Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭, ১২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

বিয়ের পর জানা গেলো বউ অন্তঃসত্ত্বা : লম্পট ধর্ষকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা

শেরপুর জেলা সংবাদাতা | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০২০, ৪:৪৭ এএম

শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার নামাকৈয়াকুড়ি গ্রামে বিয়ের পর জানতো পারলো নববধূ অন্তঃসত্ত্বা। এ ঘটনাটি নিয়ে থানায় লম্পট ধর্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, গত ১৯ অক্টোবর নকলা উপজেলার নামাকৈয়াকুড়ি গ্রামের জনৈক ফজল হোসেনের ছেলে জাকিরুলের সাথে একই উপজেলার পাঠাকাটা ইউনিয়নের বহুর্দী গ্রামের এক যুবতীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর নববধূর শারীরিক পরিবর্তন ও চাল চলন দেখে সন্দেহ হলে শ্বশুর বাড়ীর লোকজন ওই নববধূর প্রস্রাব স্থানীয় একটি ক্লিনিকে পরীক্ষা করালে জানানো হয়, মেয়েটি ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এতে শ্বশুর বাড়ীতে তোলপাড় শুরু হয়।

পরে ওই নববধূ জানায়, চলতি বছরে জুলাই মাসের ২৭ তারিখে মেয়েটির প্রতিবেশী মৃত তোফাজ্জলের ছেলে ৪ সন্তানের জনক শফিকুল ইসলাম (৫০) বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধdকবার ধর্ষণ করে। পরে বিয়ের কথা বললে ভয়ভীতি দেখায়। এতে মেয়েটি গর্ভবতী হয়ে পড়ে। পরে সবার অজান্তে ১৯ অক্টোবর আনুষ্ঠানিকভাবে তার বিয়ে হয়।

এদিকে এ ঘটনায় লম্পট সফিকুলকে আসামী করে নকলা থানায় ওই নববধূর মা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন এ ঘটনাটি নিশ্চিত করে বলেন, আমরা আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষক আটক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ