Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ মাঘ ১৪২৭, ১০ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আড়াইহাজারে গণপিটুনিতে এক ব্যক্তি নিহত

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ)সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৬ নভেম্বর, ২০২০, ১২:১৫ পিএম | আপডেট : ১২:৫৮ পিএম, ৬ নভেম্বর, ২০২০

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে আনুমানিক ৩৫ বছরের এক যুবক নিহত হয়েছে। শুক্রবার সকালে উপজেলার ইলমদি আমবাগন এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে আড়াইহাজার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) পলাশ কান্তি রায় বলেন, ‘রূপগঞ্জ উপজেলার ভুলতা এলাকায় তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করেন আরমান হোসেন। প্রতিদিনের মতো নাইট ডিউটি শেষে রূপগঞ্জ থেকে নিজের মটোরসাইকেলে আড়াইহাজার খাগকান্দা এলাকার নিজের বাড়িতে ফিরছিলেন আরমান হোসেন। সে ইলমদি আমবাগন এলাকায় পৌঁছালে ডাকাতরা হামলা করে। পরে তাকে মারধর করে পাশের আমবাগানে বেঁধে রাখে। ভোর ৬টার দিকে ডাকাতরা মটোরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় আরমানের স্বজন ও গ্রামবাসী মিলে ডাকাতদের ধাওয়া দেয়। এতে অন্যরা পালিয়ে গেলেও একজনকে আটক করে গণপিটুনি দিলে সে মারা যায়।

তিনি বলেন, ‘এ ঘটনায় আরমানকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতের পরিচয় জানা যায়নি। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।’

আহত আরমান হোসেন বলেন, ‘রাত আনুমানিক পৌনে ১২টায় কারখানা থেকে বের হয়ে আড়াইহাজারের উদ্দেশ্যে রওনা দেই। সাড়ে ১২টার দিকে ইলমদি আমবাগানের সামনে আসলে দেখি কলাগাছ ফেলে রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে রাখেছে। এসময় ৫ থেকে ৬জন ডাকাত আমাকে চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে। পরে মারধর করে পাশের আমবাগানে নিয়ে বেঁধে রাখে। তবে সেখানে উদয়দি এলাকার আরেকজনকেও মারধর করে বেঁধে রাখে। ভোর ৪টার দিকে হাতের বাঁধন খুলে সেখান থেকে পালানোর চেষ্টা করলে দেখা যায় ডাকাতরা তাদের পোশাক পরিবর্তন করছে। আর তখন তারা আমাকে ধরে আবারও মারধর করে বেঁধে রাখে। তখন মাইকে ঘোষণা দিতে শোনা যায় এলাকায় ডাকাত পরেছে। তারপর কি হয়েছে কিছু বলতে পারছি না।
আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, নিহত ব্যাক্তির পরিচয় জানার চেষ্ঠা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নিহত


আরও
আরও পড়ুন