Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ইউরোপে ২৪ ঘণ্টায় ২ লাখ করোনা রোগী শনাক্ত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০২ এএম

করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতিতে হিমশিম খাওয়া ইউরোপ মহাদেশে সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দুই লাখের বেশি কোভিড-১৯ সংক্রমণ শনাক্ত করা হয়েছে। মাত্র ১০ দিনের ব্যবধানে ইউরোপে দৈনিক করোনা আক্রান্ত শনাক্তের পরিমাণ রোগীর দ্বিগুণ হয়েছে। এর আগে, ইউরোপে গত ১২ অক্টোবর প্রথমবারের মতো একদিনে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা এক লাখ অতিক্রম করেছিল। বৃহস্পতিবার সে সংখ্যা দাঁড়ায় ২ লাখ ১৮ হাজার ৬৩০ জন।
এদিকে, ইউরোপে এখন একদিনে যত করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হচ্ছেন তা ভারত, ব্রাজিল ও যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে শনাক্ত রোগীর যোগফলের চেয়েও বেশি। সংক্রমণের প্রথম ঢেউয়ের তুলনায় এবার শনাক্তকরণ পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানোর কারণে রোগী বেশি মিলছে বলে ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা। বৃহস্পতিবার ইতালি, অস্ট্রিয়া, ক্রোয়েশিয়া, স্লােভানিয়া ও বসনিয়ার মতো ইউরোপের মধ্য দক্ষিণ এবং দক্ষিণাঞ্চলের অনেক দেশেই একদিনে সর্বোচ্চ করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে।
বার্তাসংস্থা রয়টার্সের হিসাব অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বিশ্বে যত কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে, তার ১৯ শতাংশই ইউরোপের। নভেল করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মৃত্যুর ২২ শতাংশেরও সাক্ষী হয়েছে এ মহাদেশ। অন্যদিকে, ইউরোপের পশ্চিমাঞ্চলীয় দেশ ফ্রান্সে বৃহস্পতিবার রেকর্ড ৪১ হাজার ৬২২ জনের দেহে প্রাণঘাতী ভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে। সংক্রমণের হার কমাতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী জঁ ক্যাসটেক্স নতুন করে আরও আরও কয়েকটি এলাকায় কারফিউ জারি করেছেন। পাশাপাশি, নেদারল্যান্ডসে ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে রেকর্ড ৯ হাজারের বেশি কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর পাবলিক হেলথ (আরআইভিএম)।
অপরদিকে, জার্মানিতেও বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো একদিনে ১০ হাজারের বেশি মানুষের দেহে ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। দেশটি এরই মধ্যে বাসিন্দাদের সুইজারল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, পোল্যান্ড, অস্ট্রিয়ার বেশিরভাগ এলাকা ও রোমসহ ইতালির কিছু অংশে ভ্রমণের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। অতিসংক্রামক রোগটিতে জার্মানির অবস্থাও নাজেহাল। দেশটিতে রেকর্ড ভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে খোদ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইয়েন্স স্পান আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া বেলজিয়ামের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে আছেন নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে। স্পেনে বহু অঞ্চলেই কোভিড সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। জার্মানি কর্তৃপক্ষ বুধবার প্রথমবারের মতো একদিনে রেকর্ড ১০ হাজারেরও বেশি রোগী শনাক্তের তথ্য জানিয়েছে। এ পরিস্থিতিতেই বৃহস্পতিবার সুইজারল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, পোল্যান্ড, অস্ট্রিয়া ও ইতালির রোমসহ বেশ কয়েকটি স্থানে ভ্রমণ সতর্কতা জারি করেছে বার্লিন।
করোনা মহামারীর প্রথম ধাপ সামাল দিয়ে জার্মানি বিশ্বে বহুদেশের কাছে মডেল হয়ে উঠেছিল। কিন্তু এবার মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ দেশটি একইভাবে সামলাতে পারবে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। জার্মানির সংক্রামক রোগবিষয়ক সংস্থা রবার্ট কখ ইন্সটিটিউটের প্রধান লোথার উইয়েলার বলেছেন, সামগ্রিক পরিস্থিতি খুবই মারাত্মক হয়ে উঠেছে। তবে তার পরও ভাইরাস সংক্রমণের গতি কমিয়ে আনার সুযোগ এখনও আমাদের হাতে আছে। সংক্রমণ ঠেকাতে ইউরোপের দেশগুলোতে নতুন কড়াকড়ির পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। উল্লেখ্য, ইউরোপে এ যাবৎ মোট করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ৭৭ লাখ ৫৭ হাজার ১১৭ জন। এর মধ্যে মারা গেছে ২ লাখ ৪৫ হাজার ৫০৮ জন। আর সুস্থ হয়ে পরিবারে ফিরে গেছেন ৩৩ লাখ ৪৫ হাজার ৮২০ জন। সূত্র : রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ