Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

দক্ষিণাঞ্চলেও শুরু হয়েছে পণ্যবাহি নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২০ অক্টোবর, ২০২০, ৬:৫১ পিএম

নৌ-পথে সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজি বন্ধ এবং খাদ্য ভাতা প্রদান সহ ১১ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে দেশব্যাপী নৌযান শ্রমিকদের কর্ম বিরতিতে দক্ষিণাঞ্চলেও পণ্যবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। বরিশঅল বন্দরে বেশ কিছু জ¦ালানী ও পণ্যবাহ নৌযান আটকে রয়েছে। মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া এই ধর্মঘট দাবি পূরণের বিষয়ে কোন সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত অব্যাহতথাকবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ লঞ্চ লেবার আ্যাসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের বরিশাল অঞ্চলের সভাপতি শেখ আবুল হাসেম। তিনি সাংবাদিকদের জানান, সনাতন ধর্মালম্বীদের ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজার কারনে আপাতত যাত্রীবাহি নৌযান এই কর্মসূচির বাইরে রাখা হয়েছে। তবে মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে সকল পণ্যবাহি নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ আন্দোলন কর্মসূচি চলবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
সারাদেশে একযোগে সবধরণের পণ্যবাহি জাহাজের শ্রমিকরা কর্মবিরতি শুরু হলেও দাবি বাস্তবায়ন না করে জুলুম-নির্যাতন, হামলা-মামলা করা হলে যাত্রীবাহি নৌযান শ্রমিকরাও কর্মবিরতি শুরু করবে বলে জানান শেখ আবুল হাসেম। বরিশালে শ্রমিকদের দাবি আদায়ের এ আন্দোলনে বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ একাত্মতাও প্রকাশ করেছেন।
তবে কর্মবিরতির আওতার বাইরে থাকায় সকাল থেকে বরিশালে আভ্যন্তরীন রুটের নৌযানগুলো স্বাভাবিক নিয়মে চলাচল করছে।
এদিকে সরকার সমর্থক হিসাবে পরিচিত নৌযান শ্রমিক অধিকার সংরক্ষণ ঐক্য পরিষদ নামের আরেকটি সংগঠনও ১৫ দফা দাবীতে সোমবার সন্ধ্যা ৬ টা থেকে পণ্যবাহি নৌযানে ধর্মঘট শুরু করার করার কথা জানিয়েছে। এ সংগঠনের স্থানীয় নেতা কবির হোসেনের নেতৃত্বে মঙ্গলবার সকালে কীর্তনখোলা নদীর চাঁদমারী এলাকায় বিক্ষোভ করা হয়। নৌযান শ্রমিক অধিকার সংরক্ষণ ঐক্য পরিষদের ১৫ দফা দাবীর মধ্যে নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের ১১ দফা দাবীগুলোও রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ