Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

রাসূল (সা.) আমাদের ঈমান, আমাদের জান্নাত- সাইয়্যিদ শায়খ ফাদি জুবা

যুক্তরাজ্যের সিরাজাম মুনিরায় ‘চিলড্রেন মাওলিদ’ মাহফিল

বার্মিংহাম প্রতিনিধি | প্রকাশের সময় : ২ নভেম্বর, ২০২০, ৮:৫০ পিএম

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে অবস্থিত সিরাজাম মুনিরা অ্যাডুকেশন সেন্টার অ্যান্ড জামে মসজিদে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে আয়োজিত ‘চিলড্রেন মাওলিদ’ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

গতকাল (১ নভেম্বর) রোববার যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন স্থান থেকে অভিভাবকরা তাদের শিশু ও পরিবারকে নিয়ে অনুষ্ঠানে যোগ দেন। রাসূল (সা.) এর জীবনীর উপরে শিশু প্রতিযোগীতায় বিজয়ী ও অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়া অভিভাবকদেরও পুরস্কৃত করা হয়।

সিরাজাম মুনিরা অ্যাডুকেশন সেন্টারের পরিচালক আলহাজ মাহবুবুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও মাওলানা আবুল হাসানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিরাজাম মুনিরা অ্যাডুকেশন সেন্টারের প্রিন্সিপাল সাইয়্যিদ শায়খ ফাদি জুবা ইবনে আলী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাইয়্যিদ শায়খ ফাদি জুবা বলেন, রাসূল (সা.) হচ্ছেন আমাদের ঈমান। তিনিই আমাদের জান্নাত। রাসূলকে নিজের জীবনের চাইতেও বেশি ভালবাসতে হবে। এই ভালবাসা শুধু মুখে নয় হৃদয় দিয়ে তাকে ভালবাসতে হবে। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে তাকে অনুসরণ করতে হবে। তার উপর প্রত্যেহ দরুদ শরীফ পাঠ করতে হবে।

শায়খ ফাদি বলেন, প্রিয়নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) শুধু মুসলমানদের জন্যই প্রেরিত হননি। তিনি সমস্থ মানবজাতির রাসূল। পৃথিবীর সকল ধর্মের মানুষ তার রহমতের ভেতর আছেন। তাকে যেই অনুসরণ করবে দুনিয়া আখেরাতে তিনি কামিয়াব হবেন।

তিনি হাদিস শরীফের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, একদিন সাহাবায়ে কেরামের সামনে রাসূল (সা.) বক্তৃতা করছিলেন। এ সময় তিনি বলেন, আমি যদি আমার ভাইদের সাথে দেখা করতে পারতাম? তখন সাহাবায়ে কেরাম বললেন আমরা কি আপনার ভাই নয়। রাসূল (সা.) বললেন, তোমরা আমার ভাই নও তোমরা আমার বন্ধু। আমার পরে পৃথিবীতে কিছু মানুষ আসবে যারা আমাকে শারিরিকভাবে না দেখেও তাদের অন্তরে আমার মোহাব্বাত থাকবে। তারা আমাকে ভালবাসবে তাদের নিজের চেয়ে, মা-বাবার চেয়ে ও সম্পদের চেয়ে বেশি। তারাই হচ্ছেন আমার ভাই।

শায়খ ফাদি আরো বলেন, যারা আমাকে মোহাব্বাত করে আমার উপর দরুদ শরীফ পড়বে তাদের কণ্ঠস্বর আমি রওজা শরীফ থেকে শুনতে পাবো এবং কিয়ামতের দিন যখন ইয়া রাসূলুল্লাহ বলে তারা আমাকে ডাক দিবে তখন তাদের কণ্ঠস্বরকে আমি চিনতে পারবো। তাদেরকে আমি নাম ধরে ধরে আমার কাছে ডেকে নেবো। এজন্য আমাদেরকে এখন থেকে প্রস্তুত রাখতে হবে। আমাদের হৃদয়কে রাসূলের ভালবাসা দিয়ে পরিবর্তন করতে হবে। যাতে কিয়ামতের দিন তিনি আমাদের চিনতে পারেন।

অনুষ্ঠানে কুরআন তেলাওয়াত করেন মো. ইয়াকুব, নাশিদ পরিবেশন করেন তাকবির টিভির ইসলামি অনুষ্ঠানের উপস্থাপক কারী মো. গোলাম মাহফুজ এবং নাতে রাসূল (সা.) পরিবেশন করেন মো. ইমাদ উদ্দিন ও মো. নজমুদ্দিন। রাসূলের শানে কবিতা পাঠ করেন মোছা. রায়হানা জান্নাত ও রোকাইয়া জান্নাত।

সভাপতির বক্তব্যে সিরাজাম মুনিরা অ্যাডুকেশন সেন্টার ও জামে মসজিদের পরিচালক আলহাজ মাহবুবুর রহমান চৌধুরী সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, আমাদের সকল কাজ ও আমল আল্লাহর ওয়াস্তে আনজাম দিতে হবে। আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের সন্তুষ্ঠিই আমাদের দুনিয়া ও আখেরাতের সম্বল।

সভায় সভায় উপস্থিত ছিলেন সিরাজাম মুনিরা অ্যাডুকেশন সেন্টার ও জামে মসজিদের পরিচালক আলহাজ হাফিয সাব্বির আহমদ, আলহাজ কাজী মো. নানু মিয়া, আলহাজ মো. জসিম উদ্দিন, মৌলভীবাজার জেলা জনকল্যাণ কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক মো. মোস্তফা কামাল বাবলু, বাংলা কাগজের নির্বাহী সম্পাদক রিয়াদ আহাদ, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ফয়ছল আহমদ চৌধুরী, টিভি ওয়ানের বার্মিংহাম প্রতিনিধি মো. আমিরুল ইসলাম বেলাল, আই অন টিভির বার্মিংহাম প্রতিনিধি সুমন আহমদ, সিরাজাম মুনিরা জামে মসজিদের ইমাম কারী আহমদ আলী।

এছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মো. আসাদুল হক, সৈয়দ তাজুল ইসলাম, আলহাজ মো. আব্দুল মালিক, মো. জহিরুল ইসলাম, মো. জাহাঙ্গীর মিয়াসহ প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-শিক্ষক, সাধারণ মুসল্লি ও অভিভাবকবৃন্দ।

প্রবাস জীবন বিভাগে সংবাদ পাঠানোর ঠিকানা
[email protected]



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ