Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ঝুঁকিপূর্ণ সাভার সাব-রেজিস্ট্রি অফিস, পলেস্তার খসে পড়ছে!

সাভার থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০২০, ৪:৫৫ পিএম

সংস্কার না হওয়ায় সাভার সাব-রেজিস্ট্রি অফিস এখন জরাজীর্ণ। ঝুঁকি নিয়ে সেখানে চলছে দৈনন্দিন কার্যক্রম। একতলা ভবনের ছাদের পলেস্তার খসে পড়ছে প্রায়ই। এর উপরে নকলনবীশ কারকদের বসার জন্য টিনশেড ঘরও করা হয়েছে। ড্যাম ও স্যাতসেতে ভবনে স্থান সংকুলান না হওয়ায় অফিসের মূল্যবান দলিলপত্র জানালার পাশে রাখা হচ্ছে অরক্ষিতভাবে। এরমধ্যে পুরানো ভবন ভেঙে সেখানে কমপ্লেক্স নির্মাণের দাবিও উঠেছে। ইতিপূর্বে স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. এনামুর রহমান জাতীয় সংসদে ভবনটি ভেঙে কমপ্লেক্স করার দাবি জানালেও সুফল মিলছে না। এমনকি ভবন সংস্কারের জন্য সাবেক আইজিআর আব্দুল মান্নান ১০ লাখ টাকা বরাদ্দের কথা জানালেও বরাদ্দ মিলেনি। এ অবস্থায় দলিল লেখক ও সংশ্লিস্টরা এ ব্যাপারে সোচ্চার হয়ে লিখিত আবেদন করেছেন আইন মন্ত্রণালয় ও নিবন্ধন অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক (আইজিআর) অফিসে। 

ঢাকা-১৯ আসনের সংসদ সদস্য, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এতে সম্মতি (ডিও) দিয়েছেন। যাতে আশুলিয়া সাব-রেজিস্ট্রি অফিস এবং ধামরাইয়ের একাংশ অন্তর্ভুক্ত হতে পারে বলে আলোচনা রয়েছে।

এদিকে নিবন্ধন অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক (আইজিআর) মোহাম্মদ শহীদুল আলম ঝিনুকসহ পদস্থ কর্মকর্তারা ২৫ অক্টোবর শনিবার দুপুরে পরিদর্শন করেছেন সাভার সাব-রেজিস্ট্রি অফিস। তারা সাব-রেজিস্ট্রারকে সার্বিক পরিস্থিতি জানিয়ে দ্রæত সময়ের মধ্যে লিখিত প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দিয়েছেন।
ঢাকা জেলা সাব-রেজিস্ট্রার সাবিকুন নাহার বলেছেন, সাভারে ৪০ শতাংশ জমির উপর রেজিস্ট্রেশন কমপ্লেক্স করার পরিকল্পনা রয়েছে। সাভার রেজিস্ট্রি অফিস সংস্কার করে কাজ চালানো যায় কিনা সে ব্যাপারেও চেষ্টা চলছে। সেখানে আগেই কমপ্লেক্স হওয়া উচিত ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, পুরানো ভবন ভেঙে সাভারে বড় পরিসরে কিছু করার পরিকল্পনা আছে। এজন্য সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে যোগাযোগ বরা হচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেছেন।
সাভার দলিল লেখক কল্যাণ সমিতির সভাপতি মো. আবুল হোসাইন বলেছেন, রেজিস্ট্রেশন কমপ্লেক্স করা হলে রাজস্ব যেমন বাড়বে তেমনিভাবে কমবে দুর্ভোগ। সাধারণ মানুষ এক ছাদের নিচে অনেক সেবা পাবে।

সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলীম বলেছেন, সাভার বৃহৎ শিল্প এলাকা। এখানে রেজিষ্ট্রি কমপ্লেক্স এখন সময়ের দাবি। এতে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি ও দুর্ভোগ অনেকটা কমে আসবে। তিনি বলেন, রেজিস্ট্রি অফিস ভবনটি ঝুকিপূর্ন। যেকোনো সময় দুঘটনার আশঙ্কা রয়েছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঝুঁকিপূর্ণ


আরও
আরও পড়ুন