Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী

নাচোলে নির্মাণাধীন বাড়ি থেকে স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

নাচোল (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ নভেম্বর, ২০২০, ১২:৫৯ পিএম

চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার নেজামপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের সল্লা গ্রামে কেতাব আলীর নির্মাণাধীন বাড়ির ভিতরে বালি দিয়ে ঢেকে রাখা অবস্থায় স্কুল পড়ুয়া তাজিমুল হক (১৭) লাশ উদ্ধার করেছে নাচোল থানা পুলিশ। নিহত কিশোর গোমস্তাপুর উপজেলার বোয়ালিয়া ইউনিয়নের কালুপুর গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে তাজিমুল হক। সে তার নানা নাচোল পৌর এলাকার শ্রীরামপুর গ্রামের আব্দুল অহাবের বাড়িতে থেকে নাচোল মুন্সি হযরত আলী উচ্চবিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীতে অধ্যয়ণরত ছিল। তার নানার পরিবারসূত্রে জানাগেছে, নিহত তাজিমুল ১৯নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে তার নানার অটো ইজিবাইক (দোলনা) নিয়ে ভাড়া চালানোর উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়। এদিন দুপুরে বাড়ি না ফিরলে নানা আব্দুল অহাব দুপুর ১টা ৫০মিনিটে তাজিমুলের মুঠোফোনে কল দেন। এসময় ফোন রিসিভ করে নেজামপুরে আছি, তাড়াতাড়ি বাড়ি ফিরবো বলে নিশ্চিত করেন। কিন্তু বিকেল ৪টা গড়িয়ে গেলে বাড়ি না ফেরায় পুনরায় তার মুঠোফোনে কল দিলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। প্রেক্ষিতে বিভিন্ন এলাকায় খোঁজখবর শুরু করেন তার স্বজনরা। এদিকে খোঁজাখুজির একপর্যায়ে রাত ৮টার দিকে নাচোল-আমনুরা সড়কে নেজামপুর সল্লা গ্রাম সংলগ্ন সড়কের ধারে ইজিবাইকটি পরিত্যাক্ত অবস্থায় দেখতে পায়, কিন্তু সেখানে দীর্ঘ সময় নাতি তাজিমুলের কোন সন্ধান না পেয়ে পরিত্যাক্ত ইজিবাইকটি নিয়ে বাড়ি ফিরে আসেন আব্দুল অহাব ও ছোট ভাই আব্দুল মাজেদ। পরে স্বজনদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা করে তাজিমুলের নানা আব্দুল অহাব ও আব্দুল মাজেদসহ আরও বেশ কয়েকজন স্বজনকে সাথে নিয়ে পুনরায় নেজামপুরের সল্লা গ্রামে গিয়ে খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে ওই গ্রামের অদুরে কেতাব আলীর নির্মাণাধীন বাড়ির মেঝেতে বালির নিচে মানুষের হাতের অংশবিশেষ দেখতে পায় তারা। এসময় নাচোল থানা পুলিশকে খবর দিলে রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে তাজিমুলের মৃতদেহ উদ্ধার করে নাচোল থানায় নিয়ে আসে। এব্যাপারে নাচোল থানার অফিসার ইন্চার্জ সেলিম রেজা জানান, এ ঘটনায় হত্যামামলা দায়ের করা হয়েছে ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লাশ উদ্ধার


আরও
আরও পড়ুন