Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সেই রাশফোর্ডেই আটকা পিএসজি

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০১ এএম

প্রায় দুই বছর আগে মার্কাস রাশফোর্ডের যোগ করা সময়ের গোলে কপাল পুড়েছিল প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি)। ঘরের মাঠে হেরে তাদেরকে বিদায় নিতে হয়েছিল উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলো থেকে। এবার অবশ্য নকআউটে নয়, ইউরোপের সেরা ক্লাব আসরের নতুন মৌসুমের শুরুতেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মুখোমুখি হলো দলটি। কিন্তু তাতে পাল্টাল না চিত্র। তরুণ স্ট্রাইকার রাশফোর্ডের শেষ দিকের লক্ষ্যভেদে হার নিয়ে মাঠ ছাড়লেন কিলিয়ান এমবাপে-নেইমাররা।

গতবারের রানার্সআপদের হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শুভ সূচনা করেছে ওলে গানার সুলশারের দল। গতপরশু রাতে ‘এইচ’ গ্রুপের ম্যাচে পিএসজির বিপক্ষে ২-১ গোলে জিতেছে তারা। ২০১৮-১৯ মৌসুমের পর দুদলের প্রথম দেখায় নিজেদের মাঠ পার্ক দে প্রিন্সেসে ফের হারের তিক্ত স্বাদ নিয়েছে টমাস টুখেলের শিষ্যরা। ম্যাচের ৬১ শতাংশ সময়ে বল ছিল স্বাগতিকদের দখলে। কিন্তু নেইমার-এমবাপে-অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়াকে গড়া দলটির শক্তিশালী আক্রমণভাগ খুঁজে পায়নি জালের দিশা। যদিও তাদের নেওয়া ১৪টি শটের পাঁচটি ছিল লক্ষ্যে। অন্যদিকে, ইউনাইটেডও মোট ১৪টি শট নেয় পিএসজির গোলমুখে। তারা লক্ষ্যে রাখতে পারে ছয়টি শট। আর তাতেই তিনটি গোলই করেন সফরকারী ইউনাইটেডের খেলোয়াড়রা। প্রথমার্ধে ব্রুনো ফার্নান্দেসের সফল স্পট-কিকে পিছিয়ে পড়া পিএসজি সমতায় ফেরে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে, অ্যান্থনি মার্শিয়ালের আত্মঘাতী হেডে। এরপর আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমজমাট লড়াইয়ে নির্ধারিত সময়ের তিন মিনিট আগে ব্যবধান গড়ে দেন রাশফোর্ড।
আরেক ম্যাচে ইংল্যান্ডের অপর দল চেলসিও পায়নি জয়ের দেখা। তবে তাদের ভাগ্য কিছুটা সুপ্রসন্নই বলতে হবে। ঘরের মাঠে স্প্যানিশ দল সেভিয়ার বিপক্ষে হারের লজ্জা থেকে কোনো মতে বেঁচে গেছে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের দলটি। দুই দলই সুযোগ তৈরি করে ছিল বেশ কিছু। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতা আর প্রতিপক্ষ গোলরক্ষকের দৃঢ়তায় মেলেনি গোলের দেখা। অমীমাংসিতভাবে শেষ হলো চেলসি ও সেভিয়ার লড়াই। ‘এইচ’ গ্রুপের আরেক ম্যাচে আরবি লাইপজিগ হারিয়েছে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলতে আসা ইস্তানবুল বাশাকসেহিরকে। তুরস্কের দলটির বিপক্ষে নিজেদের মাঠে ২-০ গোলে জিতেছে জার্মান ক্লাবটি।
এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় আগে থেকেই নেই ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। আক্রমণভাগের আরেক তারকা পাওলো দিবালাকেও বেঞ্চে রেখে একাদশ সাজান কোচ পিরলো। তিন দিন আগে সেরি আয় ক্রোতোনের বিপক্ষে পয়েন্ট হারানো জুভেন্টাসকে এ ম্যাচের শুরুতেও কিছুটা ধুকতে দেখা যায়। প্রত্যাশিত আলো ছড়াতে না পারলেও কাক্সিক্ষত জয় ঠিকই পেয়েছে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। আলভারো মোরাতার জোড়া গোলে ডায়নামো কিয়েভকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শুভসূচনা করেছে আন্দ্রেয়া পিরলোর দল। প্রতিপক্ষের মাঠের ‘জি’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ২-০ গোলে জেতে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। জাল অক্ষত রেখে পথচলা শুরু হলো জুভেন্টাসের। কোচ হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অভিষেকটা দারুণ হলো সাবেক তারকা ফুটবলার পিরলোর।
এক নজরে ফল
কিয়েভ ০-২ জুভেন্টাস
জেনিথ ১-২ ক্লাব ব্রুজ
পিএসজি ১-২ ম্যানইউ
লাইপজিগ ২-০ বাসাকশেহির
ল্যাজিও ৩-১ ডর্টমুন্ড
রেনে ১-১ ক্রাসনোদর
চেলসি ০-০- সেভিয়া



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পিএসজি

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
১২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন