Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

কারাবাখ নিয়ে বৈঠকে বসবে ওয়াশিংটন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০০ এএম

আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান মঙ্গলবার জানিয়েছে যে, তাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা ১৯৯০-এর দশক থেকে শুরু হওয়া নাগর্নো-কারাবাখের মধ্যকার সংঘর্ষের অবসান ঘটাতে শুক্রবার ওয়াশিংটনে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সাথে সাক্ষাত করবেন। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর তৎক্ষণাত কোনও মন্তব্য না করলেও, তাদের বৈঠক পরিকল্পনা বলছে যে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ঠিক আগে, ওয়াশিংটন দু’দেশের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠার পদক্ষেপ নিচ্ছে।

১৯৯৪ সালে নাগর্নো-কারাবাখ নিয়ে যুদ্ধ শেষের পর গত ২৭ সেপ্টেম্বর সকালে আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়ার মধ্যে ছিটমহলটি নিয়ে পুনরায় সংঘর্ষ শুরু হয়। এ পর্যন্ত রাশিয়া আজারবাইজানের আদিবাসী আর্মেনিয়ানদের নিয়ন্ত্রণাধীন ছিটমহলটির বিষয়ে মধ্যস্থতার প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছে। তবে এ মাসে মস্কোর মধ্যস্থতায় করা দুটি যুদ্ধবিরতিও সংঘর্ষ থামাতে পারেনি। দুই প্রাক্তন সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র জানিয়েছে যে, গেল মঙ্গলবার নাগর্নো-কারাবাখ ও এর আশেপাশে তীব্র লড়াইয়ে ৪৩ জন সামারিক সদস্য নিহত হয়েছে।

এ সহিংস সংঘর্ষ আশঙ্কা জাগিয়ে তুলেছে যে, আঞ্চলিক শক্তি তুরস্ক ও রাশিয়া ব্যাপক সঙ্ঘাতে জড়িয়ে যেতে পারে এবং আজারবাইজানের পাইপলাইনগুলোর সুরক্ষা বিঘিœত হতে পারে, যা বিশ্ব বাজারে প্রাকৃতিক গ্যাস এবং তেল সরবরাহ করে। যুদ্ধরত দেশ দু’টির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা আলাদাভাবে বা একই সাথে পম্পেওর সাথে সাক্ষাৎ করবেন কিনা, তা এখনও পরিষ্কার নয়। আজারবাইজান বলেছে, তার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেহুন বায়রামভ ওএসসিইর সুরক্ষা ও অধিকার পর্যবেক্ষকদের তথাকথিত মিনস্ক গ্রুপের প্রতিনিধিদের সাথেও দেখা করবেন, যেটির সহ-সভাপতি রাশিয়া, ফ্রান্স এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বহু বছর ধরে এ সঙ্ঘাতের মধ্যস্থতায় নেতৃত্ব দিয়ে আসছে। সূত্র : ডন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ওয়াশিংটন

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৮ জানুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন