Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

‘আমাকে ছেড়ে দেন, আমি এতিম অসহায় দুর্বল মানুষ’

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ নভেম্বর, ২০২০, ৪:৪৬ পিএম

'আমি ধর্ষণ করিনি। মিলন, দুলাল, ইয়াছিন, আলামিন- এই চারজন ধর্ষণ করেছে। তাদের ধরেন।'
বৃহস্পতিবার ঢাবি শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলার আসামি মজনুকে আদালতের এলজাসে ওঠানোর পর এসব কথা বলেন তিনি।
এর আগে মামলার রায় ঘোষণার জন্য কঠোর পুলিশ পাহারায় তাকে আদালতে তোলা হয়। এসময় মজনু আরও বলেন, 'ভাই আমাকে ছেড়ে দেন। আমি এতিম, অসহায়। আমারে মারলে আল্লাহ অনেক শাস্তি দিবে। আমাকে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে। আমি নির্দোষ। আমারে ছেড়ে দেন। আমি বাড়ি যামু গা, আমি আর থাকব না। আমি রিকশা চালাই, ভ্যান চালাই। আমি দুর্বল মানুষ। আমারে বিনাদোষে ধরে এনেছে। আল্লাহ বিচার করব রে। আমার নাম মজনু। আমি পাগল মজনু। আমারে এক বছর বিনাদোষে আটকে রেখেছে।
ছেড়ে দেয়ার আকুতি জানিয়ে মজনু বলেন, আজকে ছেড়ে দেন। আমারে অনেক অত্যাচার করেছে। আমার পক্ষে কেউ নাই। আমারে ছাইড়া দেন। আমি ব্রিজ থেকে লাফ দেব।
পুলিশকে হুমকি দিয়ে মজনু বলেন, 'আমার চোখের পানি শুকিয়ে গেছে। আমি ধর্ষণকারী না। আমারে তাড়াতাড়ি ছাইড়া দেন। না হলে অবস্থা খারাপ হবে। হাতের হ্যান্ডকাফ একবার খুলে দে। কত পুলিশ আছে দেখে নেবো।



 

Show all comments
  • মাসুম ২০ নভেম্বর, ২০২০, ১:৩৫ এএম says : 0
    রাস্ট্র কি এতই দূর্বল হয়েছে যে, ৪ টি ধর্ষণকারীর নাম প্রকাশ করতে ভয় পাচ্ছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Jack Ali ২০ নভেম্বর, ২০২০, ৫:০৭ পিএম says : 0
    Criminal government always support criminal's then why we liberated our country from Barbarian Pakistan.. When ever a government comes in power they commits so many crimes if we were to write about their crime it would be a volume of Book.
    Total Reply(0) Reply
  • Syed ২০ নভেম্বর, ২০২০, ১০:০৮ পিএম says : 0
    যেই বিচারক এই ছেলেকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিলেন সেই বিচারকের সামনেইত এই ছেলে দাবি করল যে সে ধর্ষণ করেনি এবং অন্য যে চারজন ধর্ষণ করেছে তাদের নামও বলেছে । তাহলে বিচারক ঐ ছেলের দাবী আমলে না নিয়ে, যাচাই না করে, ও যেই চার ছেলের নাম বলেছে তাদেরকে গ্রেফতার করে তদন্ত করার জন্য পুলিশ প্রশাসনকে আদেশ না দিয়ে, ইচ্ছেমত বিচারের রায় কেন দিয়ে দিলেন ?
    Total Reply(0) Reply
  • Sayed, Freedom Fighter ২২ নভেম্বর, ২০২০, ৭:৫০ এএম says : 0
    'আমি ধর্ষণ করিনি। মিলন, দুলাল, ইয়াছিন, আলামিন- এই চারজন ধর্ষণ করেছে। তাদের ধরেন।' - But victim of this case never told that there were 3 more people who rapped her. Now the culprit is telling that because his is mentally not a good person. As a psycho patient, the punishment could get a consideration.
    Total Reply(0) Reply
  • আবদুল কাইয়ুম শেখ ২২ নভেম্বর, ২০২০, ৪:৫০ পিএম says : 0
    প্রকৃত অপরাধীর/অপরাধীদের বিচার হোক আমিও চাই। মজনু যদি দোষী না হয়ে থাকে, তা হলে তাকে ফাঁসাবার প্রক্রিয়ায় যারা জড়িত তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি আল্লাহ তাআলা যেন ইহকালেই প্রদান করেন।
    Total Reply(0) Reply
  • এ, কে, এম জামসেদ ২৩ নভেম্বর, ২০২০, ৫:১৮ পিএম says : 0
    ৪ জন ধর্ষন করেছে, অথচ ধরেছে ১জন, বাকিদের ছেড়ে দিলো কেন?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ছাত্রী ধর্ষণ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ