Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ২৯ চৈত্র ১৪২৭, ২৮ শাবান ১৪৪২ হিজরী

গ্রেফতার জালে যেভাবে জড়ালো আকবর !

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৯ নভেম্বর, ২০২০, ৪:৫৬ পিএম

রায়হান মৃত্যুর প্রায় একমাসের মাথায় আজ সোমবার (৯ নভেম্বর) দুপুরে সিলেটের সীমান্তবর্তী কানাইঘাট উপজেলার লক্ষীপ্রসাদ ইউনিয়নের ডনা সীমান্ত এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে মূল অভিযুক্ত (সাময়িক বরখাস্তকৃত) বন্দর ফাঁড়ির সাবেক ইনচার্জ আকবর হোসেন ভূঁইয়াকে। প্রথমে জনতার হাতে আটক হন তিনি। পরে পুলিশ দ্রুত গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। ফেসবুকে আপলোডকৃত এক ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, স্থানীয় খাসিয়া সম্প্রদায়ের মানুষের হাতে প্রথমে পাকড়াও হন আকবর। এসময় নিজেকে বাঁচাতে কেঁদে ফেলেন আকবর এবং তাকে ছেড়ে অনুনয় করতে থাকেন। এসময় জনতা তাকে রশি দিয়ে বাঁধেন এবং পরে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। গত ১১ অক্টোবর রাতে রায়হান আহমদকে বন্দরবাজার ফাঁড়িতে তুলে নিয়ে নির্যাতন করা হয়। পরদিন সকালেই রায়হান মারা যান। এ ঘটনায় তার স্ত্রী বাদি হয়ে মামলা করলে এসএমপির একটি অনুসন্ধান কমিটি তদন্ত করে সত্যতা পায়। ১২ অক্টোবর ফাঁড়ির ইনচার্জের দায়িত্বে থাকা এসআই আকবর হোসেনসহ ৪জনকে সাময়িক বরখাস্ত ও ৩জনকে করা হয় প্রত্যাহার । ১৩ অক্টোবর পুলিশি হেফাজত থেকে পালিয়ে যায় আকবর। গা-ঢাকা দেয়ার ২৬ দিন পর আজ আজ পাকড়াও হলো আকবর। তারপর থেকে আকবর গ্রেফতারের দাবীতে উত্তাল হয়ে উঠে সিলেটের রাজপথ। এ ইস্যুতে ব্যাপক কর্মসূচী পালিত হয় সিলেটে। বদলি হন মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া। নবনিযুক্ত পুলিশ কমিশনার নিশারুল আরিফ সিলেটে পর্দাপণ করেই সাক্ষাত করেন রায়হান পরিবারে সাথে। কথা দেন যেভাবেই হোক আকবরকে ধরা হবে। তার আশ^াসে, শান্ত হন সিলেটবাসী। অবশেষে আকবর গ্রেফতারের মধ্যে দিয়ে মুখ রক্ষা হয় পুলিশের। নতুন কমিশনারের কথার বাস্তবতাতে আস্থাশীল হয়ে উঠেছে আমজনতা।  



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আকবর

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
৩০ নভেম্বর, -০০০১

আরও
আরও পড়ুন