Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

কাপড়ের ট্রাক ছিনতাই ট্রাক ও ছিনতাইকারী আটক

সরকার আদম আলী, নরসিংদী থেকে : | প্রকাশের সময় : ১৮ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

 ট্রাক ছিনতাইয়ের ১২দিন অতিক্রান্ত হলেও ৬০ লক্ষাধিক টাকার লুণ্ঠিত কাপড় উদ্ধার করতে পারছে না কালিহাতী থানা পুলিশ। কাপড়ের আড়তদার বাবুরহাটের ব্যবসায়ী মো. ইমাম হোসেন জীবনের কষ্টার্জিত সম্পদ হারিয়ে পাগলপ্রায় হয়ে গেছে। বাড়িঘর সন্তান-সন্ততি ছেড়ে লুণ্ঠিত কাপড়ের জন্য কালিহাতী এলাকায় হন্যে হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। কিন্তু ছিনতাই ঘটনার কোনই কিনারা হচ্ছে না। 

আড়তদার ইমাম হোসেন জানিয়েছেন, গত ৬ নভেম্বর নরসিংদীর শেখেরচর বাবুরহাট থেকে ৬০ লক্ষাধিক টাকার বিভিন্ন ধরনের ৩৬ বেল কাপড় মারিয়া এন্টারপ্রাইজের একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ট-১৪-৪২২৯) ভর্তি করে নওগাঁর উদ্দেশ্যে প্রেরণ করে। ট্রাকের ড্রাইভার ছিল রবিউল আওয়াল এবং কাপড়ের স্কর্ট ছিল মো. আলামিন। রাত সাড়ে দশটায় ট্রাকটি টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব থানাধীন মহাসড়কের ৩নং ব্রিজ সংলগ্ন পূর্বপাশে পৌঁছার সাথে সাথে পেছন দিক থেকে একটি প্রাইভেটকার ওভারটেক করে সামনে গিয়ে ট্রাকটির গতিরোধ করে। এরপর প্রাইভেটকার থেকে মুখোশধারী তিনজন ছিনতাইকারী নেমে কাপড়ের স্কর্ট আলামিনকে গাড়ি থেকে নামিয়ে প্রাইভেটকারে উঠিয়ে এলেঙ্গার দিকে নিয়ে যায়। এরপর টাকের পেছন দিক থেকে একজন ছিনতাইকারী ট্রাকের কেবিনে ঢুকে ড্রাইভারকে স্টিয়ারিং থেকে সরিয়ে স্টিয়ারিং দখল করে নেয়। পরে আরো দুইজন কেবিনে উঠে দুই দিক থেকে ড্রাইভারকে ছুরি উঁচিয়ে ধরে রাখে। এই অবস্থায় ছিনতাইকারীর ড্রাইভ করে কালিহাতী লিংক রোড দিয়ে রেল লাইনের কাছে রাস্তার ওপর দিয়ে চলে যায়। এসময় ৭/৮ জন ছিনতাইকারী কালো রংয়ের একটি হাইয়েস গাড়ি নিয়ে ট্রাকের কাছে গিয়ে ড্রাইভার রবিউল হেলপার ফজলুর রহমান জোরপূর্বক গাড়িতে উঠিয়ে কাপড় দিয়ে চোখ, মুখ ও হাত বেঁধে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায় এবং কয়েকটি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। ট্রাকটি অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে ছত্রিশ বেল কাপড় লুট করে নিয়ে যায়। কাপড় লুণ্ঠন শেষে ৭ নভেম্বর সাড়ে আটটায় ড্রাইভার রবিউল হেলপার ফজলুর রহমান ও কাপড়ের স্কর্ট আলামিন কে হাত-পা ও চোখ বেঁধে টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী থানার পানকাতা বাজার সংলগ্ন একটি মাদরাসার পাশে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে লোকজনের সহযোগিতায় তারা বাঁধন মুক্ত হয়ে ঘটনাটি আড়তদার ইমাম হোসেনকে অবহিত করে। ইমাম হোসেন ও দুজন আড়তদারকে ঘটনাস্থলে গিয়ে সবকিছু শুনে কালিহাতী থানায় ৭ নভেম্বর মামলা করে।
এ ব্যাপারে থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা জানান, ট্রাক উদ্ধার হয়েছে। ছিনতাইকারীও ধরা পড়েছে। লুণ্ঠিত কাপড় উদ্ধারে চেষ্টা অব্যাহত আছে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আটক


আরও
আরও পড়ুন