Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

অ্যামাজনের প্রান্তিক বিক্রি প্রায় ১০০ বিলিয়ন ডলার

করোনাকালে অনলাইন শপিং

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

করোনাকালে অনলাইন শপিংয়ের চাহিদা বাড়ায় প্রায় ১০০ বিলিয়ন (৭৭.৪ কোটি পাউন্ড) এর ত্রৈমাসিক বিক্রয় পোস্ট করে, অ্যামাজন তার ব্যবসার বাম্পার বছর অব্যাহত রেখেছে। ই-কমার্স জায়ান্ট জানিয়েছে যে, সেপ্টেম্বরে সমাপ্ত তিন মাসে নেট বিক্রয় বছরে ৩৭ শতাংশ বেড়ে ৯৬.১ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে।

২০১৯ সালে ২.১ বিলিয়নের তৃতীয় প্রান্তিকের তুলনায় এ বছর একই সময়ে নিট মুনাফা ৬.৩ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। পরিসংখ্যানগুলিতে দেখা গেছে যে, অ্যামাজনের ভাল ফর্মে ধীরগতির কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি, কারণ লাখ লাখ মানুষ দোকান বন্ধের মধ্যে মুদি এবং অন্যান্য পণ্য সরবরাহের জন্য প্ল্যাটফর্মের দিকে ঝুঁকছেন। ক্রমবর্ধমান চাহিদা সংস্থাগুলোর দ্বারা একটি বিশাল ভাড়ার স্ফীতি তৈরি করেছে, যা গুদামগুলোতে এবং তার প্রযুক্তি কেন্দ্রগুলো এবং কর্পোরেট অফিসগুলোতে তার কর্মশক্তিকে আরও বাড়িয়ে তুলেছে।

অ্যামাজন জানিয়েছে যে, বছরের শুরু থেকে এটি যুক্তরাজ্যে ১০ হাজারটি নতুন স্থায়ী চাকরিসহ ৪ লাখ চাকরি তৈরি করেছে। সংস্থাটি বলেছে যে, এ মাসের শুরুতে এটির বার্ষিক প্রচার ইভেন্ট চলাকালে প্রাইম দিবসে এর বিক্রয় ৩.৫ বিলিয়ন ছাড়িয়েছে। এটি বছরে প্রায় ৬০০ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। রিমোট কাজ এবং গেমিংয়ের চাহিদা বৃদ্ধির ফলে কোম্পানির ক্লাউড বিভাগ, আমাজন ওয়েব সার্ভিসগুলো এ সময়ে ২৯ শতাংশ আয় বাড়িয়ে ১১.৬ বিলিয়ন ডলার করেছে।

অ্যামাজন পূর্বাভাস দিয়েছে চতুর্থ প্রান্তিকে তাদের বিক্রি ১১২ থেকে ১২১ বিলিয়ন ডলারের মধ্যে হবে যার ফলে প্রথমবারের মতো এক প্রান্তিকে কোম্পানির আয় ১০০ বিলিয়ন ডলারের সীমারেখা পার করবে। তবে এটি সতর্ক করে দিয়েছে, লাভটি বছরের শেষ তিন মাসের মধ্যে সম্ভবত ক্ষতিগ্রস্ত হবে, মূলত কোভিড-১৯ সম্পর্কিত ৪ বিলিয়ন ডলার ব্যয়ের কারণে। সূত্র : সিটিএএম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ