Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

নির্মলাকে পাল্টা আক্রমণ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০০ এএম

হাথরসের নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে রাহুল গান্ধী ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর দেখা করতে যাওয়াকে ‘পিকনিক’ বলে কটাক্ষ করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। একই সঙ্গে তার প্রশ্ন, কংগ্রেস শাসিত পাঞ্জাবে ছয় বছরের নির্যাতিতা বালিকার পরিবারের সঙ্গে কংগ্রেস নেতাদের দেখা করতে যাওয়ার জন্য পিকনিকের আয়োজন হচ্ছে না কেন!
কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি রাহুলের পাল্টা মন্তব্য, ‘উত্তরপ্রদেশের মতো রাজস্থান বা পাঞ্জাব সরকার ধর্ষণকে অস্বীকার করলে, বিচারে বাধা হয়ে দাঁড়ালে বিচার চাইতে সেখানেও যেতাম!’
গতকাল রোববার বিজেপির মঞ্চ থেকে সাংবাদিক সম্মেলন করে নির্মলা সরাসরি রাহুল-প্রিয়াঙ্কাকে নিশানা করেছেন। নির্মলা বলেন, ‘হাথরসের ধর্ষণের ঘটনায় মনে হচ্ছিল, সবাই পিকনিকে বেরিয়ে পড়েছেন। ভাই ও বোন গ্রামের দিকে দৌড়লেন। কিন্তু তারা পাঞ্জাবে হোশিয়ারপুর বা রাজস্থানে যাচ্ছেন না কেন? বেছে বেছে ক্ষোভ প্রকাশ এবার খোলসা হয়ে গেছে।’

পাঞ্জাবের হোশিয়ারপুর গ্রামে গত বুধবার ছয় বছরের ধর্ষিতা বালিকার অর্ধদগ্ধ দেহ উদ্ধার হয়। দু’দিন পর শুক্রবার বালিকার দেহ দাহ করা হয়। গোটা গ্রামের মানুষ তাতে হাজির ছিলেন। অভিযুক্তদের ফাঁসি দাবি করেছে পরিবার।
পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরেন্দ্র সিংহ পুলিশের ডিজিকে দ্রুত তদন্ত শেষ করার নির্দেশ দিয়েছেন। নির্মলা রাহুলকে কটাক্ষ করে বলেছেন, ‘এখন টুইটার-প্রিয় নেতা চুপ কেন? হাথরসের পরে তো কংগ্রেসের অন্তত ৩৫ জন সাংসদ বিবৃতি দিচ্ছিলেন। কোথায় এখন তারা?’

এরপরই রাহুল টুইট করে পাল্টা জবাবে বলেন, ‘উত্তরপ্রদেশের মতো পাঞ্জাব ও রাজস্থানের সরকার ধর্ষণের কথা অস্বীকার করছে না। নির্যাতিতার পরিবারকে হুমকি দিচ্ছে না। বিচারের পথে বাধা হয়ে উঠছে না। যদি তারা তা করত, তা হলে আমি বিচারের জন্য লড়াই করতে সেখানে যেতাম।’ সূত্র : ডেইলি হান্ট/ফ্রি প্রেস জার্নাল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ