Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

রোহিঙ্গা গণহত্যা হিসেবে স্বীকৃতি চেয়ে ৩৫ সংস্থার আহবান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০২ এএম

মিয়ানমারে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে দেশটির সামরিক বাহিনীর চালানো নিপীড়ন, ধর্ষণ এবং হত্যাকান্ডকে গণহত্যা হিসেবে স্বীকৃতি দিতে যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলোর প্রতি আহবান জানিয়েছে অন্তত ৩৫টি সংস্থা। বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ সমর্থিত রোহিঙ্গা দাতা গোষ্ঠীগুলোর সম্মেলনের আগে এই আহবান জানানো হয়। ভার্চুয়াল এই দাতা সম্মেলন যুক্তরাজ্য, জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা (ইউএনএইচসিআর), যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনের আগে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানবাধিকার ও শরণার্থীবিষয়ক ৩৫টি সংস্থা মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে যা ঘটেছে; তাকে গণহত্যা হিসেবে স্বীকৃতি দিতে যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশগুলোর প্রতি আহবান জানিয়েছে। হেগে জাতিসংঘের শীর্ষ আদালতে রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর গণহত্যার অভিযোগের বিচার চলমান রয়েছে। গত জানুয়ারিতে জাতিসংঘের এই আদালত এক অস্থায়ী রায়ে রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় জরুরি ব্যবস্থা নিতে মিয়ানমারকে নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে আদালত জানান, রোহিঙ্গাদের অধিকারের অপ‚রণীয় ক্ষতি করেছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে রাখাইনে বসবাস করে এলেও সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম জনগোষ্ঠীকে নাগরিক হিসেবে স্বীকার করে না মিয়ানমার। এমনকি দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা রোহিঙ্গা শব্দটি উচ্চারণ করতেও অস্বীকার করেন। মানবাধিকার ও শরণার্থী বিষয়ক ফর্টিফাই রাইটস, রিফিউজি ইন্টারন্যাশনাল ও দ্য বার্মা রোহিঙ্গা অর্গানাইজেশন ইউকে-সহ অন্তত ৩৫টি সংস্থা রোহিঙ্গা দাতা সম্মেলনের আগে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেরও কাছে একটি চিঠি লিখেছে। চিঠিতে রোহিঙ্গাদের ওপর পরবর্তী নিপীড়ন বন্ধে দুই বছর আগে রাখাইনে সামরিক বাহিনীর অভিযানকে গণহত্যার অভিপ্রায়ে চালানো হয়েছিল বলে স্বীকৃতি দেয়ার আহŸান জানানো হয়। রয়টার্স, আল-জাজিরা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোহিঙ্গা

১১ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন