Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ফ্রান্সের ইসলামবিরোধী কর্মকাণ্ডে ইসরাইলসহ মুসলিমবিশ্ব উত্তাল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ অক্টোবর, ২০২০, ১১:৫২ এএম

ইসলাম এবং মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.) কে নিয়ে ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর অবমাননাকর বিবৃতির তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন অব্যাহত রয়েছে আরবসহ সমগ্র মুসলিমবিশ্বে। জোরদার হচ্ছে ফরাসী পণ্য বয়কটের আহ্বান।
গত বুধবার ম্যাক্রোঁ বলেন, স্বাধীন মত প্রকাশের নীতি অনুযায়ী মহানবী মুহাম্মদ (স.) কে নিয়ে অসম্মানজনক কার্টুন প্রকাশ তিনি বন্ধ করতে পারবেন না। তার এ বিবৃতির পর মুসলিম বিশ্বে তীব্র ক্ষোভ এবং প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ে।
মিশরের আল-আজহারের গ্র্যান্ড ইমাম শেখ আহমেদ আল-তায়েব ইসলামবিরোধী মন্তব্যকে, রাজনৈতিক লড়াইয়ে ইসলামকে টেনে আনার নিয়মতান্ত্রিক প্রচার বলে অভিহিত করেছেন। বলেন, আমরা কখনোই আমাদের প্রতীক এবং পবিত্র স্থাপনাগুলোকে নির্বাচনী লড়াইয়ের সস্তা দর কষাকষির হাতিয়ার হতে দেবো না।
লিবিয়ার প্রেসিডেন্সিয়াল কাউন্সিলের সদস্য মোহাম্মদ জায়েদ ইসলামবিরোধী ম্যাক্রোঁর অসম্মানজনক বক্তব্যের নিন্দা জানিয়েছেন।
এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, মহানবীর সম্মান, দুষিত বিবৃতি এবং তুচ্ছ কার্টুন দ্বারা কখনোই ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে না।
ফ্রান্সের মুসলিমবিরোধী প্রচারণার প্রতিবাদে এবার ফরাসী পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন ইয়েমেনের ধর্মমন্ত্রী আহমাদ আত্তিয়া।
জর্ডানের মুসলিম ব্রাদারহুড ম্যাক্রোঁর বক্তব্যকে মুসলিম জাতির প্রতি আগ্রাসন, ঘৃণা, বিদ্বেষ এবং বর্ণবাদী বলে আখ্যা দিয়েছে।
মহানবীকে অসম্মান করে কার্টুন পুনঃপ্রকাশ এবং ম্যাক্রোঁর বিবৃতির তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিক্ষোভ হয়েছে সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় এলাকায়। সেখানে কয়েক হাজার মানুষ অংশ নেন। দেশটির জারাবুলুস এবং তেল আবিয়াদ শহরেও বিক্ষোভ হয়েছে। এসময় প্রতিবাদ জানিয়েছে ম্যাক্রোঁর কুশপুতুল পুড়ানো হয়।
ইসলাম শান্তির ধর্ম। এখানে সন্ত্রাসবাদের কোনো স্থান নেই। সন্ত্রাসবাদের কারিগর ফ্রান্স। তেল আবিয়াদের স্থানীয় কাউন্সিলর ওয়ায়েল হামদু আরো বলেন, আলজেরিয়ায় ১৫ লাখ মানুষকে হত্যা করেছে ফ্রান্স। সে ইতিহাস আমরা ভুলে যায়নি।
গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ইসলাম এবং মুসলমানদের আক্রমণ করে যাচ্ছেন ম্যাক্রোঁ। মুসলমানদের বিচ্ছিন্নতাবাদী আখ্যা দিয়েছেন। ইসলামকে সারাবিশ্বের জন্য সংকট বলেও অভিহিত করেন ফরাসী প্রেসিডেন্ট।
শার্লি হেব্দোর উস্কানিতে এ পরিস্থিতির সূত্রপাত। কট্টর বামপন্থী ফরাসী ম্যাগাজিনটি ইসলামবিরোধী কার্টুন প্রকাশের জন্য কুখ্যাত। তাদের এ ন্যাক্কারজনক কর্মকাণ্ডে মুসলিম বিশ্বের তীব্র নিন্দা এবং ক্ষোভের জন্ম নেয়।
চলতি বছরের শুরুতে শার্লি হেব্দো ইসলাম এবং মহানবীকে অসম্মান করে কার্টুন পুনপ্রকাশ করে। ২০০৬ সালে প্রথম ওই কার্টুনগুলো ড্যানিশ পত্রিকা জিল্যান্ডস পোস্টেনে প্রকাশ করা হয়। তখনও বিশ্বব্যাপী প্রতিবাদ এবং নিন্দার ঝড় উঠে।
এদিকে ম্যাক্রোঁর ওই বক্তব্যের প্রতিবাদের বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে মধ্যপ্রাচ্যের ইহুদিবাদী দখলদার রাষ্ট্র ইসরায়েলের আরব নাগরিকরা।
ফরাসি সংবাদ সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রায় ২০০ জন বিক্ষোভকারী মাস্ক পরে ইসরায়েলে অবস্থিত ফ্রান্সের দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। এ ছাড়া শনিবার (২৪ অক্টোবর) মাগরিবের নামাজের পর ইসরায়েলের রাজধানী তেল আবিবের জাফা জেলাতে বিশাল বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা হয়।
বিক্ষোভে অংশ নেওয়া আমিন বুখারি নামের একজন বলেন, ‘মহানবী হজরত মোহাম্মদ (সা.) ইসলামের সবচেয়ে পবিত্র মানুষ। তাঁকে অসম্মান করা মানে পুরো মুসলিম জাতিকে অসম্মান করা।’
গত ১৬ অক্টোবর ফ্রান্সের একটি সড়কে শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটিকে হত্যা করেছিল এক তরুণ। কারণ, ওই শিক্ষক ক্লাসে মহানবীর কার্টুন দেখিয়ে মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ব্যাখ্যা দিয়েছিলেন। শিক্ষকের ওপর হামলাকারী আবদৌলখ নামের ওই তরুণ ঘটনাস্থলেই পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছিলেন। সূত্র : রয়টার্স, বিবিসি



 

Show all comments
  • Jack Ali ২৬ অক্টোবর, ২০২০, ১২:১৭ পিএম says : 0
    We muslim's are responsible that kafir are always Insult our beloved prophet [SAW]/Killing us/raping us/expelling us. warning from Allah [SWT] regarding unity of Muslim Ummah: Surah 8:Al-Anfal: Ayat: 73.. And those who disbelieve are allies of one another, [and] if you [Muslims of the whole world collectively] do not do so [i.e: become allies, as on united block under one Khalifah] (a chief Muslim ruler for the whole Muslim world) to make victorious Allah’s religion of Islamic Monotheism), there will be Fitnah [war, battles, polytheism] and oppression on the earth, and a great mischief and corruption (appearance of ;polytheism). It has been mentioned in Tafsir At-Tabari, that the best interpretation of this above Verse: [-And those who disbelieve are allies of one another, ] (and) if you (Muslims of the whole world collectively) do not do so (i.e; become allies, as one united block. “That if you do not do what We [Allah] have ordered you to do , [i.e: all of you (Muslims of the whole world] do not become allies as on united block to make Allah’s religion Islam) victorious, there will be a great Fitnah (polytheism, war, battles, killing, robbing, a great mischief, corruption and oppression,”) ] And it is Fitnah to have many Khalifahs (Muslim rulers). As it has been mentioned in Sahih Muslim By ‘Arfajah, who said: I heard Allah’s Messenger [SAW] saying: “When you all (Muslims) are united [as one block] under a single Khalifah [chief Muslim ruler] then a man comes up to disintegrate you and separate you into different groups, then kill that man.”
    Total Reply(0) Reply
  • hossain ২৬ অক্টোবর, ২০২০, ১:০৪ পিএম says : 0
    amra zai sobai protibd gore tulun zate nastikra ar kuno din Islam niye kotukti korte sasos na pai
    Total Reply(0) Reply
  • hossain ২৬ অক্টোবর, ২০২০, ১:০৫ পিএম says : 0
    Islamer Joy 100% hovei,Kaferder biruddhe Rukhe Daran Sobai
    Total Reply(0) Reply
  • Arshad ২৬ অক্টোবর, ২০২০, ২:৩৯ পিএম says : 0
    Islam shobshomoi sara prithivi jure ujjal hoye thakbe. Amar nabir jonno lokko kuti darud o salam.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ