Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

বিত্তশালীরা সহযোগিতা করলে দেশে আর দারিদ্র থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ৩:০৮ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এলাকাভিত্তিক উন্নয়নে ধনী-বিত্তশালীরা সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলে দেশে আর দারিদ্র থাকবে না। পাশের মানুষটিকে ভালো রাখতে তাদের এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী আশ্বশ্ত করেন করোনায় স্থবির হলেও উন্নয়নের লক্ষ্য থেকে সরকার সরে যায়নি।

আজ শনিবার গৃহ-উপহার কার্যক্রম উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী সামর্থ্যবান ও সমাজে প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিদের দেশের কল্যাণে কাজ করার আহ্বান জানান। ‘দেশের একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না’ মুজিব বর্ষের শুরু থেকেই এমন প্রতিশ্রুতি দিয়ে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সে অনুযায়ী চলছে আশ্রয়ন প্রকল্প।

চলতি অর্থবছরে প্রায় ৬০ হাজার পরিবারের জন্য ঘর তুলে দিচ্ছে সরকার। সেই কার্যক্রমে যুক্ত হয়ে ৬ হাজার ২শ ২২টি গৃহ নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছে জনপ্রতিনিধি, সরকারী কর্মকর্তা এবং বেসরকারী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান। তারই অংশ হিসেবে এবার সরকারের ৮০ জন সচিব ঘর তৈরি করে দিলেন ১৬০ পরিবারের জন্য।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের গৃহ-উপহার কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানেই প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে তুলে দেওয়া হয় ঘরের চাবি।
 
সরকার সচিবদের নিজ গ্রামে গৃহ নির্মাণের এই উদ্যোগের প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পাশের মানুষটিকে সহযোগিতা করলে দেশে দারিদ্র থাকবে না।

পঁচাত্তরের পর যারা ক্ষমতায় এসেছে তারা কেবলই নিজেদের আখের গোছাতে ব্যস্ত ছিলো অভিযোগ করে শেখ হাসিনা বলেন, তাদের ভোগবিলাস মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারেনি।



 

Show all comments
  • Nadim ahmed ৭ নভেম্বর, ২০২০, ৮:৩৮ পিএম says : 0
    Our country is on the highway of development and a model country of the world for development. Then why the rich people should contribute now again? Just to pay the salaries of haram khors???
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন