Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

কথার মাঝে কথা বলা বন্ধে ট্রাম্প-বাইডেন চূড়ান্ত বিতর্কে মাইক্রোফোন অফ!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ অক্টোবর, ২০২০, ১২:১৩ পিএম

কথার মাঝে কথা বলা বন্ধে ট্রাম্প-বাইডেন চূড়ান্ত বিতর্কে মাইক্রোফোন অফ থাকবে।প্রথম বিতর্কের তুমুল বিশৃঙ্খলার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিতর্কের কমিটি চূড়ান্ত বিতর্কের দিন নিয়ম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আয়োজকরা বলছেন, ২২ অক্টোবরের বিতর্কের দিন এক প্রার্থী কথা বলার সময় অন্য প্রার্থীর মাইক্রোফোন বন্ধ থাককে। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের রিপাবলিকান প্রচারণা শিবিরের ব্যবস্থাপক বিল স্টেফন এক বিবৃতিতে বলেছেন, নিজেদের পছন্দের প্রার্থীকে সুবিধা দিতে পক্ষপাতদুষ্ট কমিশন শেষ মুহুর্তে বিতর্কের নিয়ম পরিবর্তন করেছে। তবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বিতর্ক করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। -সিএনএন, বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ান

বিতর্কের বিষয়বস্তু নিয়েও আপত্তি তোলে রিপাবলিকান শিবির। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাতের এই বিতর্কের বিষয় ‘কোভিড-১৯ মহামারী, ‘মার্কিন পরিবার’, ‘আমেরিকায় সম্প্রদায়’, ‘জলবায়ু পরিবর্তন’, ‘জাতীয় নিরাপত্তা’ ও ‘নেতৃত্ব’ নির্ধারণ করেছে কমিশন। ট্রাম্প শিবির বলছে, বিতর্কে ‘পররাষ্ট্রনীতি’কে বাদ দিয়ে কমিশন ডেমোক্রেট শিবিরকে সুবিধা দিচ্ছে। বাইডেনের মুখপাত্র টিজে ডুকলো ট্রাম্প শিবিরের অভিযোগ নিয়ে এক বিবৃতিতে বলেন, দুই শিবিরই পূর্বে একমত হয়েছিলো বিতর্কের উপস্থাপকই বিষয় নির্ধারণ করবেন। কিন্তু ট্রাম্প মহামারী নিয়ে সম্ভাব্য প্রশ্নের উত্তর দিতে ভয় পাচ্ছেন। এর আগে প্রথম বিতর্কে ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন ও উপস্থাপকের কথা বলার মাঝখানে বারবার কথা বলেন ট্রাম্প। একপর্যায়ে বাইডেন মেজাজ হারিয়ে ট্রাম্পকে বলেন, আপনি কি মুখটা বন্ধ করবেন? এটি প্রেসিডেন্টসুলভ নয়। ট্রাম্পের করোনা শনাক্ত হওয়ায় বিতর্ক কমিশন ১৫ অক্টোবর দ্বিতীয় বিতর্ক ভার্চুয়ালি করার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু ট্রাম্প ভার্চুয়াল বিতর্ক করতে প্রত্যাখ্যান করেন।



 

Show all comments
  • Nadim ahmed ২০ অক্টোবর, ২০২০, ২:৫২ পিএম says : 0
    Obaidul Qader starts realizing that he should encourage people to come out of home and change the government. Thank you man...
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মার্কিন নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন