Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯ মাঘ ১৪২৭, ০৯ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

জাতিসংঘের মাধ্যমে ম্যাখোঁ’র ফাঁসি চাই

ফ্রান্সে মহানবী (সা.) অবমাননার প্রতিবাদে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

মাহে রবিউল আউয়াল মাসে ফ্রান্সে মহানবী (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র কার্টুন প্রকাশ করায় মুসলিম উম্মাহ’র হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে। সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় মহানবীর অবমাননার দায়ে জাতিসংঘের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক আদালতে বিচার করে দেশটির প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁ’র ফাঁসি দিতে হবে। ওআইসিভুক্ত দেশগুলো থেকে ফরাসি দূতাবাস প্রত্যাহার করতে হবে। অবিলম্বে ব্লাসফেমি আইন পাস করতে হবে। যতদিন ব্লাসফেমি আইন পাস হবে না ততদিন আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

মুজিব জন্মশতবর্ষে অবিলম্বে জাতীয় সংসদে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আনুন এবং দেশটির পণ্য বর্জনের ঘোষণা দিন। গতকাল রোববার বাদ যোহর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেইটে ফ্রান্সে মহানবী (সা.) অবমাননার প্রতিবাদে বাংলাদেশ জমীয়াতে হিযবুল্লাহ ও ইউনাইটেড ঢাকার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে সংগঠনের সিনিয়র নায়েবে আমীর ও ছারছীনা পীর ছাহেবের বড় সাহেবজাদা আলহাজ হযরত মাওলানা শাহ আবু নছর নেছারুদ্দীন আহমদ হুসাইন প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এর আগে ঢাকার বিভিন্ন এলাকা থেকে যানবাহন ও পায়ে হেঁটে বিক্ষুদ্ধ তৌহিদী জনতা খন্ড খন্ড মিছিলসহ বায়তুল মোকাররমে অবস্থান নেয়।

মৌলভী মো. ইসমাঈল মিয়ার সভাপতিত্বে ও মাওলানা মুহাম্মাদ এনায়েতুল্লাহ ফয়রাভীর উপস্থাপনায় উক্ত মানববন্ধনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকার ডেমরার ঐতিহ্যবাহী দারুন্নাজাত সিদ্দিকীয়া কামিল মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আ.খ.ম আবু বকর সিদ্দিক। এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ জমীয়তে হিযবুল্লাহর নায়েবে আমীর আলহাজ মাওলানা মির্জা নূরুর রহমান বেগ, নাজেমে আ’লা প্রিন্সিপাল সাইয়্যেদ শরাফত আলী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. হাফেজ মুহাম্মদ রুহুল আমীন, ঢাকা নেছারিয়া কামিল মাদরাসার প্রিন্সিপাল ড. মুহাম্মাদ কাফিলুদ্দীন সরকার সালেহী, ঢাকা বিভাগীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মুহা. আলী আকবার ও বাংলাদেশ যুব হিযবুল্লাহর কেন্দ্রীয় সভাপতি আলহাজ মাওলানা কাজী মফিজ উদ্দিন।

শাহ্ আবু নছর নেছারুদ্দীন আহমদ হুসাইন বলেন, যুগে যুগে বেদ্বীন, কাফের, মুশরিকরা আমাদের প্রাণপ্রিয় নবীজী (সা.)-কে বিভিন্ন ধরনের কটাক্ষ করে অপমান করেছে। সম্প্রতি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁর সহযোগিতায় আমাদের প্রাণপ্রিয় নবীজীর শানে ব্যঙ্গ করে কার্টুন প্রদর্শন করা হয়েছে। এ সকল ঘটনায় একজন মুসলমান হিসেবে আমাদের হৃদয় ক্ষত-বিক্ষত হয়েছে। আর এমনটা প্রত্যেক মুসলমানেরই হওয়ার কথা। যেই মহান রাসুলের (সা.) জন্য আল্লাহ তা’য়ালা এই জগৎ সৃষ্টি করেছেন, তাঁর সম্মানের ওপর চুল পরিমাণ আঘাত হানবে তা আমরা কোনো মুসলমানই শেষ রক্তবিন্দু থাকা পর্যন্ত বরদাশত করব না। আমরা মুসলমান শান্তিতে থাকতে চাই। কিন্তু যখনই কোনো আঘাত আমাদের ধর্ম বা প্রাণপ্রিয় নবীজী (সা.)-এর ওপর আসে তখন আর বসে থাকতে পারি না। যেহেতু এর সাথে আমাদের ঈমানের সম্পর্ক রয়েছে।

আজ যারা আমাদের নবীজী (সা.)-কে নিয়ে কটাক্ষ ও ব্যঙ্গ করে তারা এটা জানে না যে, মহানবী (সা.) তো শুধু ইসলামের অনুসারীদের নবী নন, তিনিতো সারা বিশ্বের সকল জাতি এবং সকল মানুষের নবী। তিনি বলেন, মুসলমানরা শান্তিতে বিশ্বাস করি। আমরা জ্বালাও পোড়াও আন্দোলনে বিশ্বাসী না। ব্লাসফেমি আইন পাস না হওয়া পর্যন্ত আমরা শান্তিপূর্ণভাবে আমাদের দাবি জানিয়েই যাব ইনশাআল্লাহ।

স্বাগত বক্তব্যে প্রিন্সিপাল আ খ ম আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় নবী (সা.) ব্যঙ্গচিত্র কার্টুন প্রকাশ করায় মুসলিম উম্মাহ’র হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে। দ্বীন দরদি নবীপ্রেমিক মুসলমানরা ফ্রান্সের ধৃষ্টতার প্রতিবাদে রাজপথে নেমে এসেছে। প্রিন্সিপাল আবু বকর সিদ্দিক বলেন, মানুষের ঈমানের দাবি রাসুল (সা.)-এর অবমাননার প্রতিবাদে অবিলম্বে জাতীয় সংসদে নিন্দা প্রস্তাব আনুন। ফ্রান্সের পণ্য সামগ্রী বর্জনের ঘোষণা দিয়ে নবীর প্রতি ভালোবাসার প্রমাণ দিন। মাওলানা কাজী মফিজ উদ্দিন বলেন, ফ্রান্সে মহানবী (সা.)-কে অবমাননা করে দুই শত কোটি মুসলমানের হৃদয়ে আঘাত হানা হয়েছে। প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। তিনি ফেরাউন, নমরূদ, দাউদহায়দার ও সালমান রুশদীও রক্ষা পায়নি। কুলাঙ্গার ম্যাখোঁও রক্ষা পাবে না। প্রিন্সিপাল কাফিল উদ্দিন সরকার সালেহী বলেন, প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁ এ যুগের নমরূদ, এ যুগের আবু লাহাব। নবীপ্রেমিকরা কুলাঙ্গার ম্যাখোঁর বিচারের দাবিতে ময়দানে নামতে বাধ্য হচ্ছে। তিনি প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলেন, ছারছীনা দরবার শরীফের পক্ষ থেকে দাবি উঠছে ম্যাখোঁকে আন্তর্জাতিক আদালতে বিচার করতে হবে। এ জন্য সরকারের উচিত ওআইসিতে প্রস্তাব পাঠানো।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. হাফেজ মাওলানা রুহুল আমিন বলেন, বাক-স্বাধীনতার নামে রাসুল (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করার কারো অধিকার নেই। যেখানেই রাসুল (সা.) অবমাননা হবে সেখানেই প্রতিবাদের ঝড় উঠবে। সরকারকে অচিরেই কূটিৈনতকভাবে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে হবে। আলহাজ মাওলানা মির্জা নূরুর রহমান বেগ বলেন, রাসুল (সা.) ইজ্জত রক্ষায় আমরা ম্যাখোঁর প্রকাশ্যে ফাঁসি দাবি করছি। প্রয়োজনে জীবন দেব রক্ত দেব তবু নবীর ইজ্জত রক্ষা করব। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নবীর অবমাননার প্রতিবাদে একটি কথাও বললেন না। তা’হলে কী নবীর মহব্বত আপনাদের মধ্যে নেই। অবিলম্বে জাতীয় সংসদে নিন্দা প্রস্তাব আনুন এবং দেশটির পণ্য বর্জনের ঘোষণা দিন। না হয় আমরা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিক্ষোভ সমাবেশ করব। মানববন্ধনে ম্যাখোঁর ফাঁসি চেয়ে সঙ্গীত পরিবেশন করে ইসলামী শিল্পীগোষ্ঠী। বিক্ষুদ্ধ জনতা মহানবী (সা.)-এর অবমাননার প্রতিবাদে দফায় দফায় স্লোগান দেয়। স্লোগানে বলা হয়, ম্যাখোঁর দুই গালে জুতা মারো তালে তালে’ ফাঁসি চাই ফাঁসি চাই, ম্যাখোঁর ফাঁসি চাই’ নাস্তিকদের ফাঁসি চাই, ইসলামবিদ্বেষীদের ফাঁসি চাই’। মানববন্ধন শেষে মাওলানা শাহ আবু নছর নেছারুদ্দীন আহমদ হুসাইন মোনাজাতের মাধ্যমে কর্মসূচি সমাপ্ত ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ ছাত্রমিশন : ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর প্রতিবাদ ও অবিলম্বে বন্ধের দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ লেবার পার্টির ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রমিশন কেন্দ্রীয় সভাপতি সৈয়দ মো. মিলন সিনিয়র সহ-সভাপতি নাসরুল্লাহ তালুকদার ইমন, সাধারণ সম্পাদক মো. শরিফুল ইসলাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক কবি ইকবাল মাহমুদ। এক যুক্ত বিবৃতিতে ছাত্রমিশন নেতৃবৃন্দ বলেন, ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় মদদে একটি সরকারি বহুতল ভবনে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে কটাক্ষ করে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করা হয়েছে।

আমরা বাংলাদেশ ছাত্রমিশনের পক্ষ থেকে ফ্রান্সের ন্যাক্কারজনক ও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের ঘটনার তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন বন্ধের দাবি জানাই। আমরা বাংলাদেশ সরকারকে অবিলম্বে ফ্রান্সে সাথে কূটনৈতিক সর্ম্পক ছিন্ন এবং ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের আহ্বান জানাই।

মাদারীপুর জেলা সংবাদদাতা জানান, পীরজাদা মুফতী ইকরাম শরীফ ও মাওলানা নেছার উদ্দিেেনর পরিচালনায় হাজরাপুর দরবার শরীফের পীর সাহেব আলহাজ¦ আবু বকর সিদ্দিক এর সভাপতিত্বে মাদারীপুরে সম্মিলিত ওলামা পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি হযরত মাওলানা শাহাদাত হোসাইন পৌরসভার মেয়র আলহাজ¦ খালিদ ইয়াদ, সংগঠনের সেক্রেটারি মাওলানা আনোয়ার হোসেন, মাওলানা আমিনুল ইসলাম প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

গৌরনদী (বরিশাল) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, গৌরনদী থানা মাদরাসার মোহতামীম আলহাজ্ব ক্বারী আব্দুল আজিজের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ মিছিল ও বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা ওলামা পরিষদের অহ্বায়ক মাওলানা আবদুল বাতেন নোনাম, পৌর কৃষকলীগের অহবায়ক মো. আলমগীর হোসেন উকিল, উত্তর গেরাকুল কওমী মাদরাসা মোহতামীম মাওলানা মুফতি জামিল উদ্দিন, প্রমূখ

চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ মহাসড়কের আমতলীবাজারে মানববন্ধন ও সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে মাও. মতিয়ার রহমান কাসেমী, বিশেষ অতিথি হিসেবে জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি মাও. রফিকুল্যাহ মাজহারী এবং অন্যান্যের মধ্যে রাবেতা ওলামাউল মাদারিস চিরিরবন্দর উপজেলা শাখার সভাপতি মাও. আনোয়ারুল ইসলাম, সম্পাদক মাও. জিয়াউল হক, প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।



 

Show all comments
  • Mannan Bhuiyan ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১২:৫১ এএম says : 0
    বেজাতি সংঘের কাছে বিচার চেয়ে লাভ নাই....
    Total Reply(1) Reply
    • twocents ৯ নভেম্বর, ২০২০, ৬:১১ এএম says : 0
      That's correct. There's no legal provision that the international court can use to prosecute Macron.
  • Ñêgléçtëd ßøý Räjû ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১২:৫২ এএম says : 0
    আগে ভারতে ব্যবস্থা নিতে হবে,ভারতীয়রা দিনে দিনে মাথায় উঠে যাচ্ছে
    Total Reply(0) Reply
  • Babar ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১২:৫২ এএম says : 0
    সহমত,
    Total Reply(0) Reply
  • Alif Nur Apun ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১২:৫৬ এএম says : 0
    ইসলাম বিদ্দেশিরা তোরা দেখে নে কলিজায় সামান্য পরিমাণ ভিতি থাকলে ইসলাম নিয়ে বাজে কথা বলার সাহস যেন না হয়!!!
    Total Reply(0) Reply
  • Md Jabed ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১২:৫৭ এএম says : 0
    ফ্রান্স নয় বাংলাদেশের ই কারো কারো ভয়ের কারন হয় এত মানুষ একসাথে দেখে
    Total Reply(0) Reply
  • Monir Hossein Vhuiyan ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১২:৫৭ এএম says : 0
    সৌদি আরবের কবে হুস ফিরবে? যেখানে আমাদের কলিজার নবীর জন্ম তাদের কোন প্রতিবাদ নেই। সৌদি আরবে কে বলছি বাংলাদেশের কাছথেকে শিখে নাও।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Nazrul Islam Khan ৯ নভেম্বর, ২০২০, ৬:১৯ এএম says : 0
    ম্যাখোঁর দুই গালে জুতা মারো তালে তালে’ ফাঁসি চাই ফাঁসি চাই, ম্যাখোঁর ফাঁসি চাই’ নাস্তিকদের ফাঁসি চাই, ইসলামবিদ্বেষীদের ফাঁসি চাই’। মহানবীর অবমাননার দায়ে জাতিসংঘের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক আদালতে বিচার করে দেশটির প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁ’র ফাঁসি দিতে হবে। ওআইসিভুক্ত দেশগুলো থেকে ফরাসি দূতাবাস প্রত্যাহার করতে হবে। অবিলম্বে ব্লাসফেমি আইন পাস করতে হবে। যতদিন ব্লাসফেমি আইন পাস হবে না ততদিন আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। VERY GOOD DEMAND.
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ৯ নভেম্বর, ২০২০, ৭:২৩ এএম says : 0
    মূর্তি বানাইলো যে বাংলাদেশের জনগণের স্থানে থাকে ও ফাঁসি দিতে হইবে। ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply
  • MD Mahmudul Hasan salehe ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১০:১৭ পিএম says : 0
    সহমত।নবিজের অপমানে জীবন দিতে প্রস্তুত আছি। ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফ্রান্সে মহানবী (সা.)
আরও পড়ুন