Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ফ্রান্সে বিশ্বনবীর (সা.) ব্যঙ্গচিত্র বরদাশত করা হবে না

বিভিন্ন ইসলামী দল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৮:৩১ পিএম

ফ্রান্স সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে পুলিশ পাহারায় মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করে বিশ্ব মুসলিমের কলিজায় আঘাত হেনেছে। কারণ মুসলমানরা তাদের নবী মুহাম্মদ (সা.)কে প্রাণের চেয়ে বেশি ভালোবাসে। নবীজির অবমাননা মুসলমানগণ কিছুতেই বরদাশত করবে না। ফ্রান্স সরকার নবীর বিরুদ্ধে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের মাধ্যমে বিশ্বমুসলিমকে উস্কে দিয়ে ধর্মযুদ্ধ বাধানোর ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেছেন।
বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন: ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয়ভাবে বহুতল ভবনে প্রকাশ্যে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীরে শরীয়ত মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী। তিনি বলেছেন, ফ্রান্স সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে পুলিশ পাহারায় মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করে বিশ্ব মুসলিমের কলিজায় আঘাত হেনেছে। নবীজির অবমাননা মুসলমানগণ কিছুতেই বরদাশত করবে না। ফ্রান্স সরকার নবীর বিরুদ্ধে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের মাধ্যমে বিশ্বমুসলিমকে উস্কে দিয়ে ধর্মযুদ্ধ বাধানোর ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, ফ্রান্স সরকারকে অবিলম্বে এ ধৃষ্টতাপূর্ণ ব্যঙ্গচিত্র প্রচারনা বন্ধ করতে হবে। অন্যথায় ফ্রান্সের বিরুদ্ধে সারাবিশ্বে প্রতিবাদের দাবানল ছড়িয়ে পরবে এবং নবীপ্রেমিকরা ফ্রান্সের পণ্যবর্জন করতে বাধ্য হবে। তিনি বিশ্বশান্তির দূত হযরত মহানবী (সা.) এর অবমাননা বন্ধে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়ানোর জন্য মুসলিম বিশ্বের প্রতি আহবান।
আজ শনিবার বিকেলে কামরাঙ্গীরচরে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের এক বৈঠকে সভাপতির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী, নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি সুলতান মহিউদ্দীন, মাওলানা সাইফুল ইসলাম সুনামগঞ্জী ও মাওলানা সানাউল্লাহ প্রমুখ।
ইসলামী ঐক্যজোট: ফ্রান্সের সরকারী বহুতল ভবনে প্রজেক্টরের মাধ্যমে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গ চিত্র প্রদর্শনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইসলামী ঐক্যজোটের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী। আজ শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, বাকস্বাধীনতার নামে ফ্রান্স ইসলাম বিরোধী চরম অসভ্য ও নোংরা খেলা শুরু করেছে। খোলা রাস্তায় সরকারী বহুতল ভবনে মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করা হচ্ছে। আর সেখানে অস্ত্র হাতে পাহারা দিচ্ছে ফ্রান্সের পুলিশ তথা সরকার। ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রীও কিছুদিন আগে ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য দিয়েছেন। এসব উগ্র কর্মকান্ড প্রমাণ করে যে, ফ্রান্স সরকার ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। ফ্রান্স সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া বিশ্বের মুসলমানদের নৈতিক ও ঈমানি দায়িত্ব। তিনি বাকস্বাধীনতার নামে প্রাণপ্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কোন ধরণের ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ বরদাশত করা হবে না। অবিলম্বে সরকারিভাবে ফ্রান্সের এই ঘটনার কড়া প্রতিবাদ জানান। সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানের বাংলাদেশে আমরা ইসলামবিদ্বেষী ফ্রান্সের দূতাবাস দেখতে চাই না। দ্রুত ঢাকা থেকে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার ও দূতাবাস বন্ধ করে ওই দেশের সাথে সব ধরণের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করুন। অন্যথায় ইসলামী ঐক্যজোট ফ্রান্স দূতাবাস অভিমুখে বৃহত্তর লংমার্চ কর্মসূচী ঘোষণা করবে।
মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী দলমত নির্বিশেষে দেশের নবীপ্রেমিক মুসলমানদের ফ্রান্সের সকল পণ্য বর্জন ও মহানবী (সা.)-ইজ্জত রক্ষায় প্রতিবাদ অব্যাহত রাখার আহবান জানান।



 

Show all comments
  • মোঃ জাহিদ হাসান ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৮:৫৭ পিএম says : 0
    অবিলম্বে ফ্রান্স সরকার যদি এই কাজটির জন্য ক্ষমা না চায় তাহলে বাংলাদেশে সকল ফরাসী পন্য বয়কট করা হোক। আর এব্যাপারে ফরাসী রাষ্ট্র দুতের মাধ্যমে সরকারি ভাবে প্রতিবাদ জানানো হোক।
    Total Reply(1) Reply
    • shakil ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ১১:৫০ পিএম says : 0
      কি ভাই ক্ষমা ক্ষমা করছেন , ঐ কুলানঙ্গারদের পন্য বয়কট করুন আখন থেকেই । আর ফরাসি যে কার্যক্রম আমাদের দেশে আছে তা আমদের ঘেরাও করতে হবে। আল্লাহর লানত কুলানঙ্গারদের ওপর///আল্লাহ র গজব পরূক ওদের ওপর।
  • মোঃ জাহিদ হাসান ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৮:৫৮ পিএম says : 0
    অবিলম্বে ফ্রান্স সরকার যদি এই কাজটির জন্য ক্ষমা না চায় তাহলে বাংলাদেশে সকল ফরাসী পন্য বয়কট করা হোক। আর এব্যাপারে ফরাসী রাষ্ট্র দুতের মাধ্যমে সরকারি ভাবে প্রতিবাদ জানানো হোক।
    Total Reply(0) Reply
  • Md MonirBhuiyan ২৫ অক্টোবর, ২০২০, ৯:২৮ এএম says : 0
    বাংলাদেশে ফ্রান্সের দূতাবাস ও ফ্রান্সের তৈরি পণ্য আমাদানি কারক প্রতিষ্ঠানকে ঘেরাও করে আন্দোলনের দাবানল জ্বালিয়ে দিতে হবে। এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ও নাগরিকদের দেখিয়ে দিতে হবে যে তাদের বিরুদ্ধে কীরুপ অবস্থানে আছে মুসলিম বিশ্ব।
    Total Reply(0) Reply
  • Sk sagor ২৫ অক্টোবর, ২০২০, ১০:০০ পিএম says : 0
    ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রীর মাথা আমি কেটে ফেলতে চাই.. আল্লাহ যদি আমাকে বড় কোনো রাষ্টের প্রধানমন্ত্রি বানাতো তাহলে এগুলো শেষ দেখে ছারতাম..কিন্তু এখনের মন্ত্রিরা আছে শুধু চুপ করে সর্য করা..হাই আল্লাহ ওদের ধ্বংশ করে দাও
    Total Reply(0) Reply
  • Md Juhir Ahmed ২৫ অক্টোবর, ২০২০, ১১:০১ পিএম says : 0
    I will ... you Franc
    Total Reply(0) Reply
  • আবু সুফিয়ান ২৬ অক্টোবর, ২০২০, ১:২০ এএম says : 0
    মুসলমান রাষ্ট গুলো একসাথে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ও মামলা এবং ফ্রান্সের পর্ন্য বয়কট করার জরালো দাবী জানাচ্ছি
    Total Reply(0) Reply
  • Ahmadur Rahman ২৬ অক্টোবর, ২০২০, ৭:৪৭ এএম says : 0
    ফ্রান্স সরকার ক্ষমা না চাইলে তাদের পণ্য বর্জন করতে হবে এবং তদের সাথে সকল কূটনৈতিক সম্পর্ক বর্জন করতে।
    Total Reply(0) Reply
  • জুয়েল মনি ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ৭:০৯ পিএম says : 0
    মহান আল্লাহর দরবারে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এবং তার সহযোগীদের জন্য লা'নত কামনা করছি।। আল্লাহ সবার সামনে তাদের বিচারের ব্যবস্থা করুন।। আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Ibne Masud ১ নভেম্বর, ২০২০, ৬:৪৮ এএম says : 0
    মুসলমানের শত্রুরা হুশিয়ার সাবধান। ফ্রান্সের সকল কিছু বয়কট করা হক।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন