Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭, ১২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

মুখ দেখেই বোঝা যায় ভিটামিনের ঘাটতি

| প্রকাশের সময় : ৮ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

পরিশ্রমের তুলনায় খাবার সঠিক হওয়ায় শরীরে পর্যাপ্ত ভিটামিনের চাহিদা পূরণ হচ্ছে না। এতে করে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। শরীরের রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যায়। সাধারণত খাওয়ার অনিয়মের জন্যই ভিটামিনের অভাব দেখা দেয়। সমীক্ষায় দেখা গেছে, বিশ্বে ১০০ কোটি মানুষের শরীরে ভিটামিন ডি-এর অভাব রয়েছে। চিকিৎসকরা বলছেন, শরীরে ভিটামিনের অভাব থাকলে মুখ দেখেই বোঝা যায়।

খাবারই আপনার শরীরকে দিতে পারে কাজ করার ক্ষমতা। ভাবছেন খাবার তো আপনি খানই। তাহলে আবার তাতে এতো খেয়াল রাখার কী আছে? আছে। আপনি দিনে তিনবেলা খাচ্ছেন তো। কিন্তু কখনো কি এটা ভেবে দেখেছেন যে সেই খাবার থেকে আপনার শরীর তার চাহিদা অনুযায়ী ভিটামিনগুলো পাচ্ছে কিনা? শরীরে ভিটামিনের এই অভাবগুলো কিন্তু খুব ছোট ছোট উপসর্গের মাধ্যমে চিনে নিতে পারবেন আপনি।

অতিরিক্ত চুল পড়া ও পেকে যাওয়া : অতিরিক্ত চুল পড়া ও তাড়াতাড়ি চুল পেকে যাওয়ার কারণ হচ্ছে যত্মের অভাব বা কসমেটিকের জন্য, এটি অনেকেই মনে করেন। কিন্তু এই ধারণাটি ভুল। এটি কোনো ধরণের কেমিক্যালের প্রভাব নয় বা যত্মের অভাব নয়। এটি ভিটামিন বি৭ (বায়োটিন), ভিটামিন এ, ডি, ই এবং কে এর অভাবজনিত সমস্যার লক্ষণ। এই ভিটামিনের অভাব পূরণ করতে মাছ, ডিম, মাশরুম, ফুলকপি, বাদাম, তিলের বীজ ও কলা রাখুন প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায়।

হাতে ও পায়ে ঝি ঝি ধরা : হাতে ও পায়ে ঝি ঝি ধরা। পায়ের পাতা, তালু এবং পায়ের পেছনের অংশে ব্যথা অনুভব করার সমস্যায় পড়েন কমবেশি অনেকেই। আমরা ধরেই নেই এ সকল সমস্যার কারণ একটানা বসে থাকা ও নার্ভে চাপ পড়া। কিন্তু এই সমস্যাগুলোর মূলে রয়েছে ওয়াটার স্যলুবল বি ভিটামিন, ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম ও পটাশিয়ামের অভাব। ভিটামিনের অভাব পূরণে সবুজ শাক, কাঠবাদাম, তাল, কমলা, কলা, চিনাবাদাম, ডাবের পানি, কিশমিশ, কাজু বাদাম ইত্যাদি রাখুন খাদ্য তালিকায়।

ঠোঁট ও পায়ের গোড়ালি ফেটে যাওয়া : ঠোঁটের কিনার ফাটা ও পায়ের গোড়ালি ফেটে যাওয়ার কারণ হচ্ছে ভিটামিনের অভাব। আমরা অনেকেই মনে করি, ঠোঁট ফাটা বা ঠোঁটের কিনার ফাটা শীতকালের সমস্যা অথবা কিছুটা পানিশূন্যতার লক্ষণ। কিন্তু এটি ভিটামিন বি৩, বি২ ও বি১২ এবং আয়রন, জিংক ও দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গঠনকারী গুরুত্বপূর্ণ প্রোটিনের অভাবের লক্ষণ। ভিটামিনের অভাব মেটাতে ডিম, টমেটো, চিনাবাদাম, ডাল, দই, পনির, ঘি এবং ভিটামিন সি জাতীয় খাবার রাখুন খাদ্য তালিকায়।

দেহের নানা অংশ অবশ হয়ে যাওয়া : দেহের নানা অংশে অবশবোধ হওয়া খুবই সাধারণ একটি লক্ষণ। অনেক সময় আমরা ভাবি একটানা একভাবে বসে থাকা কিংবা নার্ভের ওপর চাপ পড়ার কারণে এটি ঘটে। কিন্তু সত্যিকার অর্থে ভিটামিন বি৯, বি৬ এবং বি১২ এর অভাব দেহে হলে এই লক্ষণটি দেখা দেয়। এছাড়াও ভিটামিনের অভাবের কারণে বিষন্নতা, রক্তস্বল্পতা, দুর্বলতা এবং হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট হওয়ার মতো লক্ষণও দেখা যায়। আর তা দূর করতে সামুদ্রিক মাছ, লাল চালের ভাত, বাদাম, ডিম, মুরগির গোশত, কলা, ব্রুকলি, ফুলকপি, বাঁধাকপি এবং সবুজ শাক রাখুন খাদ্য তালিকায়।

পেশিতে টান ধরা : মাঝে মাঝে পায়ের হাঁটুর পিছনের পেশিতে টান ধরলে বুঝতে হবে, ভিটামিন বি ও তার সঙ্গে ক্যালশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও পটাশিয়ামের ঘাটতি রয়েছে শরীরে। অভাব পূরণ করতে ছোট মুরগীর গোশত বেশি করে খেতে হবে। সঙ্গে ডিম ও দুধ রাখা প্রয়োজন।

দেহের বিভিন্ন অংশে লাল ও সাদা রংয়ের ফোস্কা ওঠা : মুখ, বাহু, উরু এবং দেহের পিঠের নিচে ও পেছনের অংশে লাল বা সাদা রংয়ের ফোস্কা উঠে, সেটা আমরা সাধারণ সমস্যা মনে করি। কিন্তু আসলে দেহের এই সকল স্থানে লালচে ও সাদা রংয়ের ফোস্কা ভিটামিন এ ও ডি এবং এসেনশিয়াল ফ্যাটি এসিডের অভাবের লক্ষণ। ভিটামিনের অভাব পূরণ করতে একটানা অনেকক্ষণ এসি ঘরে থাকবেন না। সূর্যের আলোতে বের হন। প্রচুর পরিমাণে মাছ, শাকসবজি ও ডিম রাখুন খাদ্য তালিকায়। 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন