Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ভোট উৎসব চায় না আ. লীগ প্রার্থী

প্রচারণাকালে এসএম জাহাঙ্গীর

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০২ এএম

আওয়ামী লীগ দিনের ভোট রাতে করতে পছন্দ করে অভিযোগ করে ঢাকা-১৮ আসনে বিএনপির প্রার্থী এসএম জাহাঙ্গীর বলেন, তাদের ভোটের প্রয়োজন হয় না। ভোটের যে উৎসব তা আওয়ামী লীগ প্রার্থী করতে চান না। ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে গেলেই তো তাদের ভরাডুবি ঘটবে। আমরা আশা করি, জনগণ আাওয়ামী লীগের সব বাধা উপেক্ষা করে আগামী ১২ নভেম্বর ভোট কেন্দ্রে গিয়ে নিজের ভোট পছনের ব্যক্তি দিয়ে ফলাফল ঘরে নিয়েই ফিরবে। কারণ, এ আসনে যত উন্নয়ন হয়েছে তা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া করেছেন। গতকাল শনিবার নির্বাচনী এলাকায় প্রচারণাকালে তিনি এসব কথা বলেন। 

৯ম দিনের মতো শনিবার সকাল ১০টায় তুরাগ থানার রানাভোলা থেকে জাহাঙ্গীর হোসেনের ধানের শীষের পক্ষে গণসংযোগ শুরু কথা ছিল। কিন্তু আওয়ামী নেতাকর্মী ও প্রশাসনের লোকজন তা ছত্রভঙ্গ করে দেয় বলে অভিযোগ করা হয়। মাত্র এক ঘণ্টার প্রচারণায় ৭ নম্বর সেক্টরে লেখক ড্রাইভ রোড, চৌরাস্তা, রবীন্দ্র সরণি রোড, হাউজ বিল্ডিং, মাসকট প্লাজার সামনে এসে বক্তব্য দেয়ার মাধ্যমে গণসংযোগ শেষ করেন।
এস এম জাহাঙ্গীর বলেন, আমাদের আজ ৫৩ ও ৫৪ নম্বর ওয়ার্ডে পুলিশের অনুমতি নিয়ে গণসংযোগের কর্মসূচি দিয়েছিলাম। রানাভোলায় আমার যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেখানে আমাদের যেসব নেতাকর্মী জমায়েত হয়েছিলেন, তাদেরকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও প্রশাসন ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে। এভাবে হলে যদি হয় তাহলে নির্বাচন কী হবে?
তিনি বলেন, আমরা যে এলাকায় কর্মসূচি দিয়েছি- ৫৩ ও ৫৪ নম্বর ওয়ার্ডে সেখানে আওয়ামী লীগেরগুন্ডা বাহিনী রাস্তায় রাস্তায় লাঠিসোঠা হাতে মিছিল করছে। কেন মহড়া দিচ্ছেন? আওয়ামী লীগ চায় একটা ঘটনা ঘটিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের নামে মামলা দিয়ে যাতে আমরা প্রচার করতে না পারি। সেজন্য তারা এসব পাঁয়তারা করছেন। আমাদের দল থেকে আমাদের নেতারা সর্বোচ্চ ধৈর্য্য সহকারে প্রচার চালিয়ে যেতে বলেছেন। আমরাও তাই করছি।
বিএনপির এ প্রার্থী আরো বলেন, আমাদের প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগ প্রার্থী চাচ্ছে না জনগণ ভোট কেন্দ্রে যাক। এজন্য তারা বিভিন্ন ধরণের সন্ত্রাস করছে, বিভিন্নভাবে আমাদের নেতাকর্মীদের হুঁমকি-ধমকি দিচ্ছে। আমরা যেখানে কর্মসূচি দিচ্ছি গত ২৪ অক্টোবর থেকে সেখানে পাল্টা কর্মসূচি দিচ্ছে আওয়ামী লীগ। অথচ প্রতিটি কর্মসূচি দেয়ার আগে নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ি পুলিশের অনুমতি নিয়েই কর্মসূচি দেই। যেখানে আওয়ামী লীগ এরই মধ্যে কর্মসূচি করেছে-এমন স্থানে কর্মসূচি দিলেও সেখানেও তারা পাল্টা কর্মসূচি দিচ্ছে। ঢাকা-১২ আসনের উপনির্বাচনে ভোটাররা ভোট দেয়ার জন্য উন্মুখ হয়ে আছে। আবার এরই মধ্যে ধানের শীষের পক্ষে জনগণের সাড়া দেখে আওয়ামী লীগ ভয়ে ভীত হয়ে পড়েছে। যার কারণে জনগণ যাতে ভোট কেন্দ্রে না যায় সেজন্য আওয়ামী লীগ প্রার্থী সবধরণের কর্মকান্ড করছে,পরিকল্পনা করছে।
বিএনপি প্রার্থী জাহাঙ্গীর বলেন, ঢাকা-১৮ আসনে ধানের শীষের পক্ষে গণজোয়ার উঠেছে। এই গণজোয়ারে ভীত হয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আমাদের নেতাকর্মীদের ঘরে ঘরে যাচ্ছে, তাদের ঘরে না থাকার জন্য থ্রেট করছে যে, আপনার সন্তান, আপনার স্বামী আগামী ১৩ নভেম্বর পর্যন্ত যেন বাসায় না থাকেন। থাকলে তাদের সমস্যা হবে। অথচ আমাদের নেতাকর্মীদের নামে কোনো ওয়ারেন্ট নেই। আওয়ামী লীগ প্রার্থী নিজেও আমাদের নেতৃবৃন্দকে থ্রেট করছে। আমাদের নেতাকর্মী বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেয়ার হুমকি দিচ্ছে। আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে উদ্দেশ্য করে জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আমাদের গণসংযোগে বাধা দিচ্ছেন-এটা গণতন্ত্রেও নমুনা না। এসময় প্রচারণায় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।



 

Show all comments
  • মোহাম্মদ জাকির হোসেন ১ নভেম্বর, ২০২০, ১২:৩৪ এএম says : 0
    কি যে বলেন ভাই,এ কথা তো বাংলাদেশের সবাই জানে। সাংসদ হতে পারলেই (হবেই) অর্থ বিত্তের অভাব হবে না। সে কেন ভোট উৎসব চাইবে। ছলেবলে কৌশলে যেভাবেই হোক, তাকে সংসদে যাওয়া চাই...ই।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভোট-উৎসব
আরও পড়ুন