Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৪ মাঘ ১৪২৭, ০৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কথা নেই, বার্তা নেই বাসে আগুন লাগালো: প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০২০, ১১:০৪ এএম | আপডেট : ১১:০৮ এএম, ১৬ নভেম্বর, ২০২০

ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় হঠাৎ বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনায় বিএনপির জড়িত থাকার ব্যাপারে ইঙ্গিত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে জাতীয় সংসদের বিশেষ অধিবেশনে রোববার (১৫ নভেম্বর) রাতে সাধারণ আলোচনায় অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার করোনাভাইরাস মোকাবিলায় বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগ নিয়েছে। এর মধ্যে কোনো কথা নেই, বার্তা নেই কয়েকটি বাসে আগুন দেওয়া হলো। কেন, কী স্বার্থে, কীসের জন্য? নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার নামে অংশগ্রহণ করে। টাকা-পয়সা যা পায় পকেটে নিয়ে রেখে দেয়। নির্বাচনের দিন নির্বাচন করে না, এজেন্টও দেয় না, কিছুই করে না। মাঝ পথে নির্বাচন বয়কটের নাম দিয়ে বাসে আগুন দিয়ে একটা পরিস্থিতি তৈরি করতে চায়। এদের উদ্দেশ্যটা কী?

শেখ হাসিনা বলেন, আজকে বাংলাদেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে, সারা দেশের মানুষ একদিকে করোনা মোকাবিলা করছে; একদিকে করোনা সামলাচ্ছি আরেকদিকে দেশের অর্থনৈতিক গতিধারা যাতে সচল থাকে সে ব্যবস্থা নিয়েছি। বিশেষ প্রণোদনা দিয়েছি। টাকা-পয়সা যেখানে যা দরকার দিয়ে আমরা মানুষের জীবনটা সচল রেখেছি। ভ্যাকসিন আবিষ্কার হচ্ছে, আমরা ভ্যাকসিন কেনার টাকা-পয়সা রেখে দিয়েছি। যখনই চালু হবে তখনই যেন আমরা পাই, সেই ব্যবস্থাটাও করে রেখেছি। যখন যা দরকার সেটা আমরা করে যাচ্ছি। তাহলে অভিযোগটা কোথায়?

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা অনেক দূর কাজ এগিয়েছি, দারিদ্র্যের হার কমিয়েছি। বাংলাদেশ বিশ্বে যে একটা ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে চলতো, এখন আর ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে চলে না। নিজেদের বাজেট নিজেদের অর্থে দিতে পারি। চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলাম পদ্ম সেতু নিজেদের অর্থে করব, সেটা আমরা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি। স্বাক্ষরতার হার বৃদ্ধি করেছি, চিকিৎসা সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছি।
মুজিববর্ষে জাতীয় সংসদের বিশেষ অধিবেশনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উত্থাপন করা সাধারণ প্রস্তাব সংসদে গৃহীত হয়েছে। প্রস্তাবটি গ্রহণের আগে ১৯৭২ সালের ৪ নভেম্বর বাংলাদেশের সংবিধান গ্রহণের সময় গণপরিষদে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ সংসদ কক্ষে শোনানো হয়। গত ৯ অক্টোবর সংসদের কার্যপ্রণালী বিধির ১৪৭ বিধির আওতায় শেখ হাসিনা এ প্রস্তাব এনেছিলেন। নোটিস আকারে তার প্রস্তাব উত্থাপনের পর এ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।

আলোচনা শেষে রোববার রাতে প্রস্তাবটি স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী ভোটে দিলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়। প্রস্তাবটি পাসের পর স্পিকার বলেন, এর মধ্যে দিয়ে বিশেষ অধিবেশন সমাপ্তি হল। এরপর সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত স্পিকার সংসদের বৈঠক মুলতবি করেন।



 

Show all comments
  • Nadim ahmed ১৬ নভেম্বর, ২০২০, ১১:৪৫ এএম says : 0
    PM's speech is so good to hear, 17 crore Bangladeshi are so happy to hear this speech that they won't complain even if they don't find anything to eat for the next few days.
    Total Reply(0) Reply
  • Md Rejaul Karim ১৬ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০৪ পিএম says : 0
    আপনি মানুষ হিশাবে কেমন তা অন্যজনের কাছে প্রকাশ করতে যাবেন না শুধু আপনার ভিতরে সততার একটা বীজ রোপন করে যান সময়ে সব প্রকাশ হয়ে যাবে ।।।
    Total Reply(0) Reply
  • Jack Ali ১৬ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০৭ পিএম says : 0
    Who is doing what crime in our Beloved country Allah's CCTV recorded every aromatic crime they have committed. Still there is time to repent and rule our beloved country by the Law of Allah only then we the general people can have security of basic human right. If we claim we are follower of Prophet [SAW] then must read the Life story of our Beloved Prophet the best Human Being ever walked on earth and also Shabah's life story and also we must read 4 rightly guided Khaliph.
    Total Reply(0) Reply
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৬ নভেম্বর, ২০২০, ৪:৪৬ পিএম says : 2
    আপনি আন্তর্জাতিক ভাবে অনেক গুলো গুরুত্বপূর্ণ সম্মান মর্যাদাপূর্ন‍্য পুরুষ্কার পেয়েছেন। বিশ্ব মানবতার মা মর্যাদা সম্মান জনক পুরুষ্কার নোবেলজয়ী সম্মানের চায়তে বেশী আপনি। বাংলাদেশের রক্তাক্ত জনপদকে শান্তির জনপদ বানিয়ে পার্বত‍্য চট্টগ্রামের শান্তি প্রতিষ্টাকারী। বঙ্গবন্ধু নামে স‍্যাটেলাইট বানিয়ে কক্ষপথের আকাশ বিজয়ী ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রতিষ্টাতা। মানচিত্রে একলক্ষ সতের হাজার বর্গকিলোমিটরের সাগর বিজয়ের সূর্য সারথী। ব্লুইকোনিমি সাগর সম্পদের মহাপরিকল্পনা মধ্যে বাংলাদেশের অর্থনীতি শক্তিশালী হবে ইনশাআল্লাহ। ট্রিলিয়ন ট্রিলিয়ন ডলারের রিজার্ভের স্বপ্ন সারথী আপনার মাঝেই বাংলাদেশ হবে। আপনার পক্ষেই সম্বব। বালাদেশের পদ্ধাসেতু গভীর ষড়যন্ত্রের স্বীকার হয়েছিল। আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থাগুলো মুখ ফিরিয়ে নিলেন। বিশ্ব ব‍্যাংকের চুক্তি বাতিল। মিডিয়া বাংলাদেশের সংবাদ পত্রে শিরোনাম হলো। রাষ্ট্রের বদনাম হলো। বঙ্গবন্ধুর রক্তের শক্তিশালী কন্টস্বর আপনি বললেন পদ্নাসেতু হবেই। কারো অর্থনৈতিক সহযোগিতা ছাড়া। বাংলাদেশের নিজস্বঅর্থায়নে এটি রাজনৈতিক বক্তব্য ছিলনা কঠিন চ‍্যালেঞ্জ গ্রহণকারী ছিলেন। আজ পদ্নাসেতু দিশ‍্যমন। লক্ষকোটি শোকরিয়া। বাংলাদেশ আপনার কাছে নিরাপদ। বাংলাদেশের বিরাট অর্থনৈতিক কর্মযজ্ঞ চলছে বিশালাকার অর্থনৈতিক পরাশক্তি হওয়ার কঠিন চ‍্যালেঞ্জ সামনে। স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের সত্যিকারের অতদ্র প্রহরী আপনি। এগিয়ে যাও মা জননী মাননীয় প্রধান মন্ত্রী বাংলাদেশের মানুষের জীবন মান উন্নয়ন অগ্রগতির জন্যে। প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বের মাঝেই বাংলাদেশ অর্থনৈতিক পরাশক্তি হওয়ার অনেক গুলো সুচকে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ । ব্লূইকোনিমি সমুদ্র সম্পদ অর্থনীতির দোয়ার খুলে দেবে। আজ বাংলাদেশ শক্তিশালী মর্যাদাবান পরিচয় আপনার দিনরাত কঠোর পরিশ্রমের ফল। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ ক্ষুদা দারিদ্র মুক্তির সংগ্রাম অতিক্রম করে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে যাচ্ছেন। কঠিন অর্থনৈতিক যুদ্ধের ময়দানে মা জননী আপনি।বাংলাদেশের আটার কোটি মানুষের স্বার্থে। বিশ্বের প্রভাবশালী নেতাদের মাঝেই আপনি একজন। আপনার নিরাপত্তা বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক মানে হওয়া জরুরী রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব‍্যাক্তি ও প্রতিষ্টান নিরাপত্তাব্যবস্থা নিয়োজিত সমস্ত বাহিনী। বঙ্গবন্ধুর কন‍্যা বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ মর্যাদাবান মহান নেতা। তাহার মাঝেই ভবিষ্যতের বাংলাদেশ। আল্লাহ্ আপনাকে সুস্থতার মাঝে রাখুন আপনার দীর্যাযু কামনা করছি।
    Total Reply(0) Reply
  • habib ১৬ নভেম্বর, ২০২০, ৬:০৭ পিএম says : 0
    Apnara mone koren desher manus sobai buka......
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ