Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৪ মাঘ ১৪২৭, ০৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

ক্ষমতায় এসে যে পরিবর্তনগুলো আনতে পারে বাইডেন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০২০, ১১:৩৪ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পরই ট্রাম্পের জারি করা আদেশের ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ-ই পুনঃর্বিবেচনা করবেন নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণ স্থগিত, প্যারিস জলবায়ু চুক্তিতে পুনবর্হালসহ ৭ মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে পারেন তিনি।
অবশ্য ট্রাম্পের গেল ৪ বছরে বিশ্ব নেতার মর্যাদা হারিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ওবামা আমলের প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে শুরু করে সবশেষ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহারের মতো কঠিন সিদ্ধান্তে দেখা গেছে ট্রাম্পকে।
আন্তর্জাতিক বিশ্লেষক ম্যাট লি বলেন, এটা মোটামুটি স্পষ্ট যে, দায়িত্ব নেয়ার প্রথম দিনেই তিনি হয়ত বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংস্থায় ফিরবেন। মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের সিদ্বান্ত প্রত্যাহার এবং অভিবাসন ইস্যুতে ট্রাম্প প্রশাসনের কড়াকড়ি অবস্থান থেকেও সরে এসে উদারনীতি গ্রহণ করবেন বাইডেন।    
বাইডেন প্রথমেই যা করবেন : ১. মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণ স্থগিত। ২. প্যারিস জলবায়ু চুক্তিতে পুনবর্হল। ৩. ইরানের সাথে পরমাণু চুক্তি পুনবর্হাল। ৪. ৭ মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার। ৫. ১ কোটি ১০ লাখ অবৈধকে নাগরিকত্ব প্রদান। ৬. বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় ফের অন্তর্ভূক্তি। ৭ মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার, শিশু বয়সে বৈধ কাগজ ছাড়া অভিবাসী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে আসাদের নাগরিকত্ব প্রদান করবেন বাইডেন। উত্তর কোরিয়ার পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে চেষ্টা থাকবে ৪৬তম প্রেসিডেন্টের। বলা হচ্ছে, চীনের আধিপত্য নিয়ন্ত্রণ এবং উত্তর কোরিয়ার পরমাণু হুমকি মোকাবিলায় জাপানকে কাছে নেবে, বাইডেন প্রশাসন।
বিশ্লেষকরা বলছেন, যুক্তরাষ্ট্র-ইইউ বাণিজ্যে সরাসরি যুক্ত অন্তত ১ কোটি ৬০ লাখ শ্রমিক; যারা গেল ৪ বছরে... ইউরোপীয় পণ্যে শুল্ক আরোপের ফলে বিপাকে পড়েছেন। দায়িত্ব নিয়েই ইউরোপের সঙ্গে বাণিজ্য সর্ম্পকও পুনঃবির্বেচনা করবেন বাইডেন। ভারত-পাকিস্তানসহ দক্ষিণ এশীয় নীতিতেও আসবে পরিবর্তন।
আন্তর্জাতিক বিশ্লেষক ম্যাট লি বলেন, আমার বিশ্বাস, বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিকতাবাদকে সমুন্নত করবেন এবং সেখানে থাকবে বহুত্ববাদ। বিশেষ করে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানেও যুক্তরাষ্ট্রের কতৃত্ব বাড়বে। ধারণা করা হচ্ছে, দায়িত্ব নেয়ার পরপরই ট্রাম্পের জারিকৃত নির্বাহী আদেশের ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ-ই পুনঃর্বিবেচনা করবেন নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সূত্র : রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন

১৪ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন