Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ফ্রান্স-ঘটনায় এবার ওজিলের টুইট

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানকে জার্সি উপহার দেওয়া আর তার পক্ষে রাজনৈতিক কথা বলার জেরে জার্মানি দল থেকে বাদ পড়েছেন আগেই। মেসুত ওজিল কাগজে-কলমে এখনো আর্সেনালের খেলোয়াড় হলেও জায়গা পাচ্ছেন না দলে। আর্সেনালের বিষয়টিতে অভিমানে আবেগী একটি টুইট করে খবরের শিরোনাম হয়েছিলেন তুর্কি বংশোদ্ভূত জার্মান ফুটবলার। এবার তিনি খবরের শিরোনাম হয়েছেন ফ্রান্সের ঘটনায় টুইট করে।

ফ্রান্সে এক শিক্ষককে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয় কিছুদিন আগে। এরপর থেকেই দেশটিতে অস্থিরতা ছড়িয়ে পড়েছে। দেশটির দ্বিতীয় প্রধান ধর্ম ইসলাম। বিপথগামী এক মুসলিম শরণার্থীর কারণে এ ঘটনা ঘটায় ইসলামি জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ডাক দিয়েছেন মাখোঁ। এভাবে সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে ইসলামকে জড়ানোয় দেশটির ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা শঙ্কিত হয়ে উঠেছেন। মাখোঁর সমালোচনা চলছে মুসলমানদের মাঝে। বিশ্বের মুসলিম প্রধান অঞ্চলেও ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। ফ্রান্সে চলমান এই অস্থিরতা নিয়ে ওজিল টুইট করেছেন। টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘ইসলামে সন্ত্রাসের কোনো জায়গা নেই।’ গতকালের সেই টুইটে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে নিজের অবস্থান জানিয়ে সবাইকে পবিত্র কোরানের একটি আয়াত মনে করিয়ে দিয়েছেন, ‘কেউ কাউকে হত্যা করল সে যেন পৃথিবীর সকল মানুষকে হত্যা করল। আর কেউ একটি প্রাণ রক্ষা করল সে যেন সকল মানুষের প্রাণ রক্ষা করল।’
জার্মানির সাবেক মিডফিল্ডার ওজিলের জন্ম জার্মানিতে, তবে তুরস্কের এক মুসলিম পরিবারে। মুসলিম পরিবারে জন্ম হলেও নিজেকে সব সময়ই ধর্ম নিয়ে বিতর্কের বাইরেই রেখেছেন ওজিল। নিজেকে তিনি দূরে রাখতেন অন্য সব বিতর্কিত বিষয় থেকেও। কিন্তু এরদোয়ানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার কারণে সমালোচনার মুখে পড়েন ২০১৮ বিশ্বকাপের আগে। দুর্দান্ত ছন্দে থাকলেও তাই রাশিয়া বিশ্বকাপে নিয়মিত খেলা হয়নি তার। তার পর থেকে আর দলে জায়গাই পাননি।
সাত বছর আগে রিয়াল থেকে আর্সেনালে যোগ দেওয়া মিডফিল্ডার এরপর ব্রাত্য হয়ে পড়েন আর্সেনাল দলেও। গানারদের হয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৫৪ ম্যাচে ৪৪ গোল করা ওজিল উনাই এমেরি কোচ থাকতেই আর্সেনালের বিরাগভাজন হয়েছিলেন। অন্তঃবর্তীকালীন কোচের অধীনে ফিরেছিলেন দলে। কিন্তু করোনা মহামারিতে স্থগিত খেলা আবার শুরুর পর থেকে আর্সেনাল দলে ব্রাত্য হয়ে পড়েছেন ওজিল। এর পেছনে চীনের উইঘুর মুসলমানদের নিয়ে করা তার মন্তব্যের ভ‚মিকা আছে বলেই মনে করেন ওজিলের ঘনিষ্ঠরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ওজিলের-টুইট
আরও পড়ুন