Inqilab Logo

শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

বস্তিবাসীদের স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন নিশ্চিতে কাজ করছে ঢাকা ওয়াসা

ঢাকা ওয়াসা এবং ওয়াটার অ্যান্ড স্যানিটেশন ফর আরবান পুউর চুক্তি স্বাক্ষর

পঞ্চায়েত হাবিব | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১:০৭ পিএম, ১৪ নভেম্বর, ২০২০

বস্তিবাসীসহ রাজধানীর অন্যান্য অধিবাসীদের স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছে ঢাকা ওয়াসা। ২০৩০ সাল নাগাদ সাত কোটি ২০ লাখ মানুষকে উন্নত স্যানিটেশন সেবা দেওয়ার ব্যবস্থা করতে বাংলাদেশ সরকারকে সহযোগিতা করছে ইউনিসেফ। এর অংশ হিসেবে ঢাকা ওয়াসা কাজ শুরু করছে।
এ বিষয়ে ঢাকা ওয়াসা’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী তাকসিম এ খান ইনকিলাবকে বলেন বস্তিবাসীসহ রাজধানীর অন্যান্য অধিবাসীদের স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আমরা একটি প্রকল্পের কাজ শুরু করেছি। এরই মধ্যে উসাপ বাংলাদেশ এর সঙ্গে চুক্তি হয়েছে। উসাপ বাংলাদেশ মোট ৫টি ভ্যাকু ট্যাংক ঢাকা ওয়াসাকে হস্তান্তর করেছে। যা দিয়ে উল্লেখিত তিনটি এনজিও স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন সেবা নিশ্চিতের কাজ করবে।
ঢাকা ওয়াসার উপ-প্রধান জনতথ্য কর্মকর্তা এ. এম. মোস্তফা তারেক ইনকিলাবকে বলেন, ঢাকা ওয়াসা ভবনের কনফারেন্স সেন্টার’র বুড়িগঙ্গা হল-এ ঢাকা ওয়াসা এবং ওয়াটার অ্যান্ড স্যানিটেশন ফর আরবান পুউর (উসাপ) এর মধ্যে ভ্যাকুয়াম ট্যাঙ্ক হ্যান্ডওভার অ্যান্ড লিজ এগ্রিমেন্ট সাইনিং শিরোনামে এক চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। এটি বাস্তবায়ন হলেন বস্তিবাসীসহ রাজধানীর অন্যান্য অধিবাসীদের স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন সেবা পাবে।
জানা গেছে, ২০৩০ সাল নাগাদ সাত কোটি ২০ লাখ মানুষকে উন্নত স্যানিটেশন সেবা দেওয়ার ব্যবস্থা করতে বাংলাদেশ সরকারকে সহযোগিতা করছে ইউনিসেফ। শিশু, বিশেষ করে সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকা শিশুদের অধিকার রক্ষায় সরকার ও অংশীদারদের সঙ্গে কাজ করে। জরুরি পরিস্থিতিতে যখন শিশু ও কিশোর-কিশোরীরা সবচেয়ে নাজুক ও ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকে তখন তাদের নিরাপদ স্যানিটেশন ও হাইজিন সেবা দিতে কাজ করে এই জাতিসংঘ সংস্থা। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যের সঙ্গে সামঞ্জস্য বিধান করে বহুমুখী পদক্ষেপ নিয়েছে ঢাকা ওয়াসা। পাশাপাশি স্বাস্থ্য ও শিক্ষাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নিরাপদ পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা ও হাইজিন সেবার জন্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো ও সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে ঢাকা ওয়াসা। এর অংশ হিসেবে অনিরাপদভাবে আশপাশে মল ছড়ানো রোধ এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক, টেকসই ও সবাই সমান সুযোগ পায়, এমন পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা গড়ে তুলতে স্যানিটেশন ম্যানেজমেন্ট চেইনজুড়েই কাজ শুরু করবে ওয়াসা। স্কুলগুলোতে নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন ও পরিচ্ছন্নতার জন্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো থাকলে শিক্ষার্থী ভর্তি, উপস্থিতি, লেখাপড়া শেষ করার হার এবং প্রকৃত শিক্ষা গ্রহণের দিক দিয়ে উন্নতি হয়। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে হয়। ঢাকা ওয়াসা’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী তাকসিম এ খান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে ঢাকা ওয়াসার পক্ষে বাণিজ্যিক ব্যবস্থাপক উত্তম কুমার রায় এবং উসাপ বাংলাদেশ এর কান্ট্রি প্রোগ্রাম ম্যানেজার আবদুস শাহীন স্বাক্ষর করেন। এছাড়াও অনুষ্ঠানে আরও তিনটি আলাদা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় সেখানে ঢাকা ওয়াসার পক্ষে সিনিয়র কমিউনিটি অফিসার মীর মেহেদী হোসেন এবং দুস্থ স্বাস্থ্য কেন্দ্র এর নির্বাহী পরিচালক ড. দিবালোক সিংহ, হেলদি ট্যাংক বিডি এর প্রেপ্রাইটর শাহামিনা আলম এবং লিলি’স ফ্যামিলি লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রবীর দত্ত আলাদা আলাদাভাবে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। উসাপ বাংলাদেশ মোট ৫টি ভ্যাকু ট্যাংক ঢাকা ওয়াসাকে হস্তান্তর করেছে, যা দিয়ে উল্লেখিত তিনটি এনজিও স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন সেবা নিশ্চিতের লক্ষ্যে কাজ করবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঢাকা ওয়াসা

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ