Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

অবিলম্বে ফ্রান্সের দূতাবাস সরিয়ে নিতে হবে

নবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে বিক্ষোভ অব্যাহত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০২০, ৮:২২ পিএম

ফ্রান্সে নবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র কার্টুন প্রকাশের প্রতিবাদে আজ বুধবারও ঢাকাসহ সারাদেশে বিক্ষোভ মিছিল অব্যাহত ছিল। রাজধানী ঢাকার বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেইটে এবং মোহাম্মদপুরে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঢাকার বাইরে কয়েকটি জেলা ও উপজেলায়ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন তৌহিদী জনতা। সবার মুখে এক ছিল একই শ্লোগান ‘ফ্রান্সের পণ্য বর্জন করো/ ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের ম্যাক্রোর বিচার করতে হবে’। বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ ফ্রান্সের প্রতি হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, অবিলম্বে ঢাকাস্থ ফ্রান্সের দূতাবাস সরিয়ে নিতে হবে। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে বিশ্ববাসির কাছে প্রকাশে ক্ষমা চাইতে হবে। নেতৃবৃন্দ আগামী জাতীয় সংসদে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব উত্থাপনের দাবি জানিয়েছেন।
ইসলামী ঐক্যজোট : ফ্রান্স মহানবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র কার্টুন প্রকাশ করে যে ধৃষ্টতার পরিচয় দিয়েছে তার নিন্দা জানানোর ভাষা জানা নেই। বিশ্ব জগতের শান্তির দূত রাসুল (সা.) এর অবমাননা মুসলিম উম্মাহ মেনে নিবে না। আগামী জাতীয় সংসদে রাসুল (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে নিন্দা প্রস্তাব পাশ করতে হবে। ফ্রান্সের সকল পণ্য বর্জনের মাধ্যমে ওদের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে হবে। আজ বুধবার বাদ যোহর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেইটে ফ্রান্সে নবী (সা.) ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে ইসলামী ঐক্যজোটের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশে দলে চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। ইসলামী ঐক্যজোটের নেতা মাওলানা আলতাফ হোসাইনের পরিচালনায় এতে অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন, খেলাফত ইসলামী বাংলাদেশ এর মহাসচিব ও ইসলামী ঐক্যজোটের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা ফজলুর রহমান, বড় কাটারা মাদরাসার মুহতামিম মুফতি সাইফুল ইসলাম মাদানী, বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতি মাওলানা আব্দুর রশিদ মজুমদার, মহাসচিব মুফতি আব্দুল কাইয়ূম, মাওলানা আজহারুল ইসলাম, মাওলানা আবুল হাসেম, ইসলামী ঐক্যজোটের সহকারী মহাসচিব মাওলানা আশরাফুল হক, অধ্যাপক লোকমান হোসেন, মুফতি নাসির উদ্দিন, মুফতি জিয়াউল হক মজুমদার, মাওলানা আবুল খায়ের কুসুমপুরী,ইসলামী ছাত্র সমাজের সাবেক সভাপতি মাওলানা নূরুজ্জামান, মুফতি এনামুল হক ও মাওলানা ওবায়দুল হক।
মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী বলেন, ৯০% মুসলমানের বাংলাদেশে ফ্রান্সের দূতাবাস থাকুক এটা জনগণ চায় না। অবিলম্বে ফ্রান্সের দূতাবাস সরিয়ে নিন। অন্যথায় ঈমানদার জনতা ফ্রান্স দূতাবাসের প্রতিটি ইট খুলে বঙ্গোপসাগরে নিক্ষেপ করবে। তিনি বলেন, হেফাজতের শীর্ষ নেতা আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী ফ্রান্সের বিরুদ্ধে ডাক দিলে সরকার তা’ সামাল দিতে পারবে না। পরে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হলে পুলিশি বাধার মুখে মিছিলটি পল্টন মোড়েও পৌঁছতে পারেনি। মিছিলে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়।
ইত্তেফাকুল মাদারিসিল কওমিয়া মোহাম্মদপুর : বেফাকুল মাদারিসিল আরাবীয়া বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ও জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহফুজুল হক বলেছেন, ফ্রান্স রাষ্ট্রীয়ভাবে মহানবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করে গোটা বিশ্বের মুসলমানদের অন্তরে আগুন জ্বালিয়েছে। এ আগুন নিভাতে হলে ফ্রান্সকে অবিলম্বে ক্ষমা চাইতে হবে। যারা মহানবী (সা.) এর অবমাননা করবে তাদের সাথে মুসলমানদের কোনো সম্পর্ক থাকতে পারে না। তিনি বলেন, বাংলাদেশের তৌহিদী জনতার ঈমানের দাবির সাথে একাত্মতা প্রদর্শন করে প্রধানমন্ত্রী ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাবেন এটা দেশের মানুষের প্রত্যাশা। তিনি আরো বলেন, জাতীয় সংসদের চলতি অধিবেশনে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব পাশ করতে হবে। ফ্রান্সের পণ্য ঐক্যবদ্ধভাবে বর্জন করতে হবে। কোনো ব্যবসায়ী ফ্রান্সের কোনো পণ্য আমদানী করবেন না। তিনি বলেন, রাসুলের(সা.) ইজ্জত ও সম্মান রক্ষার্থে ফ্রান্সের সঙ্গে সকল ধরণের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন ও অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করতে হবে। মাওলানা মাহফুজুল হক বলেন, নবীর ইজ্জত রক্ষার্থে প্রয়োজনে প্রতিটি মুসলমানকে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দেয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। তিনি ঈমানী আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার জন্য ঈমানদার ও নবী প্রেমিক তৌহিদী জনতার প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।
তিনি আজ দুপুরে মুহাম্মদপুর টাউন হল চৌরাস্তায় ‘ইত্তেফাকুল মাদারিসিল কওমিয়া মুহাম্মদপুরের উদ্যোগে ফ্রান্সে মহানবী (সা.) এর অবমাননার প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। বায়তুল জান্নাত মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা ওমর ফারুকের পরচিালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জামিয়া মুহাম্মাদিয়া আরাবিয়ার প্রিন্সিপাল আল্লামা আবুল কালাম, জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়ার মুহাদ্দিস মাওলানা মামুনুল হক, জামিয়া ইসলামিয়া লালমাটিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা ফারুক আহমাদ, জামিয়া ইসলামিয়া বায়তুল ফালাহ এর প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহাম্মদ তালহা, ভাইস প্রিন্সিপাল ও শিক্ষা সচিব মাওলানা জালালুদ্দীন আহমদ, জামিয়া ওয়াহিদিয়া এর প্রিন্সিপাল মাওলানা যোবায়ের, মুহাদ্দিস মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন, জামিয়া মুহাম্মাদিয়া আরাবিয়ার ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা মোহাম্মাদ ফয়সাল, বাইতুল আমান আদাবরহ এর প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহমুদুর রহমান, আদাবর আহসানুল উলূম মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আমির হোসেন, ফাতেমাতুজ জোহরা মাদরাসার মুহামিম মাওলানা সাইফুল ইসলাম।
মুহাম্মদপুর টাউন হল চৌরাস্তা থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বেড়িবাঁধ মোড়ে গিয়ে মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়।
কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড গওহরডাঙ্গা : ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় নবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড গওহরডাঙ্গার উদ্যোগে আজ গোপালগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে নেতৃত্বদেন ছদর সাহেব (রহ.) এর পৌত্র ও গওহরডাঙ্গা মাদরাসার মুহাদ্দিস মুফতি উসামা আমীন।
মুফতি মোহাম্মদ তাসনীন ও মুফতি মাকসুদুল হকের পরিচালনায় অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, গওহরডাঙ্গা মাদরাসার মুফতি নুরুল ইসলাম, মাওলানা ফরিদ আহমাদ, বেফাকের নায়েবে সদর মাওলানা নুরুল হক, শিক্ষা বোর্ডের মহাসচিব মাওলানা শামছুল হক, কোর্ট মসজিদ মাদরাসার মুফতি হাফিজুুর রহমান, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, জেলা উলামা পরিষদের সদস্য সচিব মুফতি মঈনুদ্দিন, তারাইল ফুকরা মাদরাসার মাওলানা শিহাব উদ্দিন, মুসলিম এতিম খানা মাদরাসার মাওলানা হায়াত আলী, মাওলানা নাসির উদ্দিন, মুফতি ফকরুল ইসলাম, তানজিমুল মুদাররিসিন বাংলাদেশের মাওলানা আতাউর রহমান, মাওলানা জামাল উদ্দিন, মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, মাওলানা অহিদুজ্জামান, মাওলানা শফিকুল ইসলাম গওহারী, খাদেমুল ইসলাম ছাত্র শাখার সভাপতি গোলাম রাব্বনী।
মানববন্ধনে মুফতি উসামা আমীন বলেন, বিশ^ নবী (সা.) জগৎবাসীর জন্য রহমত স্বরূপ আগমন করেছিলেন। তিনি বিশে^ সব ধরণের অশান্তি দূর করে শান্তি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। ফ্রান্স সরকার নবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রর্দশন করে যে ধৃষ্টতা দেখিয়েছে তা বিশে^র দুইশ কোটি মুসলমানের হৃদয়ে চরম আঘাত হেনেছে। এ ঘটনার জন্য ফ্রান্স কে অবশ্যই বিশ^ মুসলিমের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে।
বাতিল প্রতিরোধ পরিষদ বাংলাদেশ : বাতিল প্রতিরোধ পরিষদ বাংলাদেশ এর সভাপতি হাজী জালাল উদ্দিন বকুল এক বিবৃতিতে ফ্রান্সে নবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে আগামী শনিবার সকাল ১১ টায় কেরাণীগঞ্জের রুহিতপুর বাজারে বিক্ষোভ সমাবেশ সফল করার আহবান জানিয়েছেন।
দেশব্যাপী কর্মসূচি সফলের আহ্বান পীর সাহেব চরমোনাই’র : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই ঘোষিত আজকের কর্মসূচি সফলের জন্য দেশের জেলাগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, নবীর ইজ্জত রক্ষায় ঈমানী বলে বলিয়ান হয়ে বিক্ষোভে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। যতদিন পর্যন্ত নবীল দুশমনদের বিচার না হবে ততদিন পর্যন্ত নবীপ্রেমিক জনতা রাজপথ ছাড়বে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন