Inqilab Logo

সোমবার, ০২ আগস্ট ২০২১, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮, ২২ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন রিজভীর

বিএসএমএমইউ চিকিৎসক

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০২ এএম

হৃদরোগে আক্রান্ত বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর হার্টের এমপিআই (মাইওকার্ডিয়াল পারফিউশন ইমেজিং) টেস্ট করা হয়েছে। অ্যাটাকের পর তার হার্টের সেল কতটা কার্যকর তা জানার জন্য এ পরীক্ষা করা হয়। এমপিআই টেস্টের রিপোর্ট অনুযায়ী তার উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন বিএসএমএমইউর চিকিৎসক বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মনোয়ারুল কাদির বিটু। ল্যাব এইডের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক প্রফেসর ডা. সোহরাবুজ্জামানের সঙ্গে পরামর্শ করে পরবর্তি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। হার্টের এনজিওগ্রাম করার ২৮ দিন পর গতকাল বুধবার বিএসএমএমইউতে নিউক্লিয়ার মেডিসিন বিভাগে এই পরীক্ষা করা হয়।

রিজভীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও বিএনপির সহ-স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম জানান, বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর হার্টের ভায়াবিলিটি (কার্যক্ষমতা) দেখার জন্য এই এমপিআই টেস্ট করা হয়েছে।

এ সময় বিএসএমএমইউর চিকিৎসক ডা. রফিকুল ইসলাম, ডা. মোফাখখারুল রানা, ডা. জাহাঙ্গীর আলম উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে গত ১৫ অক্টোবর ল্যাবএইড হাসপাতালে রিজভীর হার্টের এনজিওগ্রাম করা হয়। এ সময় তার হার্টে একটি ব্লক ধরা পড়লে ইনজেকশনের মাধ্যমে সেটির ৪০ থেকে ৪৫ শতাংশ অপসারণ করা হয়। এরপর ২৭ অক্টোবর ল্যাবএইড হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. সোহরাবুজ্জামানের নেতৃত্বে সাত সদস্যের মেডিকেল বোর্ড তার সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে। এ সময় তার ইকো কার্ডিওগ্রামও করা হয়।

শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় পরদিন ২৮ অক্টোবর রিজভীকে ল্যাবএইড হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। এরপর তিনি চিকিৎসকদের পরামর্শে শ্যামলীর আদাবরের বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। ডা. রফিকুল ইসলাম ও ডা. মনোয়ারুল কাদির বিটু বাসায় রিজভীর চিকিৎসার নিয়মিত খোঁজ-খবর রাখেন।

উল্লেখ্য গত ১৩ অক্টোবর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শ্রমিক দলের মানববন্ধন শেষে দলীয় কার্যালয়ে যাওয়ার সময় রিজভীর হার্ট অ্যাটাক হয়। প্রথমে তাকে কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ধানমন্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে তার এনজিওগ্রাম করা হলে হার্টে ব্লক ধরা পড়ে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিএসএমএমইউ

১১ এপ্রিল, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন