Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৪ মাঘ ১৪২৭, ০৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

চুক্তি ভাঙলে ফল ভুগতে হবে আর্মেনিয়াকে : তুরস্ক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

বিতর্কিত অঞ্চল নাগরনো-কারাবাখ নিয়ে দীর্ঘ ছয় সপ্তাহের তুমুল রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর ফের রাশিয়ার মধ্যস্ততায় শান্তিচুক্তি করেছে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান। এর আগে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্ততায় আরও তিনবার শান্তি চুক্তি হলেও তা মানেনি কোনো পক্ষই।

তবে এবার তুরস্ক আর্মেনিয়াকে সতর্ক করে বলেছে, ‘আর্মেনিয়া যদি কোনোভাবে চুক্তিভঙ্গ করে, তা হলে তার ফল ভুগতে হবে। তুরস্কের সেনা আর্মেনিয়াকে শিক্ষা দেবে।’ বৃহস্পতিবার তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে ভাষণে এই হুঁশিয়ারি দেন। বলেছেন, বিতর্কিত এলাকায় শান্তি প্রতিষ্ঠাই রাশিয়ার পাশাপাশি তুরস্কও সৈন্য পাঠাবে।

এদিকে রাশিয়ার মধ্যস্ততায় এই শান্তিচুক্তি মানছেন না আর্মেনিয়ার সাধারণ জনগণ। তারা সমগ্র দেশে বিক্ষোভ করছে এবং প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করছেন। গেল সোমবার রাশিয়ার মধ্যস্থতায় আজারবাইজান, আর্মেনিয়া এবং রাশিয়ার মধ্যে একটি শান্তিচুক্তি স্বাক্ষর হয়। যেখানে আপাতত যুদ্ধ বন্ধের একটি ব্লু প্রিন্ট তৈরি করা হয়েছে। চুক্তিতে কার্যত জয় হয়েছে আজারবাইজানের। কারণ, নাগরনো-কারাবাখের অধিকাংশ এলাকা এখন আজারি সেনার হাতে। চুক্তিতে স্থির হয়েছে, নাগরনো-কারাবাখে যে যেখানে অবস্থান করছে, সেই এলাকা তার বলে বিবেচিত হবে। আর্মেনিয়া যেহেতু কার্যত এলাকা থেকে জমি হারিয়েছে, ফলে আজারি বাহিনী বিষয়টিকে নিজেদের জয় হিসেবেই দেখছে।

শান্তি বজায় রাখার জন্য রাশিয়ার মধ্যস্থতায় তিন দেশের চুক্তির পর রাশিয়া প্রায় দুই হাজার সৈন্য পাঠিয়েছে নাগরনো-কারাবাখে। তুরস্ক জানিয়েছে, তারাও সেখানে সেনা পাঠাবে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য।



 

Show all comments
  • Zillur Rahaman ১৪ নভেম্বর, ২০২০, ১:৩২ এএম says : 0
    মুসলমানদের নতুন সুলতান সুলেমান তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। মাহাথির মোহাম্মদের পর উদীয়মান মুসলিম নেতা। মুসলিমদের কল্যানে তার অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকুক।
    Total Reply(0) Reply
  • S M Mamonur RAshid ১৪ নভেম্বর, ২০২০, ১:৩২ এএম says : 0
    এর মাধ্যমে ফ্রান্সকে একটা কসিয়ে থাপ্পড় দেওয়া হয়েছে,প্রকারান্তরে আর্মেনিয়া এবং ফ্রান্স দুইজনেরই সমান পরাজয় হয়েছে। তুরস্ক তার শক্তি নতুনভাবে জানান দিতে শুরু করেছে।যেটা ভবিষ্যৎ মধ্যপ্রাচ্যে নতুন রাজনীতির সুচনা ঘটবে।
    Total Reply(0) Reply
  • MD Mamun ১৪ নভেম্বর, ২০২০, ১:৩২ এএম says : 0
    আর্মেনীয় জনগণ যেহেতু তার দেশের সরকারের বিরুদ্ধে! এখানে আর্মেনিয়ার ধ্বংস নিশ্চিত।
    Total Reply(0) Reply
  • Iqbal Al Shafi ১৪ নভেম্বর, ২০২০, ১:৩২ এএম says : 0
    নিজেদের অধিকারের জন্য লড়াই করা কোন অন্যায় নয় বরং তারাই অন্যায় করেছে যারা এতদিন এই দখলদারদের সহায়তা করেছে
    Total Reply(0) Reply
  • এম. এন. ইসলাম শামীম ১৪ নভেম্বর, ২০২০, ১:৩৩ এএম says : 0
    এখন আর্মেনিয়া আবার উচ্চবাচ্য করলে রাশিয়া বা তুরস্ক যে কেউ নাক গলাতে পারে।
    Total Reply(0) Reply
  • Rakib Hasan ১৪ নভেম্বর, ২০২০, ১:৩৩ এএম says : 0
    এরদোয়ান যেখানে হাত দেয় সেটাই স্বর্ন হয়ে যায়। আর্মেনিয়া কে কি শিক্ষাটাই না দিলো তুরস্ক।
    Total Reply(0) Reply
  • Salman ১৬ নভেম্বর, ২০২০, ৪:২৯ পিএম says : 0
    Sabas! sokol muslimder raja
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তুরস্ক

১৩ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন