধনের কর্মসূচি পালন হবে।

খালেদা জিয়া মুক্ত নন: সরকারের নির্বাহী আদেশে খালেদা জিয়ার সাজা সাময়িক স্থগিত হলেও ‘তিনি মুক্ত নন’ বলে মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) মুক্ত নন। সি ইজ নট ফ্রি। সাজা স্থগিত হলে তো তার ওপর তো কোনো বিধি-নিষেধ থাকার কথা না। ডিফারেন্সটা হচ্ছে যে, শুধুমাত্র হাসপাতাল থেকে তাকে তার বাসায় নিয়ে আসা হয়েছে। ওখানে তিনি হোমলি পরিবেশের মধ্যে আছেন। যেটাকে সোজা কথা বললে বলা যায়-এটা হচ্ছে যে, গৃহে অন্তরীণ করা।

চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া শারীরিক অবস্থার বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ম্যাডাম অসুস্থ। আমরা যেটা চেয়েছিলাম, তার একটা এডভান্স ট্রিটমেন্ট। কারণ এখানে ডাক্তার যারা আছেন তারা বলছেন যে, সি নিডস অ্যাডভান্স ট্রিটমেন্ট। সেটা তো আমাদের এখানে নেই। এমনকি এই ডিজিজের জন্য যে এডভান্স ট্রিটমেন্টগুলো সেগুলো আসলে বাংলাদেশে নেই। ট্রিটমেন্টে আছে হয়ত কিন্তু সেই ট্রিটমেন্টের জন্য আনুসাঙ্গিক যে ব্যাপারগুলো আছে-রক্ত পরীক্ষা, অন্যান্য পরীক্ষা, একটা থ্যারাপী দেয়ার পরে তার ফলোআপ করার যে সমস্ত বিষয়গুলো সেগুলো এখানে পরিপূর্ণভাবে নেই।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির রাশ টেনে ধরতে সরকারের ব্যর্থতার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। গণতন্ত্রহীন সংস্কৃতি, জবাবদিহীতার অভাব এবং একনায়কতন্ত্রের ভয়াবহতার কারণে দেশে ধর্ষণ, নারী নির্যাতনের মতো ঘটনা ঘটছে জানিয়ে দ্রুত বিচারের মাধ্যমে বিচার সুনিশ্চিত করার দাবী জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিএনপি

২৪ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ