Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

লাদাখ নির্বাচনে জয়ী হলেও জনপ্রিয়তা কমেছে বিজেপির

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০১ এএম

কেন্দ্রীয় শাসনে যাওয়ার পর প্রথম নির্বাচনে লাদাখ অটোনমাস হিল ডেভেলপমেন্ট কাউন্সিলের ক্ষমতা বহাল থাকল বিজেপি’র হাতেই। তবে ২৬ সদস্যের কাউন্সিলে তাদের আসন সংখ্যা ১৮ টি থেকে কমে ১৫টি হয়েছে। পক্ষান্তরে কংগ্রেস হারলেও তাদের আসন সংখ্যা বেড়েছে। গতবারের ৪টির জায়গায় এবার তারা জয়ী হয়েছে ৯টি আসনে। সতন্ত্ররা বাকি ২টি আসন দখল করেছে।

গত বছর আগস্টে লাদাখ কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত হয়। এরপর বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত প্রথম নির্বাচনে ভোট পড়ে ৬৫ দশমিক ০৭ শতাংশ। দলের এই নির্বাচনী সাফল্যকে ‘ঐতিহাসিক’ আখ্যা দিয়ে বিজেপি সভাপতি জে পি নড্ডা বলেছেন, ‘বিজেপির ওপর আস্থা, ভরসা রাখার জন্য লাদাখের জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।’ টুইটে দলের স্থানীয় নেতা, কর্মীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি। ২০১৫-র নির্বাচনে বিজেপি ১৭টি, কংগ্রেস ৪টি, ন্যাশনাল কনফারেন্স ২টি, সতন্ত্ররা তিনটি আসনে জিতেছিল। গতবারের চেয়ে কংগ্রেসের ৫টি আসন বেড়েছে। আমআদমি পার্টি (আপ) এবার প্রথম নির্বাচনে প্রার্থী দিয়েও খাতা খুলতে পারেনি। ন্যাশনাল কনফারেন্স, পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি নির্বাচনে সামিল হয়নি।

জানা গিয়েছে, বিজেপি প্রার্থীরা ভারত-পাকিস্তান সীমান্তের শেষ গ্রাম তুরতুকে জয়ী হলেও ভারত-চীন সীমান্তের চুসুলে হেরেছেন। নিওমা, চুসুলের আসনগুলিতে জিতেছেন নির্দলরা। বিজেপি জিতেছে দিসকিত, তেগার, হুন্দার, পানামিক, তাঙ্গতসে, কুনগিয়াম, মারতসেলাং, কারজক, থিকসে, চুচোট, স্কু-মারখা, লামাইউরু, খালৎেস, লিঙ্গসেত-এ। সাসপোল, ইগু, তেমিসগাম, বাসগো, লোয়ার লে, আপার লে, ফায়াং, সকতি, স্কারবুচান কাউন্সিল আসনগুলি পেয়েছে কংগ্রেস। ২০১০-এর নির্বাচনে কংগ্রেস ২২টি, বিজেপি মাত্র চারটি আসনে জিতেছিল। অর্থাৎ ক্রমশঃ শক্তিক্ষয় হয়েছে কংগ্রেসের। এবার ৪৫ হাজার ২৫ জন মহিলা সমেত মোট ভোটার ছিলেন ৮৯ হাজার ৭৭৬ জন। ২৯৪ টি বুথে ভোটগ্রহণ করা হয়।

লাদাখ অটোনমাস হিল ডেভেলপমেন্ট কাউন্সিল-লের মোট আসন ৩০টি। ২৬টিতে ভোট হয়। বাকি চারটি আসনে কাউন্সিলরদের মনোনীত করে সরকার। ১৯৯৫ সালে এই কাউন্সিল গঠনের পর থেকে কংগ্রেসই বারবার দাপট দেখাত। তিনবার তারা জয়ী হয়। ২০০৫ সালে জেতে লাদাখ ইউনিয়ন টেরিটরিয়াল ফ্রন্ট। বিজেপি গতবারের নির্বাচনে কংগ্রেসের হাত থেকে প্রথম ক্ষমতা ছিনিয়ে নেয়। লাদাখের কারগিলের পৃথক হিল কাউন্সিল আছে। ২০১৮ সালে ৫ বছরের জন্য নির্বাচিত হয়েছে সেই কাউন্সিল। সূত্র : টিওআই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

১ ডিসেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন