Inqilab Logo

শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

অবাধে ইলিশ শিকার

মঞ্জুর মোর্শেদ, মুন্সীগঞ্জ থেকে | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০১ এএম

মুন্সীগঞ্জে জেল-জরিমানা আর ইলিশ ধরা চলছে সমান তালে। পদ্মা-মেঘনা নদীতে প্রতিদিন জেলেরা নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সুযোগে বুঝে অবাধে মা ইলিশ ধরছে। গত এক সপ্তাহে কোস্ট গার্ড, নৌ-পুলিশ আর ভ্রাম্যমাণ আদালত শতাধিক জেলেকে মাছ ধরার অপরাধে আটক, জেল-জরিমানা করলেও ইলিশ ধরা বন্ধ করতে পারছে না। জেলেদের নিকট অভিযানের খবর পৌঁছে যায় আগেই।
গজারিয়া উপজেলার ইসমানির চর, গোয়াল গাও, রঘুরচর, চাদপুর, মনপুরা, নড়িয়া ও জাজিরা এলাকায় মেঘনার মোহনা ইলিশের প্রধান প্রজনন কেন্দ্র। প্রতিদিন এসব এলাকায় জেলেরা ট্রলার প্রতি দৈনিক তিন থেকে চার হাজার টাকার বিনিময়ে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ ধরছে। মোবাইল কোর্টসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের নদীতে আসার আগেই তারা খবর পেয়ে চলে যায়। জেলেরা জানায়, সরকারিভাবে যে সহায়তা দেয়া হচ্ছে তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। আবার সবাই সাহায্যও পাচ্ছে না। কাজেই বাধ্য হয়ে ঝুঁকি নিয়ে তারা নদীতে মাছ ধরছে।
গজারিয়া নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জানান, নৌ-পুলিশের কেউ যদি অনৈতিক কোনো কর্মকান্ডে জড়িত থাকে তবে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। গজারিয়া উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা বলেন, জেলেদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে তাদের মাছ ধরার সুযোগ করে দিচ্ছে এমন কোন তথ্য তার জানা নেই।

 



 

Show all comments
  • শেখ মো:সোহেল রানা ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৯:১৩ এএম says : 0
    লৌহজং মা-ইলিশ রক্ষায় অভিযান পুলিশ ইলিশ মাছ নিয়ে যায়
    Total Reply(0) Reply
  • md mofizul islam (satkhira, shyamnagar, kashimari) ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৩:০০ পিএম says : 0
    কিছু অসাধু লোকের জন্য জেলেরা আইন মানছে না।আর এই জেলেদের ব্যবহার করে তারা মুনাফা অর্জনের ব্যস্ত।প্রশাসনকে আরও কঠোর হওয়া দরকার।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইলিশ

৫ মার্চ, ২০২২
১২ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ