Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

রশিদের ঘূর্ণিতে দিশেহারা দিল্লি

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০০ এএম

রশিদ খানের স্পেল শেষেই প্রশ্নটা বেশি করে উঠছিল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সানরাইজার্সের এই আফগান কি এখন বিশ্বের সেরা স্পিনার? জবাবটা তার আগেই টুইটে দেন ভারতের ধারাভাষ্যকার ও বিশ্লেষক হর্শা ভোগলে, ‘রশিদ খানই সেরা। ২২০ রান তাড়ায় ৩ ওভার শেষে ৬ রানে ২ উইকেট। চ্যাম্পিয়ন।’ আফগান লেগ স্পিনার এরপর আরও এক ওভার বল করেন। ১৩তম ওভারে- দিল্লি ক্যাপিটালসের ঋষভ পন্ত ও অক্ষয় প্যাটেল তখন উইকেটে। বাকি ৪৮ বলে পাড়ি দিতে হবে ১৩৮ রান-পর্বত। রশিদ এ ওভারেও ধরে রাখেন কিপটেমি, মাত্র ১ রান দিয়ে নেন অক্ষয়ের উইকেট। অর্থাৎ ৪ ওভারে ৭ রানে ৩ উইকেট!
আগেই ম্যাচ থেকে প্রায় ছিটকে পড়ার পথে থাকা দিল্লি এরপর শুধু ২০ ওভার ব্যাটিং শেষ করে আসার প্রার্থনাই করতে পারত। সেটিও তারা পারেনি। ১৯ ওভারে ১৩১ রানে অলআউট হয়ে সানরাইজার্সের কাছে ৮৮ রানের হার মেনে নিতে হয় শ্রেয়াস আইয়ারের দলকে। আইপিএলে এবার রশিদের এই বোলিং ফিগারই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে কিপটে। তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে জয় তুলে নিয়ে প্লে অফে খেলার আশা টিকিয়ে রাখল সানরাইজার্স। ১২ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলে ছয়ে রয়েছে ডেভিড ওয়ার্নারের দল। ১২ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তিনে দিল্লি। প্লে অফের আশা টিকিয়ে রাখতে শেষ দুই ম্যাচে জিততে হবে সানরাইজার্সকে।
এই ম্যাচেই অবিশ্বাস্য উইকেট শিকার অভিযানে অবশেষে ছেদ পড়ল কাগিসো রাবাদার। আইপিএলে টানা ২৫ ম্যাচ উইকেট নেওয়ার অভাবনীয় কীর্তির পর এবার একটি ম্যাচে উইকেট পেলেন না দক্ষিণ আফ্রিকান ফাস্ট বোলার। এদিন
চার ওভারে কোনো উইকেটের দেখা পাননি দিল্লির এই পেসার। এমনিতে দারুণ নির্ভরযোগ্য এই বোলার এ দিন বেশ খরুচেও ছিলেন, গুনেছেন ৫৪ রান।
আইপিএলে রাবাদা সবশেষ উইকেটশ‚ন্য ছিলেন ২০১৭ আসরে। তখন তিনি খেলতেন দিল্লির আগের ফ্র্যাঞ্চাইজি ডেয়ারডেভিলসে। সেই ম্যাচও ছিল সানরাইজার্সের বিপক্ষে। সেদিনও তিনি রান দিয়েছিলেন অনেক, চার ওভারে ৫৯। টানা উইকেট নেওয়ার এই পরিক্রমায় অবশ্য আগেই ছাড়িয়ে যান বিনয় কুমারকে। ২০১২ ও ২০১৩ আইপিএলে টানা ১৯ ম্যাচ উইকেট নিয়েছিলেন বিনয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দিশেহারা-দিল্লি
আরও পড়ুন