Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭ আষাঢ় ১৪২৮, ০৯ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ম্যাখোঁকে মুসলিম উম্মাহর কাছে ক্ষমা চাইতে হবে

ফ্রান্সে মহনবী (সা.) ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশে নিন্দা অব্যাহত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ নভেম্বর, ২০২০, ১২:১৫ এএম

বিভিন্ন ইসলামী দলের সভা ও বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ : ১৬ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদান

ফ্রান্সে মহানবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র কার্টুন প্রকাশের প্রতিবাদে বিভিন্ন ইসলামী সংগঠনের সভা, সমাবেশ ও বিবৃতি অব্যাহত রয়েছে। এসব সভা সমাবেশ বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ফ্রান্সে নবী (সা.) অবমাননার দরুণ দেশটির প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁকে মুসলিম উম্মাহ’র কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। জাতীয় সংসদে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব পাশ করতে হবে।

ঢাকাস্থ ফরাসি দূতাবাসের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে মহানবী (সা.) অবমাননার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাতে হবে। মহানবী (সা.) ইজ্জত নিয়ে টানা হেঁচড়ার পরিণাম শুভ হবে না। ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব গ্রহণ এবং দেশটির পণ্য বর্জনের দাবিতে সম্মিলিত ইসলামী দলসমূহ আগামী ১৬ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

সম্মিলিত ইসলাম দলসমূহ : গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সম্মেলন কক্ষে সম্মিলিত ইসলামী দলসমূহ আয়োজিত মহানবীর (সা.) সম্মান : সভ্যতার নতুন স্ঙ্কট শীর্ষক সর্বদলীয় মতবিনিময় সভায় নেতৃবৃন্দ বলেছেন, ফ্রান্সে নবী (সা.) অবমাননার দরুণ দেশটির প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁকে মুসলিম উম্মাহ’র কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। জাতীয় সংসদে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব পাশ করতে হবে। ঢাকাস্থ ফরাসি দূতাবাসের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে মহানবী (সা.) অবমাননার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাতে হবে। সভায় ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব গ্রহণ এবং দেশটির পণ্য বর্জনের দাবিতে আগামী ১৬ নভেম্বর সোমবার সকাল ১১টায় বায়তুল মোকাররম থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদান এবং আগামী ২৮ নভেম্বর শনিবার ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে শানেরেসালাত সম্মেলন অনুষ্ঠানের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

দলসমূহের সহসভাপতি ও ইসলামী কানুন বাস্তবায়ন কমিটির আমীর মাওলানা আবু তাহের জেহাদী কাসেমীর সভাপতিত্বে এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের মহাসচিব ও বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন একাংশের আমীরে শরীয়ত মাওলানা জাফরুল্লাহ খান, সংগঠনের সমন্বয়ক মাওলানা ড. খলিলুর রহমান মাদানী, বাংলাদেশ জনসেবা আন্দোলনের চেয়ারম্যান মুফতি ফখরুল ইসলাম, খেলাফত আন্দোলনের নায়েবে আমীর মাওলানা আবুল কাশেম কাসেমী, খেলাফত আন্দোলনের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আলহাজ আজম খান, মাওলানা লুৎফর রহমান, ইসলামী ঐক্যজোটের (রকীব) মহাসচিব মাওলানা অধ্যাপক আব্দুল করিম, মাওলানা ফখরুদ্দীন আহমাদ, মাওলানা আবুল কালাম বাশার, মাওলানা জালালুদ্দিন আহমাদ, মোহাম্মদ হোসেন আকন্দ, মুফতি জাকারিয়া, মাওলানা মোস্তাফিজুর রব্বানী, মাওলানা সাদিকুর রহমান আজহারি, মাওলানা সালেহ সিদ্দিকী, জনসেবা আন্দোলনের মহাসচিব মাওলানা ইয়ামিন হোসেন আজমি, মাওলানা মাহমুদুল হাসান।

নেতৃবৃন্দ বলেন, রাসুল (সা.) ব্যঙ্গচিত্র কার্টুন প্রকাশ করে তাঁর ইজ্জত সম্মান ক্ষুন্ন করা যাবে না। পৃথিবীতে ইসলামের জাগরণ শুরু হয়েছে। সে দিন আর বেশি দূরে নয় গোটা বিশ্বে ইসলামের পতাকা উড়বে ইনশাআল্লাহ।
পীর সাহেব চরমোনাই : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই গতকাল বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে বলেছেন, বিশ্বের যে প্রান্তেই হোক না কেন মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের অবমাননা নবীপ্রেমিক ঈমানদার জনতা বরদাশত করতে পারে না। ফ্রান্স সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে পুলিশ পাহারায় মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করে মুসলিম উম্মাহ’র হৃদয়ে রক্তক্ষরণ করেছে।

তিনি বলেন, ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি ম্যাখোঁকে মুসলিম উম্মাহর কাছে ক্ষমা না চাইলে বিশ্বব্যাপী নবীপ্রেমিক জনতার আন্দোলন তীব্র থেকে তীব্রতর হবো। বিশ্বমুসলিম নেতৃবৃন্দকে ফ্রান্সসহ যারাই নবী (সা.)কে নিয়ে বাজে মন্তব্য করবে তাদের বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠতে হবে। ফ্রান্সকে বয়কট এবং ফ্রান্সের পণ্য বর্জন অব্যাহত রাখতে হবে, ফ্রান্সকে একঘরে করে দিতে হবে। তিনি বলেন, জাতিসংঘ বিশ্বব্যাপী অশান্তি দূর করে শান্তি প্রতিষ্ঠার দায়িত্ব নিয়ে তা প্রতিষ্ঠা লাভ করলেও মুসলমানদের স্বার্থ রক্ষায় জাতিসংঘ বার বার ব্যর্থ হচ্ছে। তিনি জাতিসংঘ এবং ওআইসিকে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে কঠোর ভূমিকা পালনের আহŸান জানান। তিনি বাংলাদেশ সরকার এখন পর্যন্ত রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা প্রস্তাব না করে পরোক্ষভাবে ফ্রান্সকে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে। তিনি সংসদে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব জ্ঞাপনের জন্য দাবি জানান।

পীর সাহেব বলেন, বাংলাদেশেও বিভিন্ন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উগ্রবাদীরা নবী মুহাম্মদ (সা.)কে নিয়ে কটুক্তি করছে। এসব বন্ধ করতে হবে। তিনি ইসলাম ও নবী (সা.) এর বিরুদ্ধে কটুক্তিকারীদের শাস্তির আইন প্রণয়ণ করে ধর্মদ্রোহীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানান।

বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টি: বিশ্ব মানবতার মুক্তিদূত মহানবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করে ফ্রান্সের সরকার ও প্রেসিডেন্ট যে রাষ্ট্রীয় নগ্নতার বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছে তাতে মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়েছে। এই জঘন্য ঘটনায় বাংলাদেশের সরকার প্রধানের রহস্যজনক নীরবতার পিছনে কারণ কি জাতি স্পষ্ট ভাবে জানতে চায়। অবিলম্বে ফ্রান্সের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের সাধারণ সভায় সভাপতির বক্তব্যে পার্টির আমীর আল্লামা সরওয়ার কামাল আজিজী এসব কথা বলেন। সভায় এক প্রস্তাবে বিশ্ব নবীর অবমাননাকারী ফ্রান্স সরকার নিঃশর্ত ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত তাদের সাথে সকল ধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে। ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে জরুরি তলব করে দেশের গণমানুষের অসন্তোষের কথা জানিয়ে দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানানো হয়। সভায় অপর এক প্রস্তাবে সা¤প্রদায়িক স¤প্রীতি বিনষ্টকারী ও ধর্মীয় অস্থিরতা উস্কে দেয়া ফ্রান্সের সকল বাণিজ্যিক পণ্য ও তাদের স্বার্থকে পরিপূর্ণরূপে বয়কট করার জন্য মুসলিম উম্মাহর প্রতি আহŸান জানানো হয়। সভায় আগামী ৭ জানুয়ারি পার্টির জাতীয় সাধারণ পরিষদের সাধারণ অধিবেশন অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, পার্টির উপদেষ্টা মাওলানা ফজলুর রহমান, পার্টির নায়েবে আমীর আলহাজ আবদুর রহমান চৌধুরী, নায়েবে আমীর মাওলানা মুফতি মোহাম্মদ আলী, মাওলানা মুসা বিন ইযহার, মাওলানা মুস্তাফিজুর রহমান মাহমুদী, সংগঠন সচিব হাফেজ মাওলানা আবু তাহের খান, মুফতি দীনে আলম হারুনী। সভায় অপর এক প্রস্তাবে বলা হয়, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতিতে জনজীবন চরম দুর্ভোগের শিকার। সরকার জনগণের স্বার্থ ও নিরাপত্তা দিতে চরমভাবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।

ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে গতকালও দেশের বিভিন্ন জেলা- উপজেলায় মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশে বক্তারা ওআইসির নিরবতার তীব্র সমালোচনা করে আরো ফ্রান্স সরকারকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানান। শেষে বিশ্ব শান্তি ও মুসলিম উম্মার কল্যাণ কামনা ও প্রিয় নবীকে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনে জড়িতদের শাস্তির কামনা করে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

ময়মনসিংহ : ভাংনামারী ইউনিয়নের নাপ্তের আলগী বাজারে এ বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেন ইত্তেফাকুল উলামা ইউনিয়ন শাখা। সমাবেশে ইত্তেফাকুল উলামা ইউনিয়ন শাখার সভাপতি মাওলানা শহীদুল্লাহর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন মাওলানা নজরুল ইসলাম, মাও. জোবায়ের মাহমুদ, প্রমূখ।

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) : মঠবাড়িয়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন দুলাল, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান সিফাত, জমিয়াতে মোদার্রেছিনের সভাপতি মাওলানা আবু জাফর, দক্ষিণ বন্দর জামে মসজিদের খতিব মওলানা শাহ জালাল প্রমূখ।

আমতলী (বরগুনা) : উপজেলা জমিয়াতে হিযবুল্লাহ’র সভাপতি ও কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব মাওলানা মো. আবু জাফর মোহাম্মদ শামসুদ্দোহা’র সভাপতিত্বে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে উপজেলা হিযবুল্লাহ, যুব হিযবুল্লাহ ও ছাত্র হিযবুল্লাহ’র ইউনিয়ন ও উপজেলা শাখার সহা¯্রাধিক নেতা- কর্মী ও ধর্মপ্রাণ মুসুল্লীরা বিভিন্ন ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে অংশগ্রহন করেন।

আদমদীঘি (বগুড়া) : আদমদীঘি সান্তাহারে তৌহিদী জনতা আয়োজনে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সান্তাহার দারুল-উলুম মাদরাসা মুহাতামিম মাও. মাহবুবুল ইসলাম, নায়েবে মুহাতামিম মুফতি ফিরোজ আহমোদ, নায়েমে তালিমাত রুহুল আমিন, আদমদীঘি মাদরাসার মুহাতামিম মাও. ইব্রাহীম, দ্দুস প্রমুখ।

 

 



 

Show all comments
  • Md. Humyun Kabir ৬ নভেম্বর, ২০২০, ১১:০৬ এএম says : 0
    Yes.
    Total Reply(0) Reply
  • রেজাউল ৬ নভেম্বর, ২০২০, ১২:১৫ পিএম says : 0
    মুসলিম উম্মাহ’র কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত নিন্দা ও আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে.
    Total Reply(0) Reply
  • Jack Ali ৬ নভেম্বর, ২০২০, ৯:২৯ পিএম says : 0
    If we really love our Prophet [SAW] more than ourselves then why you people sacrifice your life in order to establish the Law of Allah in our country.. Did Prophet [SWA] rule the country by man made Law ??.. we are insulting our Beloved Prophet in every way..
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মহানবী (সা.)

১৩ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ