Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

মেলানিয়ার সঙ্গে ডিভোর্স হলে ট্রাম্পকে গুনতে হবে পৌনে ৬শ’ কোটি টাকা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০২০, ৮:০৫ পিএম

সদ্য নির্বাচনে পরাজিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কেবল হোয়াইট হাউজই ছাড়ছেন না, স্ত্রী মেলানিয়াকেও হারাতে যাচ্ছেন বলে গুঞ্জন উঠেছে। যদি বাস্তবিকই বিচ্ছেদ হয় তাদের তবে বড় ধরনের আর্থিক ক্ষতির মুখোমুখি হবেন ট্রাম্প। মেলানিয়া ট্রাম্পের এক আইনী পরামর্শদাতা জানিয়েছেন, যদি ডোনাল্ড ও মেলানিয়ার ডিভোর্স বাস্তবায়িত হয়, তবে স্ত্রীকে খোরপোষ বাবদ ৬৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দিতে হবে ট্রাম্পকে।

১৫ বছর ধরে দাম্পত্য সম্পর্ক যাপন করছেন ৭৪ বছর বয়সী ট্রাম্প ও ৫০ বছর বয়সী মেলানিয়া। বিভিন্ন সময়ে দুইজনের সম্পর্ক নিয়ে গুঞ্জন উঠতে দেখা গেছে। তবে বেশ কয়েক বছর ধরেই এই সম্পর্কটা শুধু চুক্তির ছিল বলে জানিয়েছেন ঘনিষ্ঠরা। হোয়াইট হাউস ছাড়ার পরেই ট্রাম্প ও মেলানিয়ার ডিভোর্স হবে, এই খবর এরইমধ্যে চাউড় হয়েছে।
উল্লেখ্য, ট্রাম্পের আগের দুটি বৈবাহিক সম্পর্কেও খোরপোষ দিতে হয় তাকে। ট্রাম্পের দ্বিতীয় স্ত্রী মার্লা ম্যাপেলস ২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার খোরপোষ পেয়েছিলেন।
ট্রাম্পের প্রথম স্ত্রী ইভানা ট্রাম্প পেয়েছিলেন ১৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, সঙ্গে কানেকটিকাটে একটি প্রাসাদপম বাড়ি, নিউ ইয়র্কে একটি অ্যাপার্টমেন্ট, বছরে একবার করে ফ্লোরিডার বিলাসবহুল ম্যের এ ল্যাগো রিসর্টে ভ্রমণের সুযোগ।
এই প্রসঙ্গে ডেইলি মেইল নিজেদের প্রতিবেদনে উদ্ধৃত করেছে ট্রাম্প প্রশাসনের এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে। ওই কর্মকর্তা জানিয়েছেন, যে কোনো দিনই বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্টকে বিবাহ বিচ্ছেদের নোটিশ পাঠাতে পারেন বিদায়ী ফার্স্ট লেডি।
ওই কর্মকর্তা অতীতে মেলানিয়া ট্রাম্পের সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করেছেন। তার দাবি, ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার স্ত্রীর সম্পর্ক মোটেও ভালো নয়। দীর্ঘদিন ধরেই সম্পর্কে ফাটল ধরেছে তাদের। মেলানিয়া এই নির্বাচনের ফল বেরোনো পর্যন্ত অপেক্ষা করছিলেন বলে খবর। এরপরেই তিনি তার সিদ্ধান্ত জানাবেন বলে খবর।
মেলানিয়ার প্রাক্তন সহযোগি স্টেফনি ওয়োকঅফ ছিলেন আমেরিকার ফার্স্ট লেডির উপদেষ্টা। তিনি দাবি করেছেন হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প ও মেলানিয়া পৃথক ঘরে থাকতেন। তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিল শুধুমাত্রা আর্থিক লেনদেনের।
এই একই তথ্য দিচ্ছেন মেলানিয়ার আরেক সহকর্মী ওমারোসা ম্যানিগল্ট নিউমান। তিনিও জানিয়েছেন ট্রাম্প ও তার স্ত্রীর সম্পর্ক খাদের কিনারায় দাঁড়িয়ে রয়েছে। যে কোনো মুহুর্তে তা ভেঙে যেতে পারে। সূত্র: ডেইলি মেইল, কলকাতা ২৪



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন