Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৭ মাঘ ১৪২৭, ০৭ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ফেসবুক লাইভে দা উঁচিয়ে সাকিব আল হাসানকে হুমকি দিল সিলেটের মহসিন

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০২০, ৬:০৮ পিএম | আপডেট : ৭:৫৮ পিএম, ১৬ নভেম্বর, ২০২০

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লাইভ ভিডিওতে দা উঁচিয়ে ক্রিকেট বিশে^র শীর্ষ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন সিলেটের এক যুবক। রোববার দিবাগত রাত ১২টা ৭ মিনিটে নিজের ফেসবুক ভিডিওতে এ হত্যার হুমকি প্রদান করে মহসিন তালুকদার নামের এক যুবক। সে সিলেট সদর উপজেলার শাহপুর তালুকদারপাড়ার আজাদ বক্স তালুকদারের পূত্র। মহসিন তার নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ‘Mohsin Talukdar ‘ থেকে প্রচার করেন এই লাইভ ভিডিওটি। সম্প্রতি কালীপূজার এক অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হয়ে কলকাতায় যান সাকিব। সেখানে যাওয়ায় বিক্ষুব্ধ হয়ে তাকে কুপিয়ে-টুকরো করে হত্যার কথা বলেন এ যুবক। এসময় অকথ্য ভাষায় সাকিবকে গালাগাল করতে থাকেন তিনি। এ ভিডিওতে মহসিন নিজের পরিচয় প্রকাশ করে বলেন, সাকিবকে হত্যা করতে প্রয়োজনে হেঁটেই ঢাকা যাবেন তিনি। এরপর ভোর ৬টা ৪ মিনিটে আবারো একটি লাইভ ভিডিওতে হাজির হয়ে রাতের উত্তেজিত ভিডিওর জন্য দুঃখ প্রকাশ করে সাকিব আল হাসানকে জাতির উদ্দেশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানান তিনি।

এ সময় তিনি বলেন, কারো চাপে এখন এ ভিডিওটি নির্মাণ করছেন না বরং সাকিবকে একটা সুযোগ দেয়ার জন্য ও সাকিবের মতো বাকি সকল সেলিব্রেটিদের সঠিক পথে চলার বার্তা দিতে আবার লাইভ করেন তিনি। ভিডিওত ওই যুবককে বলেন, ‘সাকিব আল হাসান কয়দিন আগে দেশে আইছইন। কিছুদিন আগে তাইন হজে গেছিলা, তখন খুশি হইছিলাম। কিন্তু তাইন ইবার দেশে আইয়া আবার গেলাগি ইন্ডিয়াত পূজা উদ্বোধন করাত। ইটায় মুসলমানের কলিজায় আঘাত করছে। আমি ফাইলে তারে (একটি চাপাতি প্রদর্শন করে) তারে কোপাইয়া কোপাইয়া কাটিমু।’ এমনকি সাকিব আল হাসানকে গালিগালাজ করে পাকিস্তানের ক্রিকাটারদের অনুসরণ করার কথা পরামর্শ দিয়ে ওই যুবক বলেন, ‘তুই কিতা পাকিস্তানের ক্রিকেটাররারে দেখছস না? তোর তো তারারে দেখা উচিৎ। তুই মুসলমানের বাচ্চা হইয়া গেছোস পূজা উদ্বোধন করাত। কলিজাত তুই অলা আঘাত দিছস। তোরে ফাইলে আমি কোপাইয়া কাটিমু। সবাই হুনিয়া রাখইন আমি মহসিন তালুকদার কইরাম। সাকিবরে ফাইলে আমি কোপাইয়া কাটিমু।’ তার দুটি ভিডিও সোমবার (১৬ নভেম্বর) বিকেল পর্যন্ত ফেসবুক থেকে সরানো হয়নি। স্থানীয় টুকেরবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শহিদ আহমদ বলেন, তবে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে এভাবে প্রকাশ্যে হুমকি অবশ্যই নিন্দনীয় বিষয়’।
এসএমপির অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) এবিএম আশরাফ উল্লাহ তাহের জানান, সাকিব বাংলাদেশ তথা বিশ্বের সম্পদ। তাকে প্রাননাশের হুমকির বিষয়টি নিয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
তিনি আরো বলেন, সাকিবের বিষয়টি দু দেশের মধ্যকার ধর্মীয় সম্প্রীতির একটা উদাহরণ।

গত বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপের প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে সাকিবকে দলে নেয় জেমকন খুলনা। সেদিনই ভারতের কলকাতার কাঁকড়গাছি সম্মিলিত সর্বজনীন শ্যামাপুজো এক অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণ পেয়ে ভারতে যান তারকা অলরাউন্ডার। পরদিন শুক্রবার দেশে ফিরে আসেন তিনি।



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৬ নভেম্বর, ২০২০, ৮:৪৫ পিএম says : 1
    ফেসবুকে সাকিব কে হত্যার হুমকি মর্মাহত হলাম। সাকিব আল হাছান ক্রিকেট বিশ্বের অত্যন্ত জনপ্রিয় এক উচু মানের খেলোয়াদের মাঝেই একজন তার আচারণ কথাবার্তা বাংলাদেশের মানুষের কাছে অনুসরণীয়। তার ষ্টাইল তার দুঃখ বেদনা তার ধর্মীয় আচার আচারণ সব কিছুই মানুষ জানতে চেষ্টা করেন। সর্বশেষ ঘটনা ভারতে শ‍্যামা পূজা কালী পূজার উদ্বোধনী অনূষ্টানের প্রধান অথিতি প্রদীপ জালিয়ে শুভকামনা ইত্যাদি ইত্যাদির কারণে লক্ষকোটি সাকিব অনুরাগীরা অত্যন্ত মর্মাহত হয়ে ছেন। এতে সাকিবের কিছুই জায় আসেনা। কলকাতার পূজারী পুরোহিতের মত শ‍্যামা পূজা উদঘাপনের ব‍্যাপারে কিছুই বলছেন না। মুসলমান হয়ে নামাজ পড়বে হজ্বে ও যাবে। আবার পুরোহিতের মত পূজার উদ্ধোধন করবেন। বাংলাদেশের দূর্গাপূজায় অনেক পূজায় দেশের শীর্ষস্থানীয় ব‍্যাক্তিরা যাচ্ছেন। যায়। এটিও একজন মুসলমান হিসাবে যেতে পারেনা। হিন্দুরা মুসলমানদের ধর্মকর্মে দাওয়াত দিতে পারে না। আমাদের মসজিদে হিন্দুরা নামাজ পড়তে কখনও না। যার যার ধর্মকর্ম ধর্মের শৃংখলা নিয়ম বিধি বিধান আছে। নাস্তিকরা কোন ধর্ম মানেনা। ইসলামের বিধান দোলনাহতে কবর পযর্ন্ত সুশৃঙ্খল ভাবে পবিত্র কোরান সুন্নাহে লিপিবদ্ধ আছে। মুসলমান পরকালে বিশ্বাসীরা তার ভাল মন্দ কাজের প্রতিদান আল্লাহ্ কতৃক নিদ্ধারীত হয়েই আছেন জালেম প্রথমে হিন্দুরা তাদের ধর্মীয় অনুষ্টানের অথিতি কেন মুসলিম হবেন। সাকিব আল হাসান এই নামটি তার পিতামাথা রেখেছেন এর নামের মর্যাদা নষ্ট করেদিলে কেন??আজবাংলাদেশের মানুষ তোমাকে হত‍্যারজন্যে ফেইসবুক হুমকি দিচ্ছে। কিছু উগ্রপন্থী উগ্রবাদীতো আছে। জীবনের নিরাপত্তা হুমকির মধ্যে পেলে দিলে তুমি কেন? তোমাকে অত্যন্ত স্নেহ করতাম আমার একটি ছেলের নামও হাছান সারাবিশ্বে তোমার পরিচয় প্রথমে মুসলিম। তারপরবাঙ্গালী। তারপর বাংলাদেশী। সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তোমার ভূলের ক্ষমা চাও প্রয়োজনে আলেমদের কাছে গিয়ে করনীয় ঠিক কর। ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়াতে আলোচনা সমালোচনা হচ্ছে। কখন আবার ফতোয়ার মধ্যে পড়ে যাও যাওয়ার সম্ভাবনা ও আছে। আল্লাহর ভয়ের কারণে যদি তোওবা করতে হয় করো। এতে দোষারোপের কিছু নেই। আমাদের মতামতের গুরুত্ব নেই। লিখার জন্যে লিখা। হেদায়েতের মালিক আল্লাহ্।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ