Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার , ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

জুলিয়েট-পিলপিলের ডিম ফুটে জন্ম নিল ৪৭ কুমিরছানা

প্রকাশের সময় : ১৫ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বাগেরহাটজেলা সংবাদদাতা : সুন্দরবনের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের কুমির জুলিয়েট ও পিলপিলের ডিম ফুটে ৪৭টি ছানা (বাচ্চা) জন্ম নিয়েছে গতকাল (১৪ আগস্ট) সকালে ডিম ফুটে বাচ্চাগুলো বেরিয়ে আসে।
সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের করমজল বন্যপ্রাণি প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আব্দুল মান্নান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ৮৪ দিন নোনা পানির কুমির জুলিয়েট ও পিলপিল মোট ৯৮টি ডিম দেয়। এর মধ্যে জুলিয়েট ৫০টি এবং পিলপিল ৪৮টি। ডিমগুলো কেন্দ্রের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে সঠিক তাপ ও আর্দ্রতায় পর্যাপ্ত অক্সিজেন এবং আলোর ব্যবস্থায় রাখা হয়।
দীর্ঘ ৮৪ দিন অপেক্ষার পর রোববার ভোর থেকে বাচ্চা ফুটতে শুরু করে। তবে ভ্রƒণ অনিষিক্ত এবং মৃত ভ্রƒণের কারণে ৫১টি ডিম নষ্ট হয়ে গেছে।
‘জন্ম নেয়া ৪৭টি কমির ছানার মধ্যে পিলপিলের ডিম থেকে ২৭টি এবং জুলিয়েটের ডিম থেকে ২০টি বাচ্চা হয়েছে। এগুলোর আশি শতাংশ নারী এবং ২০ শতাংশ পুরুষ।’
সুন্দরবনের পূর্ব বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. সাইদুল ইসলাম জানান, সুন্দরবনের নোনা পানির কুমির সংরক্ষণ এবং প্রজনন বৃদ্ধি লক্ষ্যে ২০০২ সালে বায়োডাইভার্সিটি কনজারভেশন প্রকল্পের আওতায় বনবিভাগ সুন্দরবনের করমজল পর্যটন কেন্দ্রে ৮ একর জমির ওপর নিজস্ব উদ্যোগে দেশের একমাত্র সরকারি এই কুমির প্রজনন ও লালন-পালন কেন্দ্র গড়ে তোলে।
ওই বছর সুন্দরবনের বিভিন্ন নদীতে জেলেদের জালে আটকা পড়া ছোট-বড় পাঁচটি লোনা পানির কুমির নিয়ে কেন্দ্রের কার্যক্রম শুরু হয়। রোমিও-জুলিয়েটের বয়স এখন ২৮। ২০০৫ সালে এই কুমির জুটি প্রজননক্ষম হয়।
বর্তমানে করমজল কেন্দ্রের পুকুরে ২টি নারী কুমির জুলিয়েট ও পিলপিল এবং একটি পুরুষ কুমির রোমিও রয়েছে। এ ছাড়া এই কেন্দ্রে ভারত থেকে আনা মিঠা পানির (মার্শ ক্রোকোডাইল) দুটি মেয়ে কুমিরও রয়েছে। এদের প্রতিটির বয়স কুড়ি বছর করে।
করমজল কেন্দ্রের হিসাবে, রোববার জন্ম নেয়া ৪৭টি ছানাসহ এই কেন্দ্রে এখন কুমিরের সংখ্যা মোট ৩০২টি। ৩৬ ঘন্টা নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখার পর এসব কুমির ছানা নির্ধারিত জলাশয়ে (চৌবাচ্চায়) ছেড়ে দেয়া হবে বলে জানান মো. আব্দুল মান্নান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ