Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৮ মাঘ ১৪২৭, ০৮ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

কলাপাড়ায় প্রতারক আটক

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৫ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের বন্ধু পরিচয়ে এক হাজতি আসামির পরিবারের সাথে প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে মো. কামরুজ্জামান পলাশ নামে এক প্রতারককে আটক করেছে পুলিশ। 

গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আদালতের গেটের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার পলাশ পটুয়াখালী সদর উপজেলার চর জৈনকাঠি গ্রামের ইদ্রিস মোল্লার ছেলে। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার রাতে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের স্টেনো কাম টাইপিস্ট মো. কাইউম আকন্দ বাদী হয়ে কলাপাড়া থানায় আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।
জানা যায়, আদালতের কর্মচারীরা আদালত ভবন থেকে বের হওয়ার সময় লক্ষ্য করেন কামরুজ্জামান পলাশ মাদক মামলায় গ্রেফতার হাজতি আসামি উজ্জ্বলের পিতা শাহজাহান কাজীর সাথে বাকবিতন্ড করছে। এসময় প্রকাশ হয় পলাশ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের বন্ধু পরিচয়ে জামিন করিয়ে দেয়ার কথা বলে ২৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় এবং আরও ২৫ হাজার টাকার জন্য বাকবিতন্ডা করছে। বিষয়টি সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শোভন শাহরিয়ারের নজরে এলে তিনি ওই প্রতারককে গ্রেফতারের নির্দেশ প্রদান করেন।
কলাপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) মো. আসাদুর রহমান বলেন, আদালতের স্টেনো কাম টাইপিস্ট মো. কাইউম আকন্দ গত মঙ্গলবার রাতে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গতকাল বিকেলে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। মামলাটি বর্তমানে তদন্তাধীন রয়েছে।
এর আগে কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর সদর ইউনিয়নের জনৈক হারুন গাজী নামের এক দালালকে পুলিশ আটক করে মহিপুর থানায় মামলা দায়ের করে। দীর্ঘ হাজত বাসের পর হারুন জামিনে মুক্তি পেলেও মামলাটি বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রতারক-আটক

৫ নভেম্বর, ২০২০
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ