Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৪ মাঘ ১৪২৭, ০৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

কাশ্মীরে ৩ ভারতীয় নিরাপত্তা কর্মীসহ নিহত ৭

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

জম্মু ও কাশ্মীরে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর তিনটি সেক্টরে গতকাল ভারত-পাকিস্তান গুলি বিনিময় হয়েছে। উরি সেক্টরে গোলাগুলিতে মৃত্যু হয়েছে ৩ নিরাপত্তা কর্মীসহ ৭ জনের। মৃতদের মধ্যে ৪ জন সাধারণ নাগরিক। এদিন পাক সেনার এলোপাথাড়ি গুলিতে বারামুলাতেও মারা গেছেন ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর এক জওয়ান।

ভারতীয় সেনা সূত্রে খবর, শুক্রবার দুপুরে প্রথমে বান্দিপোরা জেলার গুরেজ সেক্টর থেকে পাকিস্তানের সংঘর্ষবিরতির খবর মেলে। এর কিছুক্ষণ পর কুপওয়ারা জেলার কেরান সেক্টরেও গুলি চালায় পাকিস্তান। অপরদিকে, উরি সেক্টরেও সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে পাক সেনা। তিনটি সেক্টরেই ভারতীয় সেনার তরফেও পালটা জবাব দেয়া হয়েছে বলে খবর মিলেছে। ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এদিন উত্তর কাশ্মীরের বারামুল্লা জেলায় উরি সেক্টরের হাজিপুরে বিনা প্ররোচনায় যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে গুলিবর্ষণ শুরু করে পাক সেনা। ভারতীয় সামরিক ছাউনির পাশাপাশি সীমান্ত লাগোয়া জনবসতি লক্ষ্য করেও গুলিগোলা ছোড়ে পাকিস্তান। সেখানে প্রথমে গুলির আঘাতে মৃত্যু হয় এক বিএসএফ জওয়ানের। ভারতীয় সেনারও দুই জওয়ান শহিদ হন। তারা দুজনেই ৫৯ রেজিমেন্টের সদস্য ছিলেন। এছাড়াও চার সাধারণ মানুষেরও মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। তাঁদের মধ্যে একজন মহিলা, তিন পুরুষ। তাঁদের নাম ফারুকা বেগম, নাদির হুসেন, তাহির জালাউদ্দিন ও ইরশাদ আহমেদ। দিন কয়েক আগে ৭ ও ৮ নভেম্বরও মাছিল সেক্টর দিয়ে পাকিস্তানের তরফে বেআইনি অনুপ্রবেশ রুখে দিয়েছিল বাহিনী। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাশ্মীর

১ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ