Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯ মাঘ ১৪২৭, ০৯ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

বাংলাদেশসহ স্বল্পোন্নত ৪৭ দেশের জন্য অব্যাহত থাকবে

যুক্তরাজ্যে শুল্ক সুবিধা

কূটনৈতিক সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

বাংলাদেশসহ বিশ্বের স্বল্পোন্নত ৪৭টি দেশ থেকে আমদানিতে শুল্ক সুবিধা অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে যুক্তরাজ্য। এতে দেশগুলোর ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারের মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়নে সহায়তা হবে বলে মনে করে দেশটি। এ ছাড়াও, দেশটির বিশ্বব্যাপী শুল্ক হারের তুলনায় স্বল্প ও নিম্ন-মধ্য আয়ের দেশগুলো স্বল্প শুল্কের সুবিধা পাবে বলে গত মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য, পররাষ্ট্র, কমনওয়েলথ ও উন্নয়ন দপ্তরের এক বিবৃতিতে জানানো হয়।

এমন দেশগুলোর যুক্তরাজ্যের সঙ্গে আগে কোনো বাণিজ্য চুক্তি না থাকলেও, বাণিজ্য অগ্রাধিকার প্রকল্পের অধীনে তারাও এ শুল্ক সুবিধা পাবে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

দেশটির আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিষয়ক মন্ত্রী লিজ ট্রাস বলেন, মুক্ত বাণিজ্য ব্যবসা উন্নয়নে সহায়তার পাশাপাশি, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও নতুন কর্মসংস্থান তৈরিতে সহায়ক। আমরা বিশ্বের দরিদ্র দেশগুলোকে যুক্তরাজ্যে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তাদের পণ্য রপ্তানি করার সুযোগ নিশ্চিত করতে চাই। তিনি বলেন, এটি উন্নয়নশীল অর্থনীতির দেশগুলোর শক্তিশালী শিল্প স্থাপনে, কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে এবং দীর্ঘমেয়াদে বিদেশি সহায়তার ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে সহায়তা করবে।

যুক্তরাজ্য গত বছর এ ধরণের স্বল্পোন্নত ও মধ্যম আয়ের দেশগুলো থেকে প্রায় আট বিলিয়ন ডলারের টেক্সটাইল ও তৈরি পোশাক আমদানি করেছে। যা যুক্তরাজ্যে মোট টেক্সটাইল ও পোশাক আমদানির ৩০ শতাংশ।
বিবৃতিতে বলা হয়, ব্রিটিশ আমদানিকারকরা বিশ্বের দরিদ্রতম দেশগুলো থেকে পোশাক ও শাকসবজির মতো পণ্যগুলো আমদানির ক্ষেত্রে শূন্য বা কম শুল্কহার দেওয়া অব্যাহত রাখবে।

বর্তমানে যে সব দেশ ইউরোপীয় ইউনিয়নের জেনারালাইজড স্কিম অব প্রেফারেন্স’র (জিএসপি) আওতায় বাণিজ্য অগ্রাধিকারের জন্য যোগ্য, সেগুলো যুক্তরাজ্যের জিএসপি সুবিধা পাবে বলেও বিবৃতিতে জানানো হয়। লিজ ট্রাস বলেন, এই পরিকল্পনা ব্রিটিশ ব্যবসায়ীদের ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগ করার পরেও, তাদের ব্যবসা নির্বিঘ্নে চালিয়ে যেতে সহায়তা করবে। পাশাপাশি ব্রিটিশ গ্রাহকরা সাশ্রয়ী মূল্যে তাদের পছন্দের পণ্য পেতে থাকবে।

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব বলেন, বিশ্বব্যাপী উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য যুক্তরাজ্য পছন্দের অংশীদার দেশ। আজকের ঘোষণায় আমরা বাণিজ্যে উদার দৃষ্টিভঙ্গি প্রকাশ করেছি। এটি অনেক উন্নয়নশীল দেশের বাণিজ্যে বৃহত্তর সমৃদ্ধির পথে স্বীকৃতিস্বরূপ।

 



 

Show all comments
  • Mustafizur Rahman Ansari ৮ ডিসেম্বর, ২০২০, ১:৪৫ এএম says : 0
    Good Decision
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাজ্যে


আরও
আরও পড়ুন