Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

রায়হান হত্যা মামলা গ্রেফতারকৃত এএসআই এলাহী ও রিমান্ড শেষে কনেস্টবল হারুন এখন আদালতে

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৯ অক্টোবর, ২০২০, ৩:৫৬ পিএম

৫ দিনের রিমান্ড শেষে আজ (বৃহস্পতিবার) আদালতে হাজির করা হয়েছে কনস্টেবল হারুন রশিদকে। এসময় রায়হান হত্যা মামলায় সর্বশেষ গ্রেপ্তারকৃত বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আশেক এলাহিকেও আদালতে হাজির করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) সিলেট। বেলা ৩ টায় কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে পিবিআই তাদেরকে সিলেটের অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াদুর রহমানের আদালতে হাজির করে। এর মধ্যে আশেক এলাহীকে বুধবার রাতে পুলিশ লাইন্স থাকা অবস্থায় তাকে গ্রেপ্তার দেখায় পিবিআই। আর হারুনুর রশীদকে ৫ দিনের রিমান্ডে নিয়েছিলো পিবিআই। আজ আশেক এএসআই আশেক এলাহীকেও রিমান্ড চাওয়া হবে বলে পিবিআই’র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। এ নিয়ে চাঞ্চল্যকর এ মামলায় তিন পুলিশসহ চারজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হলো। এরমধ্যে গত ২৫ অক্টোবর শেখ সাইদুর নামে একজনকে সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেপ্তার করেছে পিবিআই। পরে তাকে ৫৪ ধারায় আদালতে চালান দেয়া হয়। পিবিআই এর একটি সূত্র জানায়, রায়হানকে আটকের আগে ছিনতাইয়ের অভিযোগকারী ছিলেন শেখ সাইদুর রহমান। অভিযোগের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন থাকায় তাকে সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আর গত ২৪ অক্টোবর সিলেট মেট্রোপলিটনের বন্দর বাজার ফাঁড়িতে রায়হান আহমদ নামের এক যুবক হত্যার ঘটনায় ফাঁড়ির বহিষ্কৃত কনস্টেবল হারুনুর রশীদকে গ্রেপ্তার করে (পিবিআই)। এর আগে গত ২০ অক্টোবর বহিষ্কৃত কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাসকে গ্রেপ্তার দেখায় পিবিআই। এদিকে এ ঘটনার মূল অভিযুক্ত বন্দরবার পুলিশ ফাঁড়ির সদ্য বহিষ্কৃত ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়া পলাতক রয়েছেন এখনো।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রায়হান হত্যা


আরও
আরও পড়ুন