Inqilab Logo

বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৪ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

ম্যারাডোনার জন্য প্রার্থনায় আর্জেন্টিনা

কিংবদন্তির সফল অস্ত্রপচার

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম


৬০তম জন্মদিনটা এবার তার খুব একটা ভালো কাটেনি। কাটবেই-বা কীভাবে! ডিয়েগো ম্যারাডোনা মানে চারপাশে হাজারো-লাখো ভক্ত। ম্যারাডোনা মানে তাঁকে ঘিরে উচ্ছ¡াস। ম্যারাডোনার কাছে গুরুত্বপ‚র্ণ পরিবারের কাছে থাকা, পরিবারের ভালোবাসা। কিন্তু করোনার কারণে এবার জন্মদিনটা একলা কেটেছে ছিয়াশি বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টাইন কিংবদন্তির। সব মিলিয়ে মন খারাপ ছিল আর্জেন্টাইন ফুটবল-ঈশ্বরের। শরীর আগে থেকেই একটু খারাপ ছিল, সেটি ঠিক রাখার জন্য কড়া ওষুধের ডোজও পড়েছে। এর মধ্যে চিরদিনের বন্ধুরূপী শত্রæ হয়ে থাকা অ্যালকোহল তো ছিলই! সেদিন হয়তো একটু বেশি পান করে ফেলেছিলেন ম্যারাডোনা। ফল? আরও খারাপ শরীর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ম্যারাডোনা। মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারও হয়েছে তার। মস্তিষ্কে রক্ত জমাট (ক্লট) বেঁধে ছিল।
সর্বশেষ খবর, অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে। অস্ত্রোপচারের ধাক্কাও প্রাথমিকভাবে সামলে নিয়েছেন ম্যারাডোনা। প্রথম রাতটা কোনো ঝামেলা ছাড়াই কাটিয়েছেন বলে জানাচ্ছে আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টস। আর যাঁকে মহাতারকা ছাপিয়ে প‚জনীয় করে মাথায় তুলে রেখেছে আর্জেন্টাইনরা, সেই ম্যারাডোনার এমন খবর আর্জেন্টিনা জুড়ে মানুষের দুই হাত প্রার্থনায় উঠে যাওয়াই অনুমিত। তা-ই হয়েছে। হাসপাতালের সামনে মানুষের কণ্ঠে, ব্যানারে কিংবা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হ্যাশট্যাগে- চারদিকে একই সুর, ‘ফুয়েরসা দিয়েগো।’ বাংলায় অর্থটা অনেকটা দাঁড়ায়- ‘সৃষ্টিকর্তা আপনাকে শক্তি দিন, ডিয়েগো।’
গতপরশু আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস এইরেসে একটা বেসরকারি ক্লিনিকে ম্যারাডোনার মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার হয়েছে। তার ব্যক্তিগত ডাক্তার লিওপোলদো লুক জানিয়েছেন, ‘সফলভাবে ক্লটটা সরাতে পেরেছি আমরা। অস্ত্রোপচারের সঙ্গে ভালোভাবেই মানিয়ে নিয়েছেন ডিয়েগো।’ ম্যারাডোনাকে নিয়ে লুক অভয়ও দিচ্ছেন, ‘সবকিছু নিয়ন্ত্রণে আছে। রক্ত সরে যাচ্ছে। তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।’
বাবাকে দেখতে গিয়েছিলেন মেয়ে জিয়ান্নিনা সেখান থেকে বের হয়ে এক টুইটে জানান, ‘মাত্রই ক্লিনিক থেকে বের হলাম। আমার বাবা, আমার বোন আর আমাকে নিয়ত ভালোবাসা জানানোর জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। যাঁরা তার জন্য প্রার্থনা করছেন, তাঁদেরও ধন্যবাদ।’ ম্যারাডোনা হাসপাতালে শুনে হাসপাতালের বাইরে ভিড় করেছেন তার ভক্তরা। তারই সূত্রধরে সেখানে থাকা আর্জেন্টাইন কিংবদন্তির সাবেক মুখপাত্র কোপোলা সেটি নিয়ে বলছিলেন, ‘পরিবার আর মাঠ- এ দুটোই পারে ম্যারাডোনাকে বাঁচাতে।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আর্জেন্টিনা


আরও
আরও পড়ুন