Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

জাতীয় শোক দিবসে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার প্রত্যয়

প্রকাশের সময় : ১৬ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে জঙ্গি হামলা ও গুপ্তহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার প্রত্যয়ের মধ্য দিয়ে গতকাল সোমবার রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪১তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বিভিন্ন অনুষ্ঠান থেকে বক্তারা জাতির পিতার পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর ও চিহ্নিত বাকি যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দ্রুত সম্পন্ন করার দাবি জানান।
গতকাল সকালে বনানী কবরস্থানে ১৫ আগস্টের কালরাতে ঘাতকদের হাতে নিহতদের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম দেশের বিরুদ্ধে সকল ধরনের ষড়যন্ত্র রুখতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, আমরা যদি সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকি তাহলে শুধু জঙ্গি উত্থান বন্ধ নয়, তাদের নির্মূল করতে পারব। তাই দেশের বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্র রুখতে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থকেতে হবে।
নাসিম বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু যে সুখী, সমৃদ্ধ, আসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন, আমরা যদি সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে থেকে তার হাতকে শক্তিশালী করতে পারি তাহলেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে তুলতে পারব।
এদিকে দুপুরে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে খাবার বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধনকালে খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সবাইকে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আয়োজনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, কোনো জঙ্গি হামলা বা সন্ত্রাসী কার্যক্রমের মাধ্যমে জাতির পিতার সোনার বাংলার অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করা যাবে না।
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর অবদান ও দেশের বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)।
সভায় সংগঠনের সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, দেশের উগ্র সাম্প্রদায়িক জঙ্গি শক্তির আমাদের দেশকে ধ্বংসের কিনারায় এনে দাঁড় করিয়েছে। এই কালো শক্তিকে মোকাবিলা করা আজকে আমাদের প্রধান কর্তব্য। এদের মোকাবিলা করতে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বোর্ড অব গভর্নর শায়খ খন্দকার গোলাম মাওলা নকশবন্দী বলেন, যারা মনে করেন বাংলাদেশকে আফগানিস্তান বানাবেন তাদের দেখা উচিত আফগানের পরিস্থিতি কী, পাকিস্তানের পরিস্থিতি কী। সুতরাং বলব আপনার ভুল পথ ছেড়ে আসুন। শান্তির ধর্ম ইসলামের পক্ষে কথা বলুন।
এদিকে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে জাতীয় প্রেসক্লাবে রক্তদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান। এছাড়া এ সময় দৈনিক সমকালের সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান, বিএফইউজের সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম চৌধুরী, দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম, প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ কার্তিক চ্যাটার্জি, ডিইউজের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কুদ্দুস আফ্রাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে নেতৃবৃন্দ প্রেসক্লাবে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
এদিকে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সারা দেশের সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে দরিদ্র রোগীদের ২ ঘণ্টা বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়।
যথাযোগ্য মর্যাদায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি পালন উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সকল ভবন ও হলে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা ও কালো পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, আলোচনা সভা, আলোকচিত্র প্রদর্শনী, শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।
এ ছাড়া ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর আলোচনা সভা হয়। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক সভাপতিত্ব করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ