Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

বেড়িবাঁধ ভেঙে পানি ঢোকায় হাজার হেক্টর জমির বীজতলা নষ্ট

প্রকাশের সময় : ১৬ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কাউখালী (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা

পিরোজপুরের কাউখালীতে উজানের পানির ঢলে কচা নদীর করাল গ্রাসে শিয়ালকাঠী ইউনিয়ন ও আমরাজুড়ী ইউনিয়নের রক্ষা বাঁধ ভেঙে ফসলি জমি, বাড়িঘর, রাস্তাঘাটসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানপার ব্যাপক ক্ষতিসাধন হয়েছে। ওই সকল ইউনিয়নের বেড়িবাঁধ ভেঙে যাওয়ার হাজার হাজার হেক্টর আমন বীজতলা পানির নিচে সপ্তাহব্যাপী ডুবে থাকায় বীজতলা সম্পূর্ণ পচে গেছে। কৃষকরা আমন বীজের জন্য নতুন করে বীজতলা তৈরি করতে হাজার হাজার টাকা খরচ হবে বলে কৃষক আঃ মন্নান জানান। এদিকে পানি প্রবেশ করায় উপজেলার অর্ধশত ঘেরের মাছ পানিতে ভেসে গেছে। বেড়িবাঁধের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ার বাড়িঘর পানি বন্দি হয়ে রয়েছে দীর্ঘদিন ধরে। ফলে ওইসব এলাকার রবিশস্য এবং স্থায়ী গাছপালার ব্যাপক ক্ষতি হবে বলে কৃষকরা আশঙ্কা করছেন। বেড়িবাঁধ সম্পূর্ণ ধসে যাওয়ায় দিনরাত আতঙ্কের মধ্যে থাকে এলাকাবাসী। কখনও আবার পানির চাপ বৃদ্ধি পেলে তাদেরকে ভাসিয়ে নিয়ে যাবে। এ সকল এলাকার গবাদিপশুর গো খাদ্যের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। এসকল এলাকায় ব্যাপকহারে শিশুর ঠা-াজনিত রোগে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। কচা নদীর কড়াল গ্রাসে এ সকল এলাকায় প্রতিদিনই অব্যাহতভাবে ভাঙন দেখা দিয়েছে। প্রায় দুই ইউনিয়নের ১০টি গ্রামের মানুষ এখন নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে। এ ব্যাপারে আমরাজুড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সামুদ্দোহা চাঁদ বলেন, বন্যায় এবং নদীর অব্যাহত ভাঙনে বেড়িবাঁধসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ইতোমধ্যেই নদীগর্ভে হারিয়ে যাওয়ায় এলাকাবাসী চরম উৎকণ্ঠার মধ্যে দিনযাপন করছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বেড়িবাঁধ ভেঙে পানি ঢোকায় হাজার হেক্টর জমির বীজতলা নষ্ট
আরও পড়ুন