Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৮ মাঘ ১৪২৭, ০৮ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

প্রমাণ দিতে পারলে রাজনীতি ছেড়ে দেবো

জিয়াকে ‘প্রথম প্রেসিডেন্ট’ প্রসঙ্গে সুবিদ আলী ভূঁইয়ার চ্যালেঞ্জ

প্রকাশের সময় : ১৯ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : জিয়াউর রহমানকে দেশের ‘প্রথম প্রেসিডেন্ট’ দাবির বিষয়টি অস্বীকার করেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব) সুবিদ আলী ভূঁইয়া। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানকে ‘প্রথম প্রেসিডেন্ট’ বলার বিষয়টি কেউ প্রমাণ করতে পারলে আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব। গতকাল সংসদ ভবনের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ ঘোষণা দেন।
সুবিদ আলী বলেন, আমি জিয়াউর রহমানকে প্রথম প্রেসিডেন্ট দাবি করি নি। আমি জিয়াউর রহমানকে প্রথম প্রেসিডেন্ট দাবি করেছি; কেউ এটা প্রমাণ করতে পারলে রাজনীতিই ছেড়ে দেব।  বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সরকারি প্রতিষ্ঠান সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক নিয়ে আমাকে জড়িয়ে যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, তা মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। ওই বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে সুবিদ আলী বলেন, বুধবার বৈঠকে আলোচনার একপর্যায়ে আমি বলি, মেজর জিয়া বেতার ভাষণে প্রথমে ভুল করে নিজেকে হেড অব দ্য স্টেট ঘোষণা দিলেও পরে তিনি (জিয়া) ঘোষণায় বলেছেন, অন বিহাফ অব আওয়ার গ্রেট লিডার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
গণমাধ্যমে তাকে নিয়ে ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’, ‘মিথ্যা’ ও ‘বানোয়াট’ খবর প্রকাশিত হয়েছে বলে দাবি করেন সাবেক এই সেনা কর্মকর্তা। তিনি বলেন. আমি দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে বলতে চাই, আমি জিয়াউর রহমানকে ‘প্রথম প্রেসিডেন্ট’ কখনও বলিনি। আমার বক্তব্যের কোনও পর্যায়েই এই ধরনের উদ্ধৃতি ছিল না। এই বিতর্কের মাধ্যমে আমাকে এবং আমার দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে হেয় প্রতিপন্ন ও বিতর্কিত করা হয়েছে। যার মাধ্যমে বিএনপি ও জামায়াতকে মিথ্যা ইসু তৈরি করে দেয়া হয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে সুবিদ আলী বলেন, জিয়াকে প্রথম প্রেসিডেন্ট বলবো কেন? আমি ক্লু পাচ্ছি না। জিয়াউর রহমান প্রেসিডেন্ট কীভাবে হয়। তখন তো সরকারই হয়নি।
সুবিদ আলী জানান, কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র থেকে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র পাঠ করার সময় জিয়া নিজেকে প্রেসিডেন্ট বলেছিলেন, সে ভুল পরে শোধরানো হয়। ওই কথাটিই তিনি সংসদীয় কমিটির  বৈঠকে বলেছিলেন। সংসদীয় কমিটির সদস্যরাই এই কথা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন বলে সাংবাদিকরা তুলে ধরলে সুবিদ আলী বলেন, সেটা কে কী বলেছে, আমি কিছু জানি না। আই অ্যাম ভেরি সারপ্রাইজড। আমি কী বলব? যে এটা করেছেন, সে না বুঝে করেছেন।
এর আগে লিখিত বক্তব্যে সংসদীয় কমিটির বক্তব্যের ব্যাখ্যা করে সুবিদ আলী ভূঁইয়া বলেন, এ প্রসঙ্গে একজন সংসদ সদস্য সরাসরি আমাকে  প্রশ্ন করেন ‘আপনি কি তাহলে বলতে চান জিয়াই প্রথম প্রেসিডেন্ট?’ আমি তাকে পাল্টা প্রশ্ন করি ‘জিয়া কি তার জীবদ্দশায় কখনও নিজেকে প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দাবি করেছিলেন? এটাতো বিএনপির পলিটিক্যাল বক্তব্য। জিয়াতো দাবি করেননি।
উল্লেখ, গত বুধবার সরকারি প্রতিষ্ঠান সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের ‘প্রথম প্রেসিডেন্ট’ দাবি করেন সাবেক সেনা কর্মকর্তা সুবিদ আলী। ওই বৈঠকে উপস্থিত একাধিক সদস্যের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রমাণ দিতে পারলে রাজনীতি ছেড়ে দেবো
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ