Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯ মাঘ ১৪২৭, ০৯ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

মুক্ত অঞ্চল পরিদর্শনে আজারবাইজের প্রেসিডেন্ট আলিয়েভ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ নভেম্বর, ২০২০, ১০:৫০ এএম

দীর্ঘ ২ মাসের ব্যবধানে যুদ্ধ শেষে এখন চলছে নাগার্নো-কারাবাখের উদ্ধারকৃত অঞ্চলের সংস্কার। আর বাকী অঞ্চল থেকে সরে যাচ্ছে আর্মেনিয়ার সেনারা।

এদিকে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ বলেছেন, ইরানের সঙ্গে তার দেশের সীমান্ত হচ্ছে শান্তি ও বন্ধুত্বের। আর্মেনিয়ার কাছ থেকে সদ্য উদ্ধারকৃত জাব্রাইল জেলা পরিদর্শনের সময় তিনি মঙ্গলবার এ কথা বলেন।

জাব্রাইল জেলাটি ইরান সীমান্তে অবস্থিত। নাগার্নো-কারাবাখ যুদ্ধে এই জেলার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এবং বহু ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়েছে। জাব্রাইল জেলা পরিদর্শনের সময় আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট বলেন, এই জেলাকে আবারও গড়ে তোলা হবে এবং এই অঞ্চল প্রাণবন্ত হয়ে উঠবে।

ইরান সীমান্তের কাছের এই জেলাটি ১৯৯৩ সালে দখল করে নিয়েছিল আর্মেনিয়া। এরপর সম্প্রতি আর্মেনিয়ার দখল থেকে এই জেলাটিকে মুক্ত করেছে আজারবাইজানের সামরিক বাহিনী।

গত মঙ্গলবার রাশিয়ার তত্ত্বাবধানে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান নাগার্নো-কারাবাখে যুদ্ধ বন্ধে সম্মত হয়েছে। এই দুই দেশের স্বাক্ষরিত চুক্তিতে বলা হয়েছে, আর্মেনিয়া দখলীকৃত অগদাম, লাচিন ও কালবাজার এলাকা আজারবাইজানের কাছে হস্তান্তর করবে।

চুক্তি অনুযায়ী কারাবাখ অঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য আজারবাইজানের লাচিনকে করিডোর হিসেবে ব্যবহারের অনুমতি পাবে আর্মেনিয়া। তবে এর বিনিময় আর্মেনিয়াও আজারবাইজান ও নাখচিভান প্রজাতন্ত্রের মধ্যে পণ্য আনা-নেয়ার জন্য করিডোর সুবিধা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। পার্সটুডে



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আজারবাইজান


আরও
আরও পড়ুন