Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

হলের দাবিতে জবি শিক্ষার্থীদের সর্বাত্মক ধর্মঘটের ডাক

প্রকাশের সময় : ১৮ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

জবি সংবাদদাতা : কেন্দ্রীয় কারাগারের জায়গায় জাতীয় চার নেতার নামে আবাসিক হলের দাবিতে ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করে ছাত্র ধর্মঘটের ঘোষণা দিয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত সাধারণ শিক্ষার্থীরা।
গতকাল বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সড়ক অবরোধ করে অবস্থান কর্মসূচি থেকে এ ধর্মঘটের ডাক দেন আন্দোলনরত সাধারণ শিক্ষার্থীরা। পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী গতকাল বুধবার জবি ক্যাম্পাস থেকে সকাল ১০টার দিকে প্রায় চার শতাধিক শিক্ষার্থীর একটি মিছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয় ঘেরাও করার উদ্দেশ্যে বের হয়। রায়সাহেব বাজার ও নয়াবাজার মোড়, বংশাল মোড়, গুলিস্তান ও গুলিস্তান মাজারের সামনে পুলিশের বাধার মুখে পড়েন শিক্ষার্থীরা। পুলিশের বাধা পেরিয়ে শিক্ষার্থীরা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে পৌঁছলে জলকামান নিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে পুলিশ বাহিনী। পরে সেখানেই সড়ক অবরোধ করে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা। এতে সদরঘাট, গুলিস্তান, পল্টন মোড় থেকে কদম ফোয়ারা পর্যন্ত আশপাশের বিভিন্ন সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শিক্ষার্থীরা প্রায় দুই ঘণ্টা যাবৎ রাস্তা অবরোধ করে বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে আন্দোলন অব্যাহত রাখেন। বেলা সাড়ে ১২টার দিকে প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে ২৪ ঘণ্টার ধর্মঘট দিয়ে পুনরায় মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসে ফিরে আসেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।
আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ বাধা প্রদান করেছে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের আইডি কার্ড ছিনিয়ে নিয়ে বিভিন্নভাবে আন্দোলন থেকে সরিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে। তারা আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে হল নির্মাণের সুস্পষ্ট ঘোষণা না পাওয়া পর্যন্ত তারা আন্দোলন থেকে সরবেন না।
উল্লেখ্য, নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের জমিতে হল নির্মাণের দাবিতে গত ১ আগস্ট থেকে টানা আন্দোলনে নামেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।
২০১৪ সালের ২৩ মার্চ কেন্দ্রীয় কারাগারের জমির দাবিতে জবি কর্তৃপক্ষ স্বরাষ্ট্র সচিব বরাবর আবেদন করে। কিন্তু এখনো এ বিষয়ে কোনো সাড়া মেলেনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন